জন বাটারওয়ার্থ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
জন বাটারওয়ার্থ
Jon Butterworth IMG 1269-w (14692755905) (cropped).jpg
জন বাটারওয়ার্থ 2013 সালে উইনচেস্টার বিজ্ঞান উৎসবে বক্তৃতা দিচ্ছেন
জন্মজোনাথন মার্ক বাটারওয়ার্থ
১৯৬৭/১৯৬৮ (৫৪–৫৫ বছর)[১]
বাসস্থানকেনটিশ শহর, লন্ডন[১]
কর্মক্ষেত্রকণা পদার্থবিজ্ঞান[২]
প্রতিষ্ঠান
শিক্ষা
প্রাক্তন ছাত্রঅক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় (বিএ, ডিফিল)
সন্দর্ভসমূহজেডইইউএস দ্বিতীয় স্তরের ট্র্যাকিং ট্রিগার সম্পাদন এবং এইচআরএ (HERA) তে আর-প্যারিটি ভায়োলেটিং সুপারসিমেট্রি গবেষণা (১৯৯২)
পিএইচডি উপদেষ্টা
  • ডাউগ গিংরিচ[৪]
  • হারবার্ট কে. ড্রেইনার[৫]
উল্লেখযোগ্য
পুরস্কার
ওয়েবসাইট

জোনাথন মার্ক বাটারওয়ার্থ ইউনিভার্সিটি কলেজ লন্ডন (ইউসিএল) এর পদার্থবিজ্ঞানের একজন অধ্যাপক[৭][৮] এবং সার্ন-এর লার্জ হ্যাড্রন কলাইডার (এলএইচসি)অ্যাটলাস এক্সপেরিমেন্ট এ কাজ করছেন। তাঁর জনপ্রিয় বিজ্ঞান বই হলো হিগস বোসন অনুসন্ধানের গল্প নিয়ে স্ম্যাশিং ফিজিক্স,[৯] এটি ২০১৪ সালে প্রকাশিত হয় এবং তার সংবাদপত্রের কলাম / ব্লগ লাইফ অ্যান্ড ফিজিক্স এটি দ্য গার্ডিয়ান প্রকাশ করেছে।[১০]

প্রাথমিক জীবন এবং শিক্ষা[সম্পাদনা]

বাটারওয়ার্থ ম্যানচেস্টারে বড় হয়েছেন এবং গোর্টনের রাইট রবিনসন হাই স্কুল এবং শেনা সাইমন সিক্সথ ফর্ম কলেজে পড়াশোনা করেন। তিনি অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে পদার্থবিজ্ঞান অধ্যয়ন করেন এবং ১৯৮৯ সালে ব্যাচেলর অব আর্টস ডিগ্রি অর্জনের পরে ১৯৯২ সালে কণা পদার্থবিজ্ঞানে ডক্টর অফ ফিলোসফি ডিগ্রি অর্জন করেন।[১১] তিনি তার পিএইচডি গবেষণায় ডাউগ গিংরিচ[৪] ও হারবার্ট কে. ড্রেইনার[৫] তত্ত্বাবধায়নে হামবুর্গের ডয়েচেস এলেক্ট্রোনেন-সিনক্রোট্রন (DESY) এ হ্যাড্রন-ইলেক্ট্রন রিং এসিলারেটর (HERA) এর আর-প্যারিটি ভায়োলেটিং সুপারসিমেট্রি অবেক্ষণ করতে জেইইউএস (ZEUS) কণা ডিটেক্টর ব্যবহার করেন।[১২]

গবেষণা এবং কর্মজীবন[সম্পাদনা]

২০১৭ সাল পর্যন্ত বাটারওয়ার্থ কণা পদার্থবিজ্ঞানের উপর বিশেষত সার্ন-এর লার্জ হ্যাড্রন কলাইডারে এটলাস গবেষণায় কাজ করেন। তার গবেষণায় তিনি অনুসন্ধান করেন প্রকৃতি কেন ক্ষুদ্রতম দূরত্ব এবং সর্বোচ্চ শক্তি পছন্দ করে - মৌলিক প্রাকৃতিক আইন।[১৩] এটি আমাদের সেই পদার্থবিদ্যা বিষয়ে বলে যা মহাবিস্ফোরণের পরে প্রথম কয়েক মুহুর্তে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ছিল।[১৩] তাঁর গবেষণা সহযোগীদের[২][৪][১৪] মধ্যে ব্রায়ান কক্স[৩][১৫] এবং জেফ ফোরশ’[১৬] অন্তর্ভুক্ত রয়েছে এবং তিনি  এ্যাটলাস (ATLAS) গবেষণা,[১৭][১৮][১৯] জেডইইউএস (ZEUS)[২০][২১][২২][২৩] এবং এইচআরএ (HERA)[২৪][২৫][২৬][২৭][২৮] এর উপর গবেষণাকারি বিভিন্ন সফল পিএইচডি শিক্ষার্থীর তত্ত্বাবধায়ক বা সহ-তত্ত্বাবধায়ক ছিলেন।

