ব্যাংক অ্যাকাউন্ট

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
মিডল্যান্ড ব্যাংক থেকে একজন গ্রাহকের কাছে চিঠি, বৈদ্যুতিন ডেটা প্রসেসিংয়ের বিষয়ে এবং বর্তমান অ্যাকাউন্টগুলির অ্যাকাউন্ট নম্বরগুলিতে তাদের অবহিত করা

একটি ব্যাংক অ্যাকাউন্ট একটি ব্যাংক দ্বারা পরিচালিত একটি আর্থিক অ্যাকাউন্ট। একটি ব্যাংক অ্যাকাউন্ট কোন ডিপোজিট অ্যাকাউন্ট, কোন ক্রেডিট কার্ড অ্যাকাউন্ট, একটি বর্তমান অ্যাকাউন্ট বা কোনও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের দ্বারা প্রদত্ত অ্যাকাউন্ট বা অন্য কোন ধরণের অ্যাকাউন্ট হতে পারে। এটি গ্রাহক যে আর্থিক তহবিলকে অর্পিত নিয়েছেন তা প্রতিনিধিত্ব করে। ব্যাংক নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে একটি ব্যাংক অ্যাকাউন্টে যে আর্থিক লেনদেন হয়েছে তার একটি ব্যাংক স্টেটমেন্টে গ্রাহককে জানায়।

প্রতিটি দেশের আইনগুলি ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টগুলি কীভাবে খোলা এবং পরিচালিত হতে পারে নির্দিষ্ট করে। কারা কোন অ্যাকাউন্ট খুলতে পারে সেটা দেশটি নির্দিষ্ট করে দিতে পারে। বেশিরভাগ দেশে ব্যাংক অ্যাকাউন্ট খোলার জন্য সর্বনিম্ন বয়স ১৮ বছর। তবে কয়েকটি দেশে ব্যাংক অ্যাকাউন্ট খোলার সর্বনিম্ন বয়স ১৬ বছর। বাংলাদেশে গ্রাহকের বয়স ১৮ বছর না হলেও কিছু ব্যাংক শিক্ষার্থীদের জন্য এই সুবিধা দিয়ে থাকে। তবে সেক্ষেত্রে অবিভাবকের সাহায্য প্রয়োজন হয়। [১]

অ্যাকাউন্ট কাঠামো[সম্পাদনা]

যখন আর্থিক প্রতিষ্ঠানটি গ্রাহকের কাছে অর্থ ঋণী থাকে তখন ব্যাংক অ্যাকাউন্টগুলির একটি ইতিবাচক বা ক্রেডিট ব্যালেন্স থাকতে পারে অথবা কোন নেতিবাচক বা ডেবিট ব্যালেন্স থাকতে পারে। যখন গ্রাহক আর্থিক প্রতিষ্ঠানের অর্থ পাওনা থাকে। [২]

সুস্পষ্টভাবে, ক্রেডিট ব্যালেন্স ধরে রাখার উদ্দেশ্য নিয়ে খোলা অ্যাকাউন্টগুলিকে ডিপোজিট অ্যাকাউন্ট হিসাবে উল্লেখ করা হয়, যেখানে ডেবিট ব্যালেন্স ধরে রাখার উদ্দেশ্য নিয়ে খোলা অ্যাকাউন্টগুলি ঋণ অ্যাকাউন্ট হিসাবে বিবেচিত হয়। কিছু অ্যাকাউন্ট ক্রেডিট এবং ডেবিট ব্যালেন্সের মধ্যে স্যুইচ করতে পারে।

সমস্ত আর্থিক প্রতিষ্ঠানের বিভিন্ন অ্যাকাউন্টের জন্য তাদের নিজস্ব নাম রয়েছে যা তারা গ্রাহকদের জন্য রেখে থাকে। যেমন,

অ্যাকাউন্ট হ্যাকিং হলে করণীয়[সম্পাদনা]

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কর্মকর্তা ও ব্যাংকিং বিশ্লেষকরা পরামর্শ দেন-

  1. গ্রাহক যদি লক্ষ্য করেন যে তাঁর অ্যাকাউন্ট থেকে তার অজান্তে টাকা তুলে নেয়া হচ্ছে বা হয়েছে তাহলে তাৎক্ষনিকভাবে সেটি ব্যাংক কর্তৃপক্ষকে অবহিত করতে হবে।
  2. অ্যাকাউন্টে টাকা লেনদেন হলে সাধারণত গ্রাহকের মোবাইলে দ্রুত একটি বার্তা আসে। এতে যদি দেখা যায় যে গ্রাহক লেনদেন না করলেও টাকা উত্তোলনের বার্তা এসেছে তাহলে তাৎক্ষনিকভাবে ব্যাংক কর্তৃপক্ষকে জানাতে হবে।
  3. ব্যাংক কর্তৃপক্ষ বিষয়টি আমলে না নিলে দ্রুত বাংলাদেশ ব্যাংকে অভিযোগ করা যেতে পারে।
  4. গ্রাহকের ডেবিট কার্ড এবং ক্রেটিড কার্ড-এর পাসওয়ার্ড সর্বোচ্চ সতর্কতা এবং গোপনীয়তার সাথে রাখতে হবে। নিজের দোষে হ্যাকিং শিকার হলে ব্যাঙ্ক তার দায়ভার নিবে না।
  5. ফেসবুক বা ইমেইলে অপরিচিত কোন ব্যক্তির পাঠানো অ্যাটাচমেন্ট ক্লিক না করাই উত্তম। এতে গ্রাহকের মোবাইল ফোন সেট কিংবা কম্পিউটার ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে এবং হ্যাকাররা সেটির নিয়ন্ত্রণ নিতে পারে। [৩]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. https://www.bankingnewsbd.com/how-to-open-student-savings-account
  2. "What is debit balance? definition and meaning"। Businessdictionary.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১৩-১২-১৭ 
  3. https://www.bbc.com/bengali/news-45223015