নীল টেংরাকাঁটা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

নীল টেংরাকাঁটা
Acanthus ilicifolius fruit.jpg
Acanthus ilicifolius
বৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাস
জগৎ: Plantae
(শ্রেণীবিহীন): Angiosperms
(শ্রেণীবিহীন): Eudicots
(শ্রেণীবিহীন): Asterids
বর্গ: Lamiales
পরিবার: Acanthaceae
গণ: Acanthus
প্রজাতি: A. ilicifolius
দ্বিপদী নাম
Acanthus ilicifolius
L.

নীল টেংরাকাঁটা বা নীল হরগজা বা হরকুচ, কটকি (বৈজ্ঞানিক নাম: Acanthus ilicifolius) (ইংরেজি: Sea Holly বা Holy Mangrove) বাদাবনের ঝোপ ধরনের গাছ বা গুল্ম। এটি একটি গৌণ বাদাগাছ।

বিবরণ[সম্পাদনা]

নীল টেংরাকাঁটার শাখা থেকে বেরোনো ছোট্ট শীষের মাথায় ফুল ফোটে। ফুলের রঙ নীল ও পাতা গাঢ় সবুজ। এদের পাতা খুব শক্ত । হরগজা ফুলে প্রচুর উৎকৃষ্ট মানের মধু হয়। নিজেকে রক্ষা করার জন্য গাছগুলোর পাতার গোড়ায় ও অগ্রভাগে কাঁটা থাকে। হরগজার ফুল থেকে ক্যাপসুলের মতো ফল হয়। এর কাটা অনেক শক্ত।

অন্যান্য গাছ[সম্পাদনা]

একান্থাসি পরিবারের অন্যান্য প্রজাতি সাধারণ পরিবেশেও বেড়ে উঠতে পারে। বেড়ে ওঠার পরিবেশ বিবেচনায় একে লালবাদার অন্তর্ভূক্ত করা হয়। লালবাদা মানে হলো উদ্ভিদ-প্রজাতিটি অতিরিক্ত লবণাক্ততায় বেড়ে উঠতে ও টিকে থাকতে পারে। এর কাণ্ড অশক্ত। তাই এ গাছ কিছুটা সোজা হয়ে, লতার মত বা চারপাশে ছড়িয়ে বেড়ে উঠতে পারে। এই গাছ সাধারণত উপকূলীয় হ্রদ, ডোবা, জলাভূমি ও সমুদ্র সৈকতে এ গাছগুলো জন্মায়।

বৈশ্বিক বিস্তৃতি[সম্পাদনা]

নীল টেংরাকাঁটা অস্ট্রেলিয়া, বাংলাদেশ, কম্বোডিয়া, চীন, হংকং, ভারত, ইন্দোনেশিয়া, ম্যাকাও, মালয়েশিয়া, পাকিস্তান, সিঙ্গাপুর, শ্রীলংকা, তাইওয়ান, পূর্ব তিমুর, ভিয়েতনাম[১] এবং প্যাসিফিক দ্বীপে পাওয়া যায়।[২][৩]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. http://www.iucnredlist.org/details/168780/0
  2. Barker, R. M. (১৯৮৬)। "A taxonomic revision of Australian Acanthaceae" (PDF)Journal of the Adelaide Botanic Gardens9: (1–) 64–75 (–286)। সংগ্রহের তারিখ ২৯ মে ২০১৩ 
  3. টেমপ্লেট:AustTRFPK6.1