দীঘা গেট

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
সুমদ্র সৈকত দীঘা শহরে প্রবেশের পূর্বে জাতীয় সড়ক ১১৬বি- এর উপড় নির্মিত দীঘা গেট, ঘেরষাই মৌজা

দীঘা গেট হল জাতীয় সড়ক ১১৬বি এর উপড় নির্মিত একটি তোরণ বা প্রবেশ দ্বার। এটি নির্মিত হয়েছে পূর্ব মেদিনীপুর জেলার সৈকত শহর দীঘার কছেই ঘেরসাই মৌজায়।তোরণটি নির্মান করেছে দীঘা-শঙ্করপুর উন্নয়ন পর্ষদ। বাংলার গোয়া হিসাবে পরিচিত দীঘা শহরে ঢোকার মুখে তৈরি হয়েছে এই বিশাল তোরণদ্বার যা ‘‘গেটওয়ে অফ দিঘা’’ হিসাবে পরিচিতি পেয়েছে। [১]

দীঘা গেটের নির্মান শেষ হয় ২০১৪ সালের শেষের দিকে। গেটটি উদ্ভোধন হয় ২৫ নভেম্বর ২০১৪ । গেটটি উদ্ভোধন করেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধায়।[২]

অবস্থান[সম্পাদনা]

কলকাতা থেকে মেচেদা হয়ে দীঘা যাওয়ার রাস্তায় অলঙ্কারপুরের পরে ঘেরসাই মৌজায় তোরণ তৈরি হয়েছে। দীঘা গেটের অবস্থান হল- ২১°৩৮'৯" উত্তর ও ৮৭°৩১'৩৩" পূর্ব [৩]

বৈশিষ্ট[সম্পাদনা]

দীঘা গেট ইস্পাত ও কংক্রিট দিয়ে বানানো হয়েছে। এই গেটের তিনটি অংশ। প্রধান অংশ মাঝে আর এই প্রধান অংশের সামনে পিছনে একই রকম দুটি ছোট গেট রয়েছে। প্রধান গেট বা প্রবেশ দ্বারটি নৌকার আকৃতিতে তৈরি করা হয়েছে।যা এখান কার মৎসজীবি মানুষের দ্বারা চালিত মাছ ধরা নৌকার অনুপ্রেনা থেকে এসেছে। এই প্রবেশ দ্বারটি নী-সাদা রংয়ে রাঙিয়ে তোলা হয়েছে।

নির্মান ব্যয়[সম্পাদনা]

প্রবেশ দ্বার বা গেট নির্মানের জনওয প্রথমে খরচ ধরা হয়েছিল ৪ কোটি টাকার কিছু বেশি । কিন্তু পড়ে না না কারণে প্রবেশ দ্ফার নির্মানের খরচ বৃদ্ধি পায় । শেষে এই গেটের নির্মান শেষ করতে খরচ হয় মোট ৬.৫৭ কোটি (US$০.৯১ মিলিয়ন) টাকা।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "সৈকতশহরের ভোল বদলাতে এ বার তৈরি হচ্ছে 'গেটওয়ে অফ দিঘা'"এই সময়। ১৮ এপ্রিল ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ২৭ আগস্ট ২০১৭ 
  2. "স্বাগত তোরণের উদ্বোধনে আজ দিঘায় মুখ্যমন্ত্র"আনন্দবাজা প্রত্রিকা। ২৫ নভেম্বর ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ২৭ আগস্ট ২০১৭ 
  3. "Digha Gate(Webel, Ramnagar)"