বৈষ্ণব জন তো

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
"বৈষ্ণব জন তো"
লতা মঙ্গেশকর
জগজিৎ সিং
এম. এস. সুব্বুলক্ষ্মী
প্রমুখ শিল্পীবৃন্দ কর্তৃক সঙ্গীত
ভাষাগুজরাতি
প্রকাশিতখ্রিস্টীয় ১৫শ শতাব্দী
ধারাভজন
গান লেখকনরসিং মেহতা

"বৈষ্ণব জন তো" হল সর্বাধিক জনপ্রিয় হিন্দু ভজনগুলির অন্যতম। ১৫শ শতাব্দীর কবি নরসিং মেহতা এই ভজনটি গুজরাতি ভাষায় রচনা করেছিলেন। গানটি মহাত্মা গান্ধীর দৈনিক প্রার্থনার অন্তর্গত ছিল। গানটিতে এক বৈষ্ণবের জীবন, আদর্শ ও মানসিকতার কথা বলা হয়েছে।

কথা[সম্পাদনা]

এই ভজনটির কথা নিম্নরূপ:

গুজরাতি দেবনাগরী বঙ্গানুবাদ

વૈષ્ણવ જન તો તેને કહિયે જે પીડ પરાયી જાણે રે
પર દુ:ખે ઉપકાર કરે તો યે મન અભિમાન ન આણે રે. ॥ધૃ॥

वैष्णव जन तो तेने कहिये जे पीड परायी जाणे रे।
पर दुःखे उपकार करे तो ये मन अभिमान न आणे रे॥

বৈষ্ণব তিনিই যিনি,
অন্যের ব্যথা অনুভব করেন,
কিন্তু অহংকার বা গর্ববোধকে মনে কখনও প্রবেশ করতে দেন না।

સકળ લોકમાં સહુને વંદે, નિંદા ન કરે કેની રે
વાચ કાછ મન નિશ્છળ રાખે ધન ધન જનની તેની રે. ॥૧॥

सकळ लोकमां सहुने वंदे, निंदा न करे केनी रे।
वाच काछ मन निश्चळ राखे, धन धन जननी तेनी रे॥

বৈষ্ণবগণ সমগ্র জগৎকে সম্মান করেন,
কারোর দোষ দর্শন করেন না,
নিজেদের কথা রাখেন, কার্যে ও চিন্তায় পবিত্র থাকেন,
এমন আত্মার জননী সুখী হন।

સમદૃષ્ટિ ને તૃષ્ણા ત્યાગી પરસ્ત્રી જેને માત રે
જિહ્વા થકી અસત્ય ન બોલે પરધન નવ ઝાલે હાથ રે. ॥૨॥

समदृष्टि ने तृष्णा त्यागी, परस्त्री जेने मात रे।
जिह्वा थकी असत्य न बोले, परधन नव झाले हाथ रे॥

বৈষ্ণবগণ সকলকে সমদৃষ্টিতে দেখেন, লোভ ও চাহিদা ত্যাগ করেন,
নারীকে মাতৃদৃষ্টিতে সম্মান করেন,
তাঁদের জিহ্বা কখনও মিথ্যা কথা উচ্চারণ করে না,
তাঁদের হাত কখনও অন্যের ধন স্পর্শ করে না।

મોહ માયા વ્યાપે નહિ જેને, દૃઢ વૈરાગ્ય જેના મનમાં રે
રામ નામ શુ તાળી રે લાગી સકળ તીરથ તેના તનમાં રે. ॥૩॥

मोह माया व्यापे नहि जेने, दृढ़ वैराग्य जेना मनमां रे।
रामनाम शुं ताळी रे लागी, सकळ तीरथ तेना तनमां रे॥

বৈষ্ণবগণ জাগতিক বিষয়ে আকৃষ্ট হন না,
তাঁরা জাগতিক সুখসাচ্ছন্দ্য থেকে দূরে থাকেন।
তাঁরা সর্বদা রামনামে আকৃষ্ট হন,
সকল তীর্থ তাঁদের দেহে অবস্থান করেন।

વણ લોભી ને કપટ રહિત છે, કામ ક્રોધ નિવાર્યાં રે
ભણે નરસૈયો તેનું દર્શન કરતાં કુળ એકોતેર તાર્યાં રે. ॥૪॥

वणलोभी ने कपटरहित छे, काम क्रोध निवार्या रे।
भणे नरसैयॊ तेनुं दरसन करतां, कुळ एकोतेर तार्या रे॥

লোভ ও অহংকারশূন্যতা বৈষ্ণবদের ভরিয়ে রাখে,
সকল কাম ও ক্রোধ থেকে তাঁরা দূরে থাকেন,
এই কাব্যের রচয়িতা (নরসিং) এমন আত্মার দর্শনে ধন্য হন,
এঁদের গুণ তাঁদের সকল বংশধারাকে মোক্ষপথে নিয়ে যায়।

প্রভাব[সম্পাদনা]

এই ভজনটি একাধিক ব্যক্তিত্বকে অনুপ্রাণিত করেছিল। এঁদের মধ্যে বিশেষভাবে উল্লেখযোগ্য হলেন মহাত্মা গান্ধী[১]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

টেমপ্লেট:Mohandas K. Gandhi