জিয়া খান

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
জিয়া খান
Jiah Khan
Jiah Khan at Dheeraj Deshmukh & Honey Bhagnani's wedding reception.jpg
২০১২ সালে জিয়া
জন্ম
নাফিসা রিজভী খান

(১৯৮৮-০২-২০)২০ ফেব্রুয়ারি ১৯৮৮
মৃত্যু৩ জুন ২০১৩(2013-06-03) (বয়স ২৫)
নাগরিকত্বযুক্তরাজ্য, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
পেশাঅভিনেত্রী, শিল্পী
কার্যকাল২০০৭–২০১০
আত্মীয়দেখুন খান পরিবার

জিয়া খান (জন্ম: নাফিসা রিজভী খান, ২০ ফেব্রুয়ারি ১৯৮৮ – ৩ জুন ২০১৩) একজন ব্রিটিশ-আমেরিকার অভিনেত্রী এবং গায়ক ছিলেন, যিনি ২০০৭ সাল থেকে ২০১০ সাল পর্যন্ত ৩টি হিন্দি চলচ্চিত্রে কাজ করেছিলেন।[১]

প্রাথমিক জীবন[সম্পাদনা]

জিয়া খান মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক সিটির একটি মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন।[২] তিনি ছিলেন একজন ভারতীয়-আমেরিকার ব্যবসায়ী আলী রিজভী খান এবং উত্তরপ্রদেশের আগ্রায় জন্মগ্রহণকারী ১৯৮০ এর দশকে হিন্দি চলচ্চিত্র অভিনেত্রী রাবিয়া আমিন কন্যা।[৩] যখন তার মাত্র ২বছর বয়স তখন তার বাবা পরিবার ছেড়ে চলে যান এবং আর কখনো ফিরে আসেননি। তার বাবার অনুপস্থিতি বর্ণনা করে ক্ষোভ প্রকাশ করে জিয়া বলেন, "তিনি এমন একজন পুরুষ, যিনি ২ বছর বয়সী কন্যাকে ফেলে গেছেন, তাকে জনসমক্ষে ফাঁসি দেওয়া উচিত"। তার ফুফা ছিলেন পাকিস্তানি অভিনেত্রী সঙ্গীতা (জন্মনাম: পারভীন রিজভী) এবং কবিতা (জন্মনাম: নাসরিন রিজভী)।[৪] খান লন্ডনে বেড়ে ওঠেন এবং সেখানেই মাধ্যমিক এবং উচ্চ মাধ্যমিক শেষ করেন। এরপর তিনি ভারতের মুম্বাইয়ে ক্যারিয়ার গড়তে বলিউডে পা রাখেন।[২] তার কবিতা ও কারিশমা নামে ২টি ছোট বোন রয়েছে।[৫] মাত্র ৬ বছর বয়সে রাম গোপাল ভার্মার চলচ্চিত্র রঙ্গিলায় উর্মিলা মাতন্ডকরের শিশু চরিত্রে তিনি প্রথম অভিনয় করেন।[৬][৭]

চলচ্চিত্রের তালিকা[সম্পাদনা]

বছর চলচ্চিত্র ভূমিকা টীকা
২০০৭ নিঃশব্দ জিয়া মনোনীত —শ্রেষ্ঠ নবাগত অভিনেত্রী বিভাগে ফিল্মফেয়ার পুরস্কার
এছাড়াও তিনি "টেক লাইট" গানটি গেয়েছেন
২০০৭ গজনি সুনিতা
২০১০ হাউজফুল দেবিকা কে. সামতনি

মৃত্যু[সম্পাদনা]

২০১৩ সালের ৩ জুন তারিখে, জিয়া মুম্বাইয়ের জুহু পরিবারের বাসভবনের নিজের শয়নকক্ষে রাত আনুমানিক প্রায় ১১:৪৫ এর সময় নিজের ছাদের সিলিং ফ্যানে ফাঁসি দিয়ে আত্মহত্যা করেছিলেন, যেখানে তার মাতা রাবিয়া ও বোন কবিতা বাড়িতে ছিলেন না।

বাইকুল্লার জে.জে. হাসপাতালের লাশ ময়না তদন্তের জন্য নিয়ে আসা হয়।[৮] ২০১৩ সালের ৫ জুন বুধবার সকাল ৭ ঘটিকার দিকে তার মৃতদেহটি ময়না তদন্ত শেষে তার বাসায় ফিরিয়ে আনা হয়।[৯]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Jiah Khan all praise for Aamir The Hindu – 26 November 2008
  2. "Bollywood actress Jiah Khan found dead in Mumbai"। BBC News। ৪ জুন ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ৪ জুন ২০১৩ 
  3. Khalid Mohamed (১৭ ফেব্রুয়ারি ২০০৭)। ""I'm not related by blood to Tahir Hussain's family. I'm not his daughter. I don't even know how Aamir Khan looks like" – Jiah Khan"Bollywood Hungama। ১০ মে ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৩ মার্চ ২০১১ 
  4. "Bolly Muslims talk about the armband revolution"। The Express Tribune। ৪ জুন ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ৩০ অক্টোবর ২০১৫ 
  5. "Failing career, troubled love life killed 25-year-old Jiah Khan?"। Hindustan Times। ৬ মে ২০১৩। ৬ জুন ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৬ জুন ২০১৩ 
  6. "10 unknown facts about Jiah Khan - 10 unknown facts about Jiah Khan – Yahoo! Movies India"। ৮ জুন ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৫ আগস্ট ২০১৭ 
  7. Bollywood | Jiah Khan | Interview | Nishabd Oneindia 21 November 2006
  8. "Jiah Khan was planning to quit movies, turn interior designer | NDTV Movies.com"। Movies.ndtv.com। সংগ্রহের তারিখ ৬ জুন ২০১৩ 
  9. "No messages found in Jiah's beau's phone"। The Times of India। সংগ্রহের তারিখ ৬ জুন ২০১৩ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]