বাঁকী রাজ্য

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
বাঁকী রাজ্য
ବାଙ୍କୀ
ব্রিটিশ ভারত দেশীয় রাজ্য
১৮০৭–১৮৪০
Daspalla-Nayagarh-Imperial Gazetteer.jpg
ইম্পেরিয়াল গেজেটিয়ার অব ইন্ডিয়া থেকে প্রাপ্ত বাঁকি রাজ্যের মানচিত্র
আয়তন 
• ১৮৮১
৩০০ বর্গকিলোমিটার (১২০ বর্গমাইল)
জনসংখ্যা 
• ১৮৮১
৫৬,৯০০
ইতিহাস 
• ব্রিটিশ করদ রাজ্য হিসাবে আত্মপ্রকাশ
১৮০৭
• ব্রিটিশ ভারতে অন্তর্ভুক্তি
১৮৪০
উত্তরসূরী
ব্রিটিশ ভারতের প্রেসিডেন্সি ও প্রদেশসমূহ
বর্তমানে যার অংশওড়িশা, ভারত

বাঁকী রাজ্য ছিলো ব্রিটিশ শাসিত ভারতের উড়িষ্যায় অবস্থিত একটি দেশীয় রাজ্য৷ রাজ্যটির রাজধানী ছিলো বাঙ্কী শহরে, যা বর্তমানে ওড়িশা রাজ্যের কটক জেলার পশ্চিম প্রান্তে অবস্থিত৷ [১]

রাজ্যটির শেষ রাজাকে ব্রিটিশ সরকার হত্যার মামলায় বাজেয়াপ্ত করেন ও এবং রাজ্যটি ব্রিটিশ সাম্রাজ্যের অন্তর্ভুক্ত করে নেন৷ ১৮৪০ খ্রিস্টাব্দ অবধি এটির বার্ষিক রাজস্ব আদায়ের পরিমান ছিলো ৪৪৩ মুদ্রা৷

ইতিহাস[সম্পাদনা]

ওড়িশার কটক জেলার পশ্চিম দিকের পার্বত্য অঞ্চলে অবস্থিত বাঁকী রাজ্য ছিলো মূলত একটি জমিদারি রাজ্য৷ এই অঞ্চলে প্রতিষ্ঠিত পূর্ববর্তী রাজ্যটি একজন প্রভাবশালী রাজা দ্বারা শাসিত হতো৷ খ্রিস্টীয় সপ্তদশ শতকে তিনি তার দ্বিতীয় পুত্রকে উপহার স্বরূপ ডোমপাড়ার নিকট এই জমিদারি দান করেছিলেন৷ [২]

এই রাজ্যের উত্তর দিকে প্রবাহিত মহানদী নদী ভৌগোলিকভাবে রাজ্যটির সাথে পার্শ্ববর্তী বড়ম্বাতিগরিয়া রাজ্যকে পৃথক করেছে৷ এছাড়া পূর্বতন এই রাজ্যটির দক্ষিণে রয়েছে ব্রিটিশ ভারতের পুরী জেলা এবং পশ্চিমদিকে রয়েছে খণ্ডপাড়া রাজ্য। মহানদীর উত্তর প্রান্তেও রয়েছে ১৭৭ টি গ্রামের সমন্বয়ে গঠিত এই রাজ্যের বেশ কিছু অংশ৷

মারাঠা সাম্রাজ্যের পতনের পর ১৮০৭ খ্রিস্টাব্দে এই রাজ্য ব্রিটিশদের অধিরাজ্যে পরিণত হয়৷ ১৮২১ খ্রিস্টাব্দে এটিকে ওড়িশার অধিরাজ্যের অন্তর্ভুক্ত করা হয়৷ [৩] জনগণনা অনুসারে এই রাজ্যের জনসংখ্যা ১৮৭২ খ্রিস্টাব্দে ৪৯,৪২৬ থেকে বেড়ে ১৮৮১ খ্রিস্টাব্দে ৫৬,৯০০ হয়ে দাঁড়ায় এবং ১৯০১ খ্রিস্টাব্দের মধ্যে এর জনঘনত্ব ৩৭৭ জন প্রতি বর্গমাইল হয়৷[৪] রাজ্যের ৯৯.৫ শতাংশই ছিলো ধর্মেই হিন্দু এবং পার্বত্য অঞ্চলে বসবাসকারী মূল জাতি ছিলো জুয়াঙ জাতি[৫]

শাসকবর্গ[সম্পাদনা]

বাঁকী রাজ্যের শাসকগণ "রাজা" উপাধিতে ভূষিত হতেন৷ ১৮৪০ খ্রিস্টাব্দে রাজ্যের শেষ রাজা হত্যাকাণ্ডের দায়ে পদচ্যুত হয় এবং তাকে আজীবন কারাদণ্ড দেওয়া হয়, একই সাথে রাজ্যটিকে ত্রুটিপূর্ণ ঘোষণা করে ব্রিটিশ সাম্রাজ্যের অন্তর্ভুক্ত করে নেওয়া হয়৷ অন্তর্ভুক্তির পর বাঁকীর ওপর পুরোপুরিভাবে বেঙ্গল প্রেসিডেন্সির নিয়ন্ত্রনাধীন হয়ে পড়ে এবং রাজ্যটি কটক জেলার অন্তর্ভুক্ত করে প্রশাসনিকভাবে শাসনকার্য সম্পন্ন হতে থাকে৷

রাণী শুকদেঈ[সম্পাদনা]

রাণী শুকদেঈ (খ্রিঃ ১৬৮৬ - খ্রিঃ ১৭২৬) ছিলেন ওড়িশার বড়ম্বা রাজ্যের রাজকন্যা ও বাঁকী রাজ্যের রাণী৷ এক বিধবা রাণীর খুর্দার গজপতির বিরুদ্ধে তাঁর সাহসিকতা প্রদর্শনের জন্য ভারতের ইতিহাসে স্মরণীয় হয়ে রয়েছেন৷

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Banki, India Page
  2. "Dompada (Zamindari)"। ২৪ জানুয়ারি ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৭ অক্টোবর ২০২০ 
  3. L. E. B. Cobden-Ramsay, Feudatory States of Orissa: Bengal District Gazetteers, Logos Press, 2011
  4. Imperial Gazetteer of India, v. 11, p. 89.
  5. Great Britain India Office. The Imperial Gazetteer of India. Trübner & co. London, 1885.