গোলাম মকসুদ হিলালী

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
গোলাম মকসুদ হিলালী
জন্ম৩০ নভেম্বর ১৯০০
মৃত্যু১৭ ডিসেম্বর ১৯৬১
পেশাঅধ্যাপনা
পরিচিতির কারণসাহিত্যিক ও শিক্ষাবিদ

ডঃ গোলাম মকসুদ হিলালী (৩০ নভেম্বর ১৯০০ - ১৭ ডিসেম্বর ১৯৬১) হলেন একজন সাহিত্যিক ও শিক্ষাবিদ।[১] বাংলা, ইংরেজি, আরবি, ফারসিসহ প্রায় ১৮টি ভাষায় তিনি ব্যুৎপন্ন ছিলেন।[২]

জন্ম ও পারিবারিক পরিচিতি[সম্পাদনা]

মকসুদ ১৯০০ সালের ৩০ নভেম্বর[৩] তৎকালীন ব্রিটিশ ভারতের বেঙ্গল প্রেসিডেন্সির সিরাজগঞ্জের ফুলবাড়িতে জন্মগ্রহণ করেন।[২]

শিক্ষাজীবন[সম্পাদনা]

হিলালী কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ১৯২৪ সালে ফারসিতে ও ১৯৩২ সালে আরবিতে এমএ এবং ১৯২৭ সালে আইন বিষয়ে সন্মান ডিগ্রি অর্জন করেন।[১] ১৯৪৯ সালে তিনি ‘ইরান ও ইসলাম: তাদের পারস্পরিক প্রভাব’ সম্পর্কিত গবেষণার জন্যে ডিফিল ডিগ্রি লাভ করেন।[২]

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

বরেন্দ্র গবেষণা জাদুঘর প্রতিষ্ঠায় তার বিশেষ অবদান রয়েছে[৪] এবং তিনি এই প্রতিষ্ঠানটিতে কিছুদিন কিউরেটর হিসাবেও দায়িত্ব পালন করেছেন।[২]

রচনাবলী[সম্পাদনা]

ইংরেজি ও বাংলা ভাষায় রচিত তার উল্লেখযোগ্য গ্রন্থগুলো হলো:[২]

  • হালিদা হানুম (১৯৩৩),
  • A Manual of Persian Grammar (১৯৩৪),
  • আল বেরুণী (১৯৩৭),
  • Islamic Attitude Towards Non-Muslims (১৯৫২),
  • হজরতের জীবননীতি (১৯৬৫),
  • Perso-Arabic Elements in Bengali (১৯৬৭) ও
  • Iran and Islam: Their Reciprocal Influence (গবেষণা প্রতিবেদন)।

সম্প্রতি বাংলা একাডেমী থেকে "হিলালী রচনাবলী" (২ খন্ডে সমাপ্ত) প্রকাশিত হয়েছে।

মৃত্যু[সম্পাদনা]

তিনি ১৯৬১ সালের ১৭ ডিসেম্বর মৃত্যুবরণ করেন।[২]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "ভাষা ও সংস্কৃতি : সিরাজগঞ্জের বিশিষ্ট সাহিত্যিক ও শিক্ষাবিদ"। মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার। সংগ্রহের তারিখ ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 
  2. তসিকুল ইসলাম (জানুয়ারি ২০০৩)। "হিলালী, গোলাম মকসুদ"। সিরাজুল ইসলামবাংলাপিডিয়াঢাকা