তিগরিয়া রাজ্য

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
তিগরিয়া রাজ্য
ତିଗିରିଆ
ব্রিটিশ ভারত দেশীয় রাজ্য
খ্রিস্টীয় ষোড়শ শতাব্দী–১৯৪৮
DhenkanalKart.jpg
ইম্পেরিয়াল গেজেটিয়ার অব ইন্ডিয়া থেকে প্রাপ্ত তিগরিয়া রাজ্যের মানচিত্র
আয়তন 
• ১৯৩১
১১৯ বর্গকিলোমিটার (৪৬ বর্গমাইল)
জনসংখ্যা 
• ১৯৩১
২৪,৮৫২
 • ধরনরাজতন্ত্র
ঐতিহাসিক যুগভারতে ব্রিটিশ উপনিবেশ
• প্রতিষ্ঠিত
খ্রিস্টীয় ষোড়শ শতাব্দী
১৯৪৮
উত্তরসূরী
ভারত
বর্তমানে যার অংশওড়িশা,  ভারত

তিগরিয়া রাজ্য, (যা তিগিরিয়া নিজিগড় নামেও পরিচিত ছিলো), ছিলো ব্রিটিশ শাসিত ভারতে অবস্থিত একটি দেশীয় রাজ্য, যা বর্তমানে ভারতের অন্তর্গত৷[১] ওড়িশার কটক জেলার তিগরিয়া ব্লক মোটামুটি ভাবে এই রাজ্যটির সীমা নির্দেশ করে৷ এই রাজ্য ওড়িশার দেশীয় রাজ্যগুলির মধ্যে সর্বনিম্ন আয়তনবিশিষ্ট ও সর্বাধিক জনঘনত্বপূর্ণ রাজ্য ছিলো৷ [২] ১৯৪৮ খ্রিস্টাব্দে তিগরিয়া রাজ্যের শেষ রাজা ভারতীয় অধিরাজ্যে যোগদানের সিদ্ধান্ত নেন৷ [৩]

এই রাজ্যটির উত্তর দিকে ছিলো ঢেঙ্কানাল রাজ্য, পূর্বদিকে ছিলো আটগড় রাজ্য, দক্ষিণ দিকে ছিলো প্রবাহমানা মহানদী নদী এবং পশ্চিম দিকে ছিলো বড়ম্বা রাজ্য৷[২]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

রাজা নিত্যনন্দ তুঙ্গ খ্রিস্টীয় ষোড়শ শতাব্দীতে এই তিগরিয়া রাজ্যের পত্তন ঘটান, তবে এর সঠিক সনটি জানা যায় নি৷ জনশ্রুতি অনুসারে তিনি পুরীতে তীর্থ করতে যাওয়ার সসময়ে স্বপ্নে এই অঞ্চল দেখতে পান এবং পুরীর পশ্চিমে তাঁর খোঁজ পান৷

তিগরিয়া রাজ্যের শাসকরা মূলত শিক্ষাসংক্রান্ত বিষয়ে বিশেষ গুরুত্ব আরোপ করতেন এবং রাজ্যে বহু বিদ্যালয়ও প্রতিষ্ঠা করেছিলেন৷ ১৯৪৮ খ্রিস্টাব্দের ১লা জানুয়ারি তারিখে তিগরিয়া রাজ্যের শেষ রাজা একীভূতকরণের দলিলে স্বাক্ষর করে ভারতীয় অধিরাজ্যে যোগদানের সিদ্ধান্ত নেন৷ [৩]

তিগরিয়া বা তিগিরিয়া নামটি খুব সম্ভবত সংস্কৃত শব্দ "ত্রিগিরি" থেকে এসেছে যার অর্থ তিনটি পাহাড়ের অবস্থান৷ রাজ্যের অধিকাংশ বাসিন্দাই হিন্দু ধর্মাবলম্বী ও চাস সম্প্রদায়ের অন্তর্গত ছিলেন৷ রাজ্যটিতে বেশ কিছু উল্লেখযোগ্য মন্দিরও ছিলো৷

শাসকবর্গ[সম্পাদনা]

তিগরিয়া রাজ্যের শাসকরা রাজা উপাধিতে ভূষিত হতেন৷ [৪]

  • ১৬৮২ – ১৭৪২ শঙ্করেশ্বর মান্ধাতা
  • ১৭৪৩ – ১৭.. গোপীনাথ চমুপতি সিংহ
  • ১৭.. – ১৭৯৭ যদুমণি রায় সিংহ
  • ১৭৯৭ – ১৮৪৪ জগন্নাথ চমুপতি সিংহ
  • ১৮৪৪ – ৮ এপ্রিল ১৮৮৬ হরিহর ক্ষত্রিয় বীরবর চমুপতি সিংহ
  • ৮ এপ্রিল ১৮৮৬ – ১৯৩৩ বনমালী ক্ষত্রিয় বীরবর চমুপতি সিংহ
  • ১৯৩৩ – ১৯৪৩ সুদর্শন ক্ষত্রিয় বীরবর চমুপতি সিংহ
  • ১৯৪৩ – ১৫ আগস্ট ১৯৪৭ ব্রজরাজ ক্ষত্রিয় বীরবর চমুপতি সিংহ [৫]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Malleson, G. B.: An historical sketch of the native states of India, London 1875, Reprint Delhi 1984
  2. Imperial Gazetteer of India, v. 23, p. 357.
  3. "Tigiria Princely State – "The Golden Book of India"; LETHBRIDGE, Roper, MacMillan & Co., 1893 p. 539"। ২৪ অক্টোবর ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৯ অক্টোবর ২০২০ 
  4. Princely States of India K-W
  5. Mohanty, Debabrata (১ ডিসেম্বর ২০১৫)। "Erstwhile king of Tigiria Brajraj Mahapatra dies in Odisha"The Indian Express