ফেকিং নিউজ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
ফেকিং নিউজ
Faking News logo.png
ধরন ব্যঙ্গাত্মক সংবাদ
ফরম্যাট সংবাদপত্র
প্রতিষ্ঠাতা রাহুল রৌশন
প্রতিষ্ঠাকাল সেপ্টেম্বর ১৫, ২০০৮ (২০০৮-০৯-১৫)
দাপ্তরিক ওয়েবসাইট fakingnews.com

ফেকিং নিউজ (ইংরেজি: Faking News) হল একটি ভারতীয় ব্যঙ্গাত্মক সংবাদ বা প্রহসনমূলক সংবাদের ওয়েবসাইট। এই ওয়েবসাইট ভারতের রাজনীতি এবং সমাজ জীবনের ওপরে আধারিত ব্যঙ্গের সাথে মিথ্যা সংবাদ পরিবেশন করা হয়। এই ওয়েবসাইটটির মধ্যে ভারতের দূরদর্শন এবং সংবাদ পরিষেবার সাথে জড়িত তথ্যপূর্ণ প্রবন্ধও প্রকাশিত হয়। ২০০৮ সালের ১৫ সেপ্টেম্বর তারিখে এই ব্যঙ্গাত্মক ওয়েবসাইটটি আরম্ভ করা হয়েছিল। [১]

ব্লগের রূপে দৈনিক প্রকাশিত এই ওয়েবসাইটটিতে Pagal Patrakar (বাংলা: পাগল পত্রকার) ছদ্মনামের একজন ব্লগার ব্যঙ্গাত্মক সংবাদসমূহ লেখেন। বাংলায় পাগল পত্রকারের অর্থ হল উন্মাদ সাংবাদিক[২] শুরুতে বেনামী ভাবে লিখতে আরম্ভ করা এই ব্লগটি দিল্লীর একজন ব্যবস্থাপনা পরামর্শদাতা রাহুল রৌশন কর্তৃক প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল।[৩]

ভারতবর্ষে তুলনামূলকভাবে নতুন হলেও পাশ্চাত্য দেশসমূহে বহুলভাবে প্রচলিত বিদ্রুপ এবং হাস্যরস সহিত ব্যঙ্গাত্মকাত্মক সংবাদের পত্রিকা ছিল আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্রের "দ্য অনিঅন"। ফেকিং নিউজ ভারতে এই ধারা প্রবর্তন এবং প্রচলনের ক্ষেত্রে অগ্রগণ্য ওয়েবসাইটসমূহের মধ্যে অগ্রণী এবং অন্যতম।[৪] এলেক্সার সাম্প্রতিক র্যাঙ্কিং অনুযায়ী, সমগ্র বিশ্বে ইংরাজী ভাষায় প্রকাশিত ব্যঙ্গাত্মক ওয়েবসাইটসমূহের ভিতরে দি অনিঅন-এর পরে ফেকিং নিউজ দ্বিতীয় স্থান অধিকার করেছে।[৫]

সত্য হিসেবে সংবাদ প্রকাশ[সম্পাদনা]

ওই সাইটে প্রকাশিত দুটি ব্যঙ্গ প্রতিবেদন Unable to attract even a single girl, frustrated man sues Axe এবং Men talking loud on mobile during movies have smaller penises অন্য একটি ভারতীয় ওয়েবসাইট Indiainfo.com সত্য সংবাদ হিসাবে ভুলক্রমে পরিবেশন করতে গিয়ে ২০০৯ সালের ২১ অক্টোবর তারিখে নিজের ওয়েবসাইটটি প্রকাশ করেছিল।[৬][৭] এছাড়াও, পরবর্ত্তী পর্যায়ে "Axe" সম্পর্কীয় সংবাদটি ভারতের বাইরেও অন্যান্য দেশের বহু ওয়েবসাইট এবং ব্লগ সত্য সংবাদ হিসেবে প্রকাশিত হয়।[৮][৯][১০][১১][১২][১৩], সাম্প্রতিককালে টাইমস অব্ ইণ্ডিয়ার ২০১১ সালের ২৭ মে' [১৪] এবং ২৫ সেপ্টেম্বরের [১৫] সংখ্যায় এই ব্যঙ্গাত্মক সংবাদ দুটি পুনরায় প্রকাশিত, এবং এই দুটি সংবাদ নাগরিক কিংবদন্তী হিসেবে পরিচিত হয়।[১৬] Unable to figure out Google Wave, youngster kills himself শীর্ষক অন্য একটি ফেকিং নিউজ OneIndia.com নামের ওয়েবসাইটির দ্বারা ২০০৯ সালের ১০ নভেম্বর তারিখে সত্য ঘটনা হিসেবে প্রকাশিত হয়েছিল।[১৭]

কৃতিত্ব[সম্পাদনা]

  • ২০১২ সালের ২ সেপ্টেম্বর তারিখে ভারতের অগ্রণী সংবাদপত্র হিন্দুস্তান টাইমস ফেকিং নিউজের রাহুল রৌশন একেটি সংবাদপত্রের প্রথম পৃষ্ঠার নকল করে একটি সম্পূর্ণ পৃষ্ঠার ব্যঙ্গাত্মক সংবাদ Parody Times সৃষ্টি করেছিল। [১]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]