দীপ গ্রেস এক্কা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
দীপ গ্রেস এক্কা
ব্যক্তিগত তথ্য
জন্ম (1994-06-03) ৩ জুন ১৯৯৪ (বয়স ২৬)
ওড়িশা, ভারত
উচ্চতা ১.৫৮ মি
মাঠে অবস্থান রক্ষণ
ক্লাব তথ্য
বর্তমান ক্লাব সাই-স্যাগ (এসএআই- এসএজি) কেন্দ্র
জাতীয় দল
ভারত ১৮১ (১৩)

দীপ গ্রেস এক্কা (জন্ম ৩ জুন ১৯৯৪) একজন ভারতীয় মহিলা ফিল্ড হকি খেলোয়াড়।[১] তিনি ভারতীয় মহিলা হকি দলে খেলেন।

প্রথম জীবন[সম্পাদনা]

দীপ গ্রেস এক্কা ওডিশার সুন্দরগড় জেলার লুল্কিধি নামক একটি ছোট গ্রামে, ৩রা জুন ১৯৯৪ সালে, জন্মগ্রহণ করেন। তিনি চার্লস এক্কা এবং জয়মনি এক্কার মেয়ে।[২]

তিনি বিদ্যালয়ে পড়ার সময় হকি খেলা শুরু করেন এবং তেজ কুমার জেস (২০০৫-০৬) এর প্রশিক্ষণে থাকেন। ২০০৭ সালের সেপ্টেম্বরে তার বিদ্যালয়ে হকির জন্য খেলোয়াড় নির্বাচনের সময়, তিনি স্পোর্টস অথরিটি অফ ইন্ডিয়ার সাই-স্যাগ (এসএআই- এসএজি) কেন্দ্রে যোগ দিতে নির্বাচিত হন এবং ১৩ বছর বয়সে জাতীয় পর্যায়ে খেলতে শুরু করেন। লুসিলা এক্কা ও সরোজ মহান্তির কাছে তার প্রশিক্ষণ শুরু হয়। [২] ১৬ বছর বয়সে, তিনি সোনিপাতে সিনিয়র দলে খেলেছিলেন।[৩]

২০১১ সালে, তিনি রাঁচিতে জাতীয় দলে খেলা শুরু করেন। জুনিয়র ন্যাশনাল ক্যাম্পের জন্যও তিনি নির্বাচিত হন এবং জুনিয়র এশিয়া কাপের জন্য ব্যাংকক ভ্রমণ করেন।[৩]

তিনি একজন ডিফেন্ডার হিসেবে খেলা শুরু করেছিলেন, কিন্তু তার ইচ্ছা ছিল তার ভাইয়ের মত গোলকিপার হবার। তিনি মাঝে মাঝে গোলকিপার হিসাবে খেলতেনও। কিন্তু তার কাকা, যিনি তার প্রশিক্ষকও ছিলেন, তাকে গোলরক্ষকের ভূমিকা অনুসরণ করতে বা অনুশীলন করতে অনুমতি দেননি। তাই তার ডিফেন্ডার হওয়া ছাড়া আর কোন উপায় ছিলনা। [৩]

খেলোয়াড় জীবন[সম্পাদনা]

  • তিনি ১৫০ টি আন্তর্জাতিক খেলায় খেলেছেন এবং ৩ টি আন্তর্জাতিক গোল করেছেন।[৪]

আন্তর্জাতিক[সম্পাদনা]

