জিনাত মোশাররফ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
জিনাত মোশাররফ
২৯ নং সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য
কাজের মেয়াদ
১৯৯৬ – ২০০১
ব্যক্তিগত বিবরণ
জাতীয়তাবাংলাদেশী
রাজনৈতিক দলজাতীয় পার্টি
দাম্পত্য সঙ্গীএ. কে. এম. মোশাররফ হোসেন

জিনাত মোশাররফ জাতীয় পার্টির রাজনীতিবিদ এবং সাবেক সংসদ সদস্য[১] তিনি জাতীয় সংসদে ২৯ নং সংরক্ষিত মহিলা আসনের সদস্য ছিলেন।

পেশা[সম্পাদনা]

মোশাররফ ও তার স্বামীকে ১৯৯০ সালে গ্রেফতার করা হয়েছিল এবং হোসেন মোহাম্মদ এরশাদ সরকারের পতনের পর স্পেশাল পাওয়ার অ্যাক্টের অধীনে ১২০ বছরের কারাদন্ড প্রদান করা হয়েছিল। ১৯৯৬ সালে জাতীয় পার্টির প্রার্থী হিসাবে তিনি নারী সংরক্ষিত আসন থেকে সংসদ সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হন।[২]

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

জিনাত এ কে এম মোশাররফের সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। ১৯৯০ সালে সরকারি মালিকানাধীন দৈনিক বাংলা দাবি করে যে, এরশাদ এবং জিনাত মোশাররফ প্রায়ই বাংলাদেশ কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ কর্পোরেশনের মালিকানাধীন অতিথিশালায় মিলিত হতেন। জিনাতের স্বামী এ. কে. এম. মোশাররফ হোসেনকে ১৯৮৮ সালে শিল্প মন্ত্রণালয়ের সচিব হিসেবে এরশাদ সরকারে চাকরি দেওয়ার আগ পর্যন্ত মোশাররফ হোসেন কোম্পানির চেয়ারম্যান ছিলেন। বাংলাদেশের সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেন মোহাম্মদ এরশাদের সাথে তার দীর্ঘ ১৪ বছরের সম্পর্ক ছিল, যা ১৯৯৭ সালে সমাপ্তি ঘটে।[৩][৪] এ সংবাদ প্রকাশের পর ১৭ এপ্রিল ১৯৯৭ সালে এ কে এম মোশাররফ হোসেন জিনাতকে তালাক দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন। জাতীয় পার্টির রাজনীতিবিদেরা জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যানের পদ থেকে এরশাদ অপসারণের কথা বলেছিলেন।[৫] পারিবারিক সমস্যা নিরসনে ঢাকার তৎকালীন মেয়র মো. হানিফ জিনাত মোশাররফ ও তার স্বামীর মধ্যে মধ্যস্থতা করেন।[৬]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Country Report: Bangladesh (ইংরেজি ভাষায়)। The Unit। ১৯৯৭। পৃষ্ঠা 12, 62। সংগ্রহের তারিখ ২৪ জানুয়ারি ২০১৯ 
  2. "BANGLADESH-POLITICS: Love Affair Could Cost Ershad His Party"ipsnews.net। সংগ্রহের তারিখ ২৪ জানুয়ারি ২০১৯ 
  3. "THE NEWSREEL"NY Daily News (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২৪ জানুয়ারি ২০১৯ 
  4. "Ex-President of Bangladesh Hussain Mohammed Ershad lives a leisurely life in jail"India Today (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২৪ জানুয়ারি ২০১৯ 
  5. Hossain, Farid। "Bangladeshi lawmaker divorcing wife after her affair with ex-president"AP NEWS। সংগ্রহের তারিখ ২৪ জানুয়ারি ২০১৯ 
  6. "Zinat-Mosharraf reconciliation"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ২১ জুলাই ১৯৯৭। সংগ্রহের তারিখ ২৪ জানুয়ারি ২০১৯