জাতীয় গৃহায়ন কর্তৃপক্ষ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
জাতীয় গৃহায়ন কর্তৃপক্ষ
Government Seal of Bangladesh.svg
সংক্ষেপেএনএইচএ
গঠিত১৫ জুলাই ২০০১
সদরদপ্তরঢাকা, বাংলাদেশ
যে অঞ্চলে কাজ করে
 বাংলাদেশ
দাপ্তরিক ভাষা
বাংলা ভাষা
ওয়েবসাইটNational Housing Authority

জাতীয় গৃহায়ন কর্তৃপক্ষ গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের অধীনস্থ বাংলাদেশ সরকারের নিয়ন্ত্রনিত একটি সংস্থা [১][২]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

জাতীয় গৃহায়ন কর্তৃপক্ষ দুটি পৃথক সংস্থা, আবাসন ও নিষ্পত্তি অধিদপ্তর এবং জেলা প্রশাসক বন্দোবস্তের সাথে এর উৎস আবিষ্কার করে। ভারত বিভাগের পরে পাকিস্তানে কয়েক মিলিয়ন শরণার্থী প্রবেশ হয়েছিল। সরকার শরণার্থী ও নিম্ন-আয়ের পরিবারগুলিকে আবাসন সরবরাহের জন্য ওয়ার্কস, বিদ্যুৎ এবং সেচ মন্ত্রণালয়ে একটি হাউজিং উইং তৈরি করে প্রতিক্রিয়া জানায়। ১৯৭১ সালে, হাউজিং উইংটি আবাসন ও বন্দোবস্ত অধিদপ্তরে আপডেট করা হয়েছিল। ২০০০ সালে, বাংলাদেশের সংসদ জাতীয় আবাসন কর্তৃপক্ষ আইনটি পাস করেছে। হাউজিং অ্যান্ড সেটেলমেন্ট ডিরেক্টরেক্ট এবং জেলা প্রশাসক বন্দোবস্তকে একত্রিত করে ১৫ ই জুলাই ২০০১-এ জাতীয় আবাসন কর্তৃপক্ষ গঠন করা হয। [৩]

বিবরণ[সম্পাদনা]

সংস্থাটি বাংলাদেশ জুড়ে স্বল্প আয়ের পরিবারের জন্য আবাসন তৈরি করে। [২] এজেন্সি সরকারী জমিতে উচ্ছেদও করে থাকে। [৪] ২০১৭ সালে, এনএইচএ সারা বাংলাদেশে ৩৪ টি আবাসন প্রকল্প নির্মাণ করছিল। [৫] ৩০ শে জানুয়ারী ২০১৯ সালে জাতীয় আবাসন কর্তৃপক্ষের প্রাক্তন যুগ্ম সচিব রফিকুল মোহাম্মদকে সরকারী জমি চুরির জন্য আইনি কাজ করার অভিযোগে পাঁচ বছরের কারাদণ্ডে দণ্ডিিত করা হয়েছিল। [৬]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Govt to build more houses for slum people"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ৫ আগস্ট ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ২৮ জুন ২০১৯ 
  2. "Govt housing projects in two districts in progress"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ১৫ নভেম্বর ২০১০। সংগ্রহের তারিখ ২৮ জুন ২০১৯ 
  3. "National Housing Authority\"nha.gov.bd। NHA। সংগ্রহের তারিখ ২৮ জুন ২০১৯ 
  4. "Bhasantek Slums: Thousands evicted in NHA drive"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ২৮ জুন ২০১৯ 
  5. "National Housing Authority implementing 34 projects"theindependentbd.com। সংগ্রহের তারিখ ২৮ জুন ২০১৯ 
  6. "Abuse of power: Ex-joint secy gets 5-yr jail"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ৩০ জানুয়ারি ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ২৮ জুন ২০১৯ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]