জাতীয়তাবাদ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

জাতীয়তাবাদ একটি আদর্শ যেখানে জাতিকে মানব সমাজের কেন্দ্রীয় অবস্থানে স্থাপন করা হয় এবং অন্যান্য সামাজিক ও রাজনৈতিক আদর্শকেজাতিগত আদর্শের পরে স্থান দেয়া হয়। জাতীয়তাবাদ একটি জাতির সংস্কৃতি রক্ষার্থে ভূমিকা পালন করে এবং জাতির অর্জনসমূহকে সামনে তুলে ধরে। এসব বিষয় বিবেচনা করলে জাতীয়তাবাদ ইতিবাচক ও নেতিবাচক দুইই হতে পারে।[১]

পরিভাষা[সম্পাদনা]

জাতীয়তাবাদ শব্দটি ইংরেজি ন্যাশনালিজম শব্দের বাংলা পরিভাষা। ন্যাশনালিজম শব্দটি ১৮৪৪ সাল থেকে ব্যবহৃত হতে থাকে, যদিও জাতীয়তাবাদ মতবাদটি আরও আগে থেকে চলে আসছে।[২] ১৯শ শতাব্দীতে এই মতবাদ গুরুত্বপূর্ণ হয়ে ওঠে।[৩] মতবাদটি এর অন্তর্নিহিত অর্থের কারণে ১৯১৪ সালের পর থেকে নেতিবাচক রূপ লাভ করে। গ্লেন্ডা স্লুগা বলেন, ২০শ শতাব্দী হল জাতীয়তাবাদের মোহমুক্তি এবং আন্তর্জাতিকতাবাদের উন্মেষের সময়।[৪]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Nairn, Tom; James, Paul (২০০৫)। Global Matrix: Nationalism, Globalism and State-Terrorism। London and New York: Pluto Press। ; and James, Paul (২০০৬)। Globalism, Nationalism, Tribalism: Bringing Theory Back In – Volume 2 of Towards a Theory of Abstract Community। London: Sage Publications। 
  2. "Nationalism"merriam-webster.com 
  3. See Norman Rich, The age of nationalism and reform, 1850–1890 (1970).
  4. Glenda Sluga, Internationalism in the Age of Nationalism (University of Pennsylvania Press, 2013) ch 1

ইতিহাস[সম্পাদনা]

আমেরিকান দার্শনিক এবং ইতিহাসবিদ হান্স কোহন ১৯৪৪ সালে লিখেছিলেন যে ১৭ শতাব্দীতে জাতীয়তাবাদের উত্থান হয়েছিল। ঐকমত্য হল জাতীয়তাবাদ একটি ধারণা হিসেবে ১৯শতকে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিলো। অনেক রাজনৈতিক বিজ্ঞানী আধুনিক দেশ রাষ্ট্রের ভিত্তি এবং সার্বভৌমত্বের ধারণা সম্পর্কে তাত্ত্বিক ধারণা করেছেন। রাষ্ট্রবিজ্ঞানে জাতীয়তাবাদের ধারণাগুলি এই তাত্ত্বিক ভিত্তি থেকেই আঁকে।