পরিবৃত্ত

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিবৃত্ত, C, এবং একটি চক্রাকার বহুভুজ, P-এর পরিকেন্দ্র, O

জ্যামিতিতে পরিলিখন (ইংরেজি ভাষায়: Circumscribe) বলতে একটি ঘনবস্তু বা জ্যামিতিক আকৃতির বাইরে আরেকটি ঘনবস্তু বা জ্যামিতিক আকৃতিকে এমনভাবে স্থাপন করা বোঝায় যাতে বাইরের বস্তু বা আকৃতিটি ভেতরেরটির সাথে এতেবারে লেগে থাকে এবং একেবারে সঠিকভাবে অন্তর্ভুক্ত করে। ক বস্তুর বাইরে খ বস্তু পরিলিখিত আছে, একে অন্যভাবে বলা যায় খ বস্তুর ভেতরে ক বস্তু অন্তর্লিখিত (inscribe) আছে। পরিলিখিত আকৃতিটি যদি বৃত্ত হয় তাহলে তাকে বলে পরিবৃত্ত। আর অন্তর্লিখিত হলে বলে অন্তর্বৃত্ত

সকল বহুভুজের পরিবৃত্ত থাকে না। যে বহুভুজের একটি মাত্র পরিবৃত্ত থাকে অর্থাৎ বহুভুজটির প্রতিটি শীর্ষবিন্দুকে স্পর্শ করে এমন বৃত্ত শুধু একটিই আঁকা সম্ভব তাকে বৃত্তীয় বহুভুজ বলা হয়। এধরনের বহুভুজের শীর্ষবিন্দুগুলো কনসাইক্লিক হওয়ায় এদেরকে কখনও কখনও কনসাইক্লিক বহুভুজও হয়। সকল ত্রিভুজ, সকল সুষম সাধারণ বহুভুজ, সকল আয়তক্ষেত্র, সকল সমদ্বিবাহু ট্রাপিজিয়াম এবং সমস্ত সমকোণী ঘুড়ি বৃত্তীয় অর্থাৎ উল্লেখিত প্রতিটি কাঠামোকে কোন না কোন বৃত্তে অন্তর্লিখন করা যাবে।