পোমারা গণহত্যা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
পোমারা গণহত্যা
পোমারা গণহত্যা বাংলাদেশ-এ অবস্থিত
পোমারা গণহত্যা
স্থানপোমারা, চট্টগ্রাম জেলা, পূর্ব পাকিস্তান
তারিখ১৪ সেপ্টেম্বর ১৯৭১ (UTC+6:00)
লক্ষ্যবাঙ্গালী হিন্দু
হামলার ধরনগণহত্যা
ব্যবহৃত অস্ত্রজীবন্ত কবর
নিহত১৩
আহত১০০
হামলাকারী দলপাকিস্তান সেনাবাহিনী

পোমারা গণহত্যা বলতে ১৯৭১ সালের ১৪ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশের চট্টগ্রাম জেলার পোমারা ইউনিয়নের নিরস্ত্র বাঙালি হিন্দুদের হত্যা বোঝায়। [১][২][৩] পাকিস্তান সেনাবাহিনী পোমরা সংরক্ষিত বনে ১৩ বাঙালি হিন্দুকে জীবন্ত কবর দেয়।

পটভূমি[সম্পাদনা]

পোমারা ইউনিয়ন চট্টগ্রাম জেলার রাঙ্গুনিয়া উপজেলাধীন । গণহত্যা সাইটটি গোচরা চৌমোহনী রেলস্টেশন থেকে প্রায় ৫০ মিটার দূরে এবং চট্টগ্রাম থেকে ২৫ কিমি দূরে অবস্থিত। [২] এটি পোমারা সংরক্ষিত বনের ঠিক পাশেই পোমারা উচ্চ বিদ্যালয়ের পিছনে অবস্থিত। [৩]

হত্যাকাণ্ড[সম্পাদনা]

১৪ ই সেপ্টেম্বর পাকিস্তান সেনাবাহিনীর একটি 50-60 শক্তিশালী দল মধুরাম তালুকদারপাড়া আক্রমণ করে এবং পুরুষ, মহিলা, শিশু এবং বৃদ্ধদের উপর বর্বর হামলা চালায়। [১] আঠারো গ্রামবাসীকে দড়ির সাথে বেঁধে দেওয়া হয়েছিল এবং পরে তাকে পিটিয়ে মেরে টেনে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল পোমরা সংরক্ষিত বনের কাছে সেনা শিবিরে। [২] সেনা অফিসারদের কাছ থেকে মুক্তি পেতে শত শত গ্রামবাসী তাদের সাথে শিবিরে এসেছিলেন। বন্দীদের মধ্যে জ্যেষ্ঠ পাঁচজনকে মৃত অবস্থায় ছেড়ে দেওয়া হয়েছিল। বাকিদের একটি কবর খনন করার জন্য তৈরি করা হয়েছিল যেখানে তাদের জীবন্ত সমাধি দেওয়া হয়েছিল।

ভবিষ্যৎ ফল[সম্পাদনা]

কয়েক দিন পরে স্থানীয়রা লাশ উদ্ধার করার চেষ্টা করেছিল, কিন্তু ভারী দুর্গন্ধের কারণে সে আশা ছেড়ে দিয়েছিল। শীঘ্রই গণকবরটি ঝোপঝাড় দিয়ে একাকার হয়ে যায় এবং অঞ্চলটি গবাদি পশুদের জন্য চারণভূমিতে পরিণত হয়। বর্তমানে গণহত্যার জায়গায় মৌসুমী সবজির চাষ হয়। [৩]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "১৩ জনকে জীবন্ত কবর দিয়ে উল্লাস করে হানাদারেরা"Prothom Alo (Bengali ভাষায়)। Dhaka। ১২ ডিসেম্বর ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ৮ আগস্ট ২০১৪ 
  2. "রাঙ্গুনিয়ার পোমরা ও আতাইকুলা গণকবর এখনও অরক্ষিত"Dainik Janakantha (Bengali ভাষায়)। Dhaka। ১২ ডিসেম্বর ২০১১। সংগ্রহের তারিখ ৮ আগস্ট ২০১৪ 
  3. "পোমরার গণকবরে বরবটি চাষ হয়"Samakal (Bengali ভাষায়)। Dhaka। ১২ ডিসেম্বর ২০১০। ৪ মার্চ ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৮ আগস্ট ২০১৪