চক্রপাণি মন্দির, কুম্ভকোণাম

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
চক্রপাণি মন্দির
Chakrapani Temple, Kumbakonam.JPG
চক্রপাণি মন্দির, কুম্ভকোণাম
ধর্ম
অন্তর্ভুক্তিহিন্দুধর্ম
জেলাতাঞ্জাভুর
অবস্থান
অবস্থানকুম্ভকোণাম
রাজ্যতামিল নাড়ু
দেশভারত
স্থাপত্য
ধরনদ্রাবিড় স্থাপত্য

চক্রপানি মন্দির ভারতের তামিলনাড়ুর কুম্ভকোণামে অবস্থিত একটি বিষ্ণু মন্দির। মন্দিরটি কুম্বাকনাম রেলস্টেশন হতে ২ কিঃ মিঃ দক্ষিণ-পশ্চিমে অবস্থিত। এই মন্দিরে ভগবান বিষ্ণু সূর্যদেবের দর্পচূর্ণ করার জন্য একটি চাকতি বা চক্রের আকারে আছেন, যিনি পরবর্তীতে ভগবান বিষ্ণুর ভক্তে পরিনত হন।[১]শিবের মত চক্রপানিদেবের কপালে একটি তৃতীয় নয়ন আছে। এই মন্দিরটি কুম্ভকোণামের একটি উল্লেখযোগ্য মন্দির। [২]

কিংবদন্তী[সম্পাদনা]

চক্রযুদ্ধ পুরুষ,মন্দিরের প্রধান উপাস্য

হিন্দু কিংবদন্তি অনুসারে চক্র(অপর নাম সুদর্শন), বা চাকতি হল ভগবান বিষ্ণুর সবচেয়ে শক্তিশালী অস্ত্র। তিনি একদা পাতালের অসুররাজ জলন্ধাসুরকে বধ করার জন্য অস্ত্র নিক্ষেপ করেন। বিশ্বাস করা হয়, পাতাল হতে এই অস্ত্র কাবেরী নদীর মধ্য দিয়ে বের হয়ে আসে। ভগবান ব্রহ্মা, যিনি সেই সময় ওই নদিতে স্নান করছিলেন, এই দৃশ্য দেখে অভিভূত হন এবং সুদর্শনের একটি প্রতিরূপ ওই স্থানে নির্মাণ করেন যেখানে আজ মন্দিরটি অবস্থিত। সূর্যদেব যিনি তখন প্রখর দীপ্তি বিকিরন করছিলেন, সুদর্শনের তেজে তার সমস্ত দীপ্তি লুপ্ত হল। সূর্যদেব তখন সুদর্শনের স্তুতি করেন এবং সূর্যদেবের স্তুতিতে সন্তুষ্ট হয়ে সুদর্শন তার সমস্ত দীপ্তি ফিরিয়ে দেন। নিম্নস্থ চাকতি বিশিষ্ট স্থাপন অত্যুজ্জ্বলতা প্রভা তীব্র সূক্ষ্ম ।[৩]

মন্দির স্থাপত্য[সম্পাদনা]

মন্দিরটির বিশেষত্ব তার সুনিপুণ স্তম্ভগুলো। মন্দিরের অধিষ্ঠিত দেবতা চক্রপানির আছে ৮ টি হাত। এখানে দেবতার আরাধনারত রাজা সারফজি-২ এর ব্রোঞ্জ নির্মিত একটি মূর্তি আছে, বলা হয়ে থাকে, এই দেবতার কৃপায় তার রোগমুক্তি হয়েছিল। মন্দিরটির আঙ্গিনায় একটি পঞ্চমুখা (৫ মুখ বিশিষ্ট) হনুমান মূর্তি নির্মাণ করা হয়েছে। [৪]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

১৬২০ সালে, যখন নায়াক এর শাসনকর্তা গোবিন্দ দীক্ষিত্র কুম্বাকনামে রামাস্বামী মন্দির নির্মাণ করেন, তখন তিনি নতুন মন্দির আর পুরাতন চক্রপানি মন্দিরের মাঝে একটি বাণিজ্যিক পথ নির্মাণ করেন। [৫] মন্দিরটির পূর্ব ও পশ্চিম প্রবেশদ্বার যথাক্রমে “থাতচিনায়া ভায়িল” ও “উথারাভানা ভায়িল” নামে পরিচিত আর মন্দিরের বাইরের আঙিনা একটি ঝুলবারান্দার আদলে তৈরি। আগাম্পারা ভিনায়াকারা, পাঞ্ছামুগা আঞ্ছেনেয়ার ও ভিজায়াবাল্লি হল এই মন্দিরে অবস্থিত গুরুত্বপূর্ণ মূর্তি।

উপাস্য[সম্পাদনা]

চক্র পাদিথুরাই হল মন্দিরের সমান্তরালে কাবেরী নদীর তীরে অবস্থিতকুম্বাকনামেরএকটি বিখ্যাত ঘাট। নিভেথানাম, এটা এমন একটা বিষয় যেন ঈশ্বর জীবন ও মৃত্যুর চক্র পরিচালনা করছেন। এই মন্দিরের একটি গুরুত্বপূর্ণ ও অদ্ভুত বিষয় হল বিল্বঅর্চনা যা শিবমন্দিরে করা হয়, তা এখানে বিষ্ণুর উদ্দেশ্যে করা হয়।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Ayyar 1991, p. 325
  2. South Indian Railway Company 1926, p. 57
  3. Madhavan 2007, pp. 98-100
  4. Tourist Guide to Tamil Nadu. P.70
  5. Diaspora of the gods: modern Hindu temples in an urban middle-class world .P.246. Joanne Punzo Waghorne