তড়িৎ বলরেখা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

বিজ্ঞানী মাইকেল ফ্যারাডে তড়িৎ ক্ষেত্রের সুস্পষ্ট ধারণা সৃষ্টির জন্য তড়িৎ বলরেখা ধারণার অবতারণা করেন। রেখাগুলো সম্পূর্ণ কাল্পনিক। তড়িৎ বলরেখা’’ তড়িৎ ক্ষেত্রের মধ্যে অঙ্কিত খোলা বক্ররেখা যার কোন বিন্দুতে অঙ্কিত স্পর্শক ঐ বিন্দুতে লব্ধি বলের দিক নির্দেশ করে। বলরেখাগুলোর সাথে লম্বভাবে স্থাপিত কোন কল্পিত তলের একক ক্ষেত্রফলের ভিতর ‍দিয়ে যতগুলো বলরেখা অতিক্রম করে তা তড়িৎ প্রাবল্যের সমানুপাতিক।

ব্যাখ্যা[সম্পাদনা]

তড়িৎ বলরেখার ধর্ম[সম্পাদনা]

  • তড়িৎ বলরেখা খোলা বক্ররেখা।
  • রেখাগুলো ধনাত্মক চার্জ হতে উৎপন্ন হয়ে ঋণাত্মক চার্জে শেষ হয়।
  • পরিবাহকের অভ্যন্তরে কোন বলরেখা থাকে না।
  • দু্ইটি বলরেখা পরস্পরকে ছেদ করে না।
  • বলরেখাগুলো পরস্পরের উপর আড়াআড়িভাবে পার্শ্বচাপ দেয়। ফলে দুইটি বলরেখার মধ্যে বিকর্ষণ ঘটে।
  • বলরেখাগুলো স্থিতিস্থাপক বস্তুর মত দৈর্ঘ্য বরাবর সংকুচিত হয়।
  • বলরেখাগুলোর যে কোন বিন্দুতে অঙ্কিত স্পর্শক উক্ত বিন্দুতে প্রাবল্যের দিক নির্দেশ করে।
  • বলরেখা ধনাত্মকভাবে আহিত পরিবাহীর পৃষ্ঠ থেকে লম্বভাবে বের হয় আর ঋণাত্মক পরিবাহকের পৃষ্ঠের সাথে লম্বভাবে প্রবেশ করে।

তড়িৎক্ষেত্রের বলরেখার মানচিত্র[সম্পাদনা]

তথসূত্র[সম্পাদনা]