বাটারওয়ার্থ প্রায়শই সাধারণ মানুষের মধ্যে পদার্থবিজ্ঞান নিয়ে আলোচনা করেন, এর মধ্যে রয়্যাল ইনস্টিটিউশন এবং ওয়েলকাম ট্রাস্টে আলোচনা এবং নিউজনাইট, হরাইজন, চ্যানেল ৪ নিউজ, আল জাজিরা এবং বিবিসি রেডিও ৪ এর টুডে প্রোগ্রাম এবং দ্য ইনফিনিটি মাঙ্কি ক্যাজ অন্তর্ভুক্ত রয়েছে।[৯] তিনি গ্যাভিন সালামের উপস্থাপনায় সাইন্স এন্ড টেকনোলজি ফ্যাসিলিটিজ কাউন্সিল (এসটিএফসি) এর তথ্যচিত্র কলাইডিং পার্টিকল - হান্টিং দ্য হিগস এ হাজির হয়েছিলেন, যেখানে পদার্থবিদদের একটি দল হিগস বোসন কণা সন্ধান করতে চেষ্টা করেন।[২৯]

তাঁর গবেষণায় অর্থায়ন করে সাইন্স এন্ড টেকনোলজি ফ্যাসিলিটিজ কাউন্সিল (এসটিএফসি)[৩০] এবং রয়্যাল সোসাইটি।

গ্রন্থপঞ্জি[সম্পাদনা]

  • স্ম্যাশিং ফিজিক্স (২০১৪)
  • একটি অদৃশ্য মানচিত্র (২০১৭)

পুরস্কার এবং সম্মাননা[সম্পাদনা]

২০০৯ সালে বাটারওয়ার্থকে মর্যাদাপূর্ণ রয়্যাল সোসাইটি ওল্ফসন রিসার্চ মেরিট অ্যাওয়ার্ডে ভূষিত করা হয়[৭][১৩] এবং ২০১৫ সালে তাঁর বিজ্ঞান বিষয়ক বই স্ম্যাশিং ফিজিক্স এর জন্য রয়্যাল সোসাইটি উইন্টন পুরস্কারের সংক্ষিপ্ত তালিকায় ছিলেন।[৭] ২০১৩ সালে তাকে ইনস্টিটিউট অব ফিজিক্স (আইওপি) কর্তৃক জেমস চ্যাডউইক পদক ও পুরস্কার প্রদান করা হয়।[৭]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Anon (২০১৩)। "Ich Bin Kentishtowner: Jon Butterworth, 45, physics professor"kentishtowner.co.uk। ২০১৩-০৪-২৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  2. গুগল স্কলার দ্বারা সূচীবদ্ধ জন বাটারওয়ার্থের প্রকাশনাসমূহ উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
  3. "Butterworth, Jonathan M."inspirehep.netINSPIRE-HEP 
  4. "Jonathan M. Butterworth profile 1014844 HEP names"inspirehep.netINSPIRE-HEP 
  5. Dreiner, Herbert (২০১৫)। "Herbert Dreiner CV" (PDF)th.physik.uni-bonn.de। ২০১৭-০৩-১৬ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। 
  6. উদ্ধৃতি ত্রুটি: <ref> ট্যাগ বৈধ নয়; chadwick নামের সূত্রটির জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  7. Butterworth, Jon (২০১৭)। "Jon Butterworth, UCL Institutional Research Information Service (IRIS)"iris.ucl.ac.uk। ২০১৭-০৩-১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  8. Butterworth, Jonathan (২০১৬)। "Jonathan Butterworth: High Energy Physics Group"hep.ucl.ac.uk। London: University College London। ২০১৬-১২-৩১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  9. Butterworth, Jon (২০১৪)। Smashing Physics: Inside the world's biggest experiment। London: Headline Publishing Group। পৃষ্ঠা 352আইএসবিএন 978-1472210333ওসিএলসি 915942320  (available as “Most Wanted Particle” in Canada and the USA)
  10. Butterworth, Jon (২০১৩)। "Life and Physics"theguardian.com। London: The Guardian। ২০১৩-০৮-০৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  11. Butterworth, Jonathan Mark (১৯৯২)। Performance of the ZEUS second level tracking trigger and studies of R-parity violating supersymmetry at HERAbodleian.ox.ac.uk (গবেষণাপত্র)। University of Oxford। ওসিএলসি 53502705টেমপ্লেট:EThOS 
  12. Butterworth, J.; Dreiner, H. (১৯৯৩)। "R-parity violation at HERA"। Nuclear Physics B397 (1–2): 3–34। arXiv:hep-ph/9211204অবাধে প্রবেশযোগ্যআইএসএসএন 0550-3213ডিওআই:10.1016/0550-3213(93)90334-Lবিবকোড:1993NuPhB.397....3B 
  13. Anon (২০১৬)। "Professor Jonathan Butterworth: Research Fellow"royalsociety.org। London: Royal Society। ২০১৭-০৩-১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা।  One or more of the preceding sentences incorporates text from the royalsociety.org website where:

