বজলুল হক হারুন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
বজলুল হক হারুন
জাতীয় সংসদ সদস্য
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্ম (1954-03-01) ১ মার্চ ১৯৫৪ (বয়স ৬৫)
রাজনৈতিক দলবাংলাদেশ আওয়ামী লীগ

বজলুল হক হারুন (জন্ম: ১লা মার্চ ১৯৫৪) হলেন একজন বাংলাদেশী ব্যবসায়ী ও রাজনীতিবিদ, যিনি বিএইচ হারুন নামে সমধিক পরিচিত। তিনি ঝালকাঠি-১ থেকে নির্বাচিত আওয়ামী লীগ দলীয় সংসদ সদস্য।

প্রাথমিক জীবন[সম্পাদনা]

রাজনৈতিক জীবন[সম্পাদনা]

বজলুল হক হারুন ২০০৮ সাধারণ নির্বাচনে ঝালকাঠি-১ আসন থেকে প্রথম সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন। ৫ জানুয়ারি ২০১৪ সাধারণ নির্বাচনে তিনি পুনরায় সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। তিনি ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন।[১]

বিতর্ক[সম্পাদনা]

বজলুল হক হারুন সংসদ সদস্য নির্বাচিত হওয়ার পর অবৈধ সম্পদ অর্জন, টাকা আত্মসাৎ সহ নানা বিতর্কে জড়িয়েছেন। তার মধ্যে একটি হল রেইনট্রি হোটেল বিতর্ক, যেখানে বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই ছাত্রীকে অস্ত্র দেখিয়ে ধর্ষণ করা হয়েছিল এবং যাতে হারুনের ছোট ছেলে মাহির হারুন জড়িত ছিল।[২] এছাড়া হোটেল ভবন নির্মাণ ও হোটেল চালু করতে তিনি রাজউকের কোনো নিয়মনীতি মানেননি।[২] ২০০৮ সালে তিনি প্রিমিয়ার ব্যাংকের ভাইস চেয়ারম্যান থাকাকালীন সময়ে ব্যাংক থেকে রুমি এন্টারপ্রাইজের চেক জালিয়াতি করে ১৩৪ কোটি টাকা আত্মসাৎ করেছেন।[৩] ২০১৩ সালে তিনি রাজাপুর ডিগ্রি কলেজের ১২ জন শিক্ষক নিয়োগে দুর্নীতি করেন, যার জন্য তিনি নিয়োগ পরীক্ষা নেন ঢাকায় নিজ অফিসে।[৪]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটি"www.parliament.gov.bd। ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-১১-২২ 
  2. "এমপি হারুনের ভাগ্যের চাকা ঘুরছে রকেটগতিতে"সমকাল। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-১১-২২ 
  3. "এমপি হারুনকে দুদকে তলব ১১ এপ্রিল"Jugantor। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-১১-২২ 
  4. "সরকারদলীয় এমপি হারুন ও উপজেলা চেয়ারম্যান বাচ্চুসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা"The Daily Sangram। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-১১-২২