তিনি গত বছর জাপানে ৯ম মহিলা এশিয়া কাপে ডিফেন্ডার এবং ড্র্যাগ ফ্লিকার দুইয়ের ভূমিকা পালন করেছিলেন এবং দলকে জিতিয়েছিলেন। ২০১৮ এ গোল্ড কোস্টে কমনওয়েলথ গেমসে মালয়েশিয়ার বিপক্ষে ভারতীয় হকি দলের দ্বিতীয় ম্যাচটি তার জীবনের ১৫০ তম আন্তর্জাতিক খেলা ছিল। ২০১১ সালে আর্জেন্টিনায় চার-দেশের টুর্নামেন্টে খেলে তার আন্তর্জাতিক খেলায় অভিষেক ঘটে। সেখানে ভারত ব্রোঞ্জ পদক জেতে।[৫] ২০১১ সালে, থাইল্যান্ডের ব্যাংককে, অনুর্ধ ১৮, মেয়েদের এশিয়া কাপ হকি চ্যাম্পিয়নশিপে ভারত ব্রোঞ্জ পদক জেতে। তিনি সেই দলের সদস্য ছিলেন এবং ভারতের জয়ে তার ভূমিকা ছিল।[৬] ১৮ই থেকে ২৪শে অক্টোবর ২০১৩ সালে, নতুন দিল্লিতে অনুষ্ঠিত এফআইএইচ ওয়ার্ল্ড লীগে (রাউন্ড ২), ভারতীয় সিনিয়র মহিলা হকি দলে তিনি প্রতিনিধিত্ব করেছিলেন।[৭] ৪ঠা জুলাই ২০১৩ তারিখে, জার্মানির মনচেনগ্ল্যাবার্কে, মহিলা জুনিয়র হকি বিশ্বকাপে, প্রথমবার ব্রোঞ্জ পদক জিতে ইতিহাস সৃষ্টি করে ভারতীয় দল। তিনি এই দলের একজন সদস্য ছিলেন।[৮] ২০১৩ সালে, মহিলা হকি এশিয়া কাপে, ভারতীয় মহিলা হকি দল ব্রোঞ্জ পদক জয় করে। এই ভারতীয় দলের সদস্য ছিলেন তিনি।[৯] ২০১৩ সালে, মহিলা এশিয়ান চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে, ভারত রৌপ্য পদক জেতে। ভারতীয় দলটির সদস্য ছিলেন তিনি।[১০] ৯ই থেকে ১৭ই জুন ২০১৪ পর্যন্ত, মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুরে অনুষ্ঠিত মহিলা হকি টেস্টে, মালয়েশিয়াকে ৬-০ ম্যাচে হারানো ভারতীয় দলের সদস্য ছিলেন তিনি।[১১] তিনি ২৩শে জুলাই থেকে ৩রা আগস্ট ২০১৪ পর্যন্ত, গ্লাসগোতে অনুষ্ঠিত ২০ তম কমনওয়েলথ গেমসে, পঞ্চম স্থান অর্জনকারী ভারতীয় মহিলা হকি দলের সদস্য ছিলেন।[১২] ১লা অক্টোবর ২০১৪ তারিখে, ইনছনে (দক্ষিণ কোরিয়া) অনুষ্ঠিত ১৭ তম এশিয়ান গেমসে, ব্রোঞ্জ পদক জয়ী ভারতীয় মহিলা হকি দলের সদস্য ছিলেন তিনি।[১৩] তিনি ১১ই থেকে ১৯শে এপ্রিল ২০১৫ পর্যন্ত, নিউজিল্যান্ডের হেস্টিংসে অনুষ্ঠিত হকস বে কাপ টুর্নামেন্টে, সপ্তম স্থান অর্জনকারী ভারতীয় মহিলা দলের সদস্য ছিলেন। ২০১৫ সালে, নতুন দিল্লিতে অনুষ্ঠিত এফআইএইচ ওয়ার্ল্ড লিগ (২য় রাউন্ড) জয়ী ভারতীয় দলটির সদস্য ছিলেন তিনি।[১৪][১৫] ২০শে ফেব্রুয়ারি থেকে ১লা মার্চ ২০১৬ পর্যন্ত অনুষ্ঠিত, দক্ষিণ আফ্রিকার সফরে, ভারতীয় মহিলা হকি দলটি পাঁচটি ম্যাচে জয়ী হয়, একটিতে ড্র করে এবং দুটিতে পরাজিত হয়। তিনি এই দলটির সদস্য ছিলেন। তিনি ২রা থেকে ১০ই এপ্রিল ২০১৬ পর্যন্ত, নিউজিল্যান্ডের হেস্টিংসে অনুষ্ঠিত, হকস বে কাপ টুর্নামেন্টে, ষষ্ঠ স্থান অর্জনকারী ভারতীয় মহিলা দলের সদস্য ছিলেন।[১৬] ৩রা জুন ২০১৬ তারিখে, অস্ট্রেলিয়ার ডারউইন এ, চতুর্দেশীয় মহিলা হকি টুর্নামেন্টে, তার ২২ তম জন্মদিনে, অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ভারত এর চূড়ান্ত গ্রুপ পর্যায়ের ম্যাচটি ছিল তার ১০০ তম আন্তর্জাতিক খেলা।[১৭] তিনি ব্রাজিলে অনুষ্ঠিতব্য রিও অলিম্পিক ২০১৬ প্রতিযোগিতার জন্য নির্বাচিত হন।[১৮]

জাতীয়[সম্পাদনা]

  • ২০০৯ সালে, জাতীয় বিদ্যালয় (অনুর্ধ ১৭) হকি চ্যাম্পিয়নশিপে, শিরোপা জিততে ওড়িশাকে সাহায্য করেছিলেন।
  • ২০১০ সালে, ভোপালে মহিলা জাতীয় ক্রীড়া উৎসবের হকি প্রতিযোগিতায়, ওড়িশাকে দ্বিতীয় স্থান পেতে সহায়তা করেছিলেন।
  • ২০১১ সালে, সোনিপাতে অনুষ্ঠিত উদ্বোধনী হকি ইন্ডিয়া সিনিয়র জাতীয় চ্যাম্পিয়নশিপে, ওড়িশাকে তৃতীয় স্থান অর্জন করতে সাহায্য করেছিলেন।
  • ২০১১ সালে, রাঁচির (ঝাড়খণ্ড) ৩৪ তম জাতীয় প্রতিযোগিতায়, ওড়িশার প্রতিনিধিত্ব করেন।
  • ২৭শে ডিসেম্বর থেকে ১৫ই ফেব্রুয়ারি ২০১১ পর্যন্ত, নতুন দিল্লির মেজর ধ্যান চাঁদ জাতীয় স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত, সিনিয়র জাতীয় মহিলা প্রশিক্ষণ শিবিরে যোগ দিতে, হকি ইন্ডিয়া থেকে নির্বাচিত হয়ে ডাক পান।[১৯]

অন্যান্য তথ্য[সম্পাদনা]

  • ২৬শে জুলাই ২০১৬ তারিখে, মুখ্যমন্ত্রী নবীন পট্টনায়েক, ওড়িশা মাইনিং কর্পোরেশনকে নির্দেশ দেন, রিও অলিম্পিক গেমসে অংশগ্রহণের জন্য দীপকে ১০ লাখ টাকা দিয়ে বিশেষ অনুপ্রেরণা প্রদান করতে।
  • ১০ই অক্টোবর ২০১৪ তারিখে ওড়িশা সরকার ইনছনে ১৭ তম এশিয়ান গেমসে মহিলাদের ব্রোঞ্জ পদক জিততে ভারতকে সহায়তা করার জন্য দীপ গ্রেসের জন্য ৭৫,০০০ টাকা নগদ পুরস্কার ঘোষণা করে।
  • ২রা অক্টোবর ২০১৪ তারিখে, ওড়িশা ক্রিকেট সংস্থা, ইনছনে ১৭ তম এশিয়ান গেমসে, ব্রোঞ্জ পদক জেতার জন্য দীপ গ্রেসের জন্য ১০,০০০ টাকা পুরস্কার ঘোষণা করে।
  • ১১ই আগস্ট ২০১৪ তারিখে, মহানদী কোলফিল্ডস লিমিটেড, ২০১৩ সালের জুনিয়র মহিলা হকি বিশ্ব কাপে ব্রোঞ্জ পদক জিততে ভারতকে সাহায্যের জন্য, দীপকে ১ লাখ টাকা নগদ পুরস্কারে ভূষিত করে।[১৯]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Four Odisha players part of Olympic-bound women's hockey squad"timesofindia.indiatimes.com। সংগ্রহের তারিখ ৩০ জুলাই ২০১৬ 
  2. "PERSONALITIES"Orisports.com। সংগ্রহের তারিখ ৩০ জুলাই ২০১৬ 
  3. https://thebridge.in/watching-athletes-with-disabilities-drives-push-harder-deep-grace-ekka/
  4. "Senior Women Core Probables"hockeyindia.org। সংগ্রহের তারিখ ২৯ জুলাই ২০১৬ 
  5. "Indian Women Finish 3rd In Argentina 4-Nation Tournaments"bharatiyahockey.org। সংগ্রহের তারিখ ৩০ জুলাই ২০১৬ 
  6. "Poonam to captain girls hockey team in U-18 Asia Cup"timesofindia.indiatimes.com। সংগ্রহের তারিখ ৩০ জুলাই ২০১৬ 
  7. "Ritu Rani to Lead Indian Women's Team at World Hockey League Round 2 in Delhi"thefansofhockey.com। সংগ্রহের তারিখ ৩০ জুলাই ২০১৬ 
  8. "Indian Junior Women Team Announced For FIH Hockey Junior World Cup Women 2013"hockeyindia.org। সংগ্রহের তারিখ ৩০ জুলাই ২০১৬ 
  9. "8th Women's Hockey Asia Cup"hockeyindia.org। ৮ আগস্ট ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩০ জুলাই ২০১৬ 
  10. "3rd Women's Asian Champions Trophy 2013"hockeyindia.org। ৮ আগস্ট ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩০ জুলাই ২০১৬ 
  11. "Indian Women's Hockey Team Blank Malaysia 6–0 In 6-Test Series"bharatiyahockey.org। সংগ্রহের তারিখ ৩০ জুলাই ২০১৬ 
  12. "CWG 2014: Full List Of India's 215 Athletes For Glasgow"oneindia.com। সংগ্রহের তারিখ ১১ আগস্ট ২০১৬ 
  13. "Indian Players at Incheon Asian games 2014"sports.mapsofindia.com। সংগ্রহের তারিখ ৩০ জুলাই ২০১৬ 
  14. "Indian Women Hockey Team Announced For The Upcoming FIH World League Round 2"hockeyindia.org। সংগ্রহের তারিখ ১১ আগস্ট ২০১৬ 
  15. "India Beats Poland 3–1 To Win The Hero FIH Hockey World League Round 2 (Women), Delhi 2015"hockeyindia.org। সংগ্রহের তারিখ ১১ আগস্ট ২০১৬ 
  16. "PERSONALITIES"Orisports.com। সংগ্রহের তারিখ ৩০ জুলাই ২০১৬ 
  17. "Deep Grace Ekka Completes 100 International Caps For India"hockeyindia.org। সংগ্রহের তারিখ ৩০ জুলাই ২০১৬ 
  18. "Rio Olympics 2016: Four Odisha players part of women's hockey squad"sportskeeda.com। সংগ্রহের তারিখ ৩০ জুলাই ২০১৬ 
  19. "PERSONALITIES"Orisports.com। সংগ্রহের তারিখ ২৯ জুলাই ২০১৬ 

বহিঃ সংযোগ[সম্পাদনা]