দীনেশ দাশ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

দীনেশ রঞ্জন দাশ (২৯ শে জুলাই ১৮৮৮ - ১২ ই মে,১৯৪১) প্রখ্যাত 'কল্লোল' পত্রিকার অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা ও সম্পাদক । [১]

জন্ম ও শিক্ষা জীবন[সম্পাদনা]

দীনেশ দাশের জন্ম বাংলাদেশের ফরিদপুরের কুঁয়রপুরে। পিতার নাম কৈলাসচন্দ্র দাশ। চট্টগ্রামের স্কুল থেকে এন্ট্রান্স পাশ করার পর ঢাকা কলেজে ভর্তি হন। কিন্তু স্বদেশী আন্দোলনের প্রভাবে কলেজ ত্যাগ করেন । ছবি আঁকায় পারদর্শী ছিলেন । তাই কিছু সময় আর্ট স্কুলে শিল্প শিক্ষা নেন। তিনি ভালো কার্টুন আঁকতে পারতেন।

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

কর্মজীবনে প্রথমদিকে কখনো খেলার সরঞ্জামের দোকানে কখনো বা ঔষধের দোকানে চাকরি করেন। কিন্তু এই চাকরি জীবন পছন্দ না হওয়ায় বিভিন্ন প্রকাশকের পুস্তকাদির প্রচ্ছদ ছবি ও কার্টুন আঁকতে শুরু করেন আর অল্প স্বল্প লেখালেখির মাধ্যমে জীবিকা চালাতে থাকেন। অতঃপর ১৩৩০ বঙ্গাব্দে নতুন লেখকদের নিয়ে গোকুল চন্দ্র নাগের সহযোগিতায় বাংলা মাসিক পত্রিকা ' কল্লোল ' এর প্রকাশনা শুরু করেন। পত্রিকা টি লেখক ও পাঠক মহলে এমন আলোড়ন সৃষ্টি করেছিল যে সে সময়টি বাংলা সাহিত্যে ' কল্লোল যুগ' আখ্যা লাভ করে। এতে দীনেশ দাশ পুস্তকাদি প্রকাশনায় বেশি উদ্যোগী হন।

লেখালেখির পাশাপাশি তিনি ভালো অভিনয়ও করতে পারতেন। ব্রহ্মানন্দ কেশবচন্দ্র সেনের বাড়ি ' কমল কুঠিরে' কেশবচন্দ্র রচিত নাটক ' নববৃন্দাবন' মঞ্চস্থ করেন ও অভিনয়ে জনপ্রিয়তা অর্জন করেছিলেন । পরে কল্লোল পত্রিকার আর্থিক অচলাবস্থার কারণে চলচ্চিত্রের সাথে যুক্ত হন ও বিভিন্ন ছবিতে অভিনয় করতে  থাকেন। শেষে ইংরাজী ১৯৩৪ সালে কলকাতার নিউ থিয়েটার্সে অন্যতম ডিরেক্টর হিসাবে পরিচালকমণ্ডলীর সদস্য হন এবং আমৃত্যু ওই প্রতিষ্ঠানের সাথেই যুক্ত ছিলেন। 'আলো-ছায়া' তাঁরই পরিচালিত চলচ্চিত্র ।

সাহিত্যকর্ম[সম্পাদনা]

দীনেশ দাশের রচিত গ্রন্থ গুলি  হল -

  • উতঙ্ক ( রূপক নাট্য)
  • মাটির নেশা
  • ভূঁইচাঁপা ( গল্প সংগ্রহ)
  • কাজের মানুষ ( ব্যঙ্গ রচনা)

মৃত্যু[সম্পাদনা]

দীনেশ দাশ ইংরাজী ১৯৪১ সালের মে মাসের ১২ তারিখে প্রয়াত হন ।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. সুবোধচন্দ্র সেনগুপ্ত   ও অঞ্জলি বসু সম্পাদিত সংসদ বাংলা চরিতাভিধান পঞ্চম সংস্করণ তৃতীয় মুদ্রণ পৃষ্ঠা ২৯০। ISBN 978-81-7955-135-6