    "All text published under the heading 'Biography' on Fellow profile pages is available under Creative Commons Attribution 4.0 International License.""Royal Society Terms, conditions and policies"। Archived from the original on ২০১৬-১১-১১। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-০৩-০৯ 

  14. "Jon Butterworth's articles"arxiv.orgarXiv 
  15. Anon (2015) ইউটিউবে Smashing Physics - with Jon Butterworth and Brian Cox published by the Royal Institution, London
  16. Butterworth, J. M.; Cox, B. E.; Forshaw, J. R. (২০০২)। "WW scattering at the CERN LHC" (PDF)Physical Review D65 (9): 096014। arXiv:hep-ph/0201098অবাধে প্রবেশযোগ্যডিওআই:10.1103/PhysRevD.65.096014বিবকোড:2002PhRvD..65i6014B 
  17. Baker, Sarah J. (২০১৩)। Studies of jets, subjets and Higgs searches with the ATLAS detectordiscovery.ucl.ac.uk (গবেষণাপত্র)। University College London (University of London)। ওসিএলসি 926384795 
  18. Ochoa de Castro, Maria Inês A. J. (২০১৫)। Searching for the Higgs boson in the bb decay channel with the ATLAS experimentethos.bl.uk (গবেষণাপত্র)। University College London (University of London)। ওসিএলসি 927016691টেমপ্লেট:EThOS  Free to read
  19. Davison, Adam R. (২০১১)। Exploring electroweak symmetry breaking with jet substructure at the ATLAS experimentethos.bl.uk (গবেষণাপত্র)। University College London (University of London)। ওসিএলসি 778953562 
  20. Wing, Matthew (১৯৯৯)। The study of heavy quark production in high Et photoproduction at HERA using ZEUS detectorlondon.ac.uk (গবেষণাপত্র)। University College London। ওসিএলসি 855166362 
  21. Targett-Adams, Christopher (২০০৬)। Dijet photoproduction and the structure of the proton with the ZEUS detectorethos.bl.uk (গবেষণাপত্র)। University College London (University of London)। ওসিএলসি 926256726 
  22. Loizides, John Harry (২০০৫)। Charm at HERA I and HERA II with the ZEUS experimentlondon.ac.uk (গবেষণাপত্র)। University College London (University of London)। ওসিএলসি 500379717 
  23. Lightwood, Matthew Stephen (২০০৫)। Dijet production and multiscale QCD at HERAlondon.ac.uk (গবেষণাপত্র)। University College London (University of London)। ওসিএলসি 500514269 
  24. Butterworth, Jon (২০১৬)। "Jonathan Butterworth's current and former PhD students"hep.ucl.ac.uk। ২০১৭-০৩-১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  25. Gwenlan, Claire (২০০৪)। Jets and energy flow in photoproduction using the ZEUS detector at HERAethos.bl.uk (গবেষণাপত্র)। University College London (University of London)। ওসিএলসি 940115440টেমপ্লেট:EThOS 
  26. West, Benjamin John (২০০১)। Charm and the virtual proton at HERA and a global tracking trigger for ZEUS (গবেষণাপত্র)। University College London। ওসিএলসি 926990757 
  27. Heaphy, Eileen Anne (২০০২)। Jet photoproduction and photon structurelondon.ac.uk (গবেষণাপত্র)। University College London। ওসিএলসি 78549753 
  28. Saunders, Robert Luke (১৯৯৭)। A measurement of dijet photoproduction at HERA using the ZEUS detectorlondon.ac.uk (গবেষণাপত্র)। University College London। ওসিএলসি 53600177 
  29. Anon (২০০৯)। "Colliding Particles - Hunting the Higgs"collidingparticles.com 
  30. Anon (২০১৭)। "UK government grants awarded to Jon Butterworth"rcuk.ac.uk। Swindon: Research Councils UK। ২০১৭-০৩-৩০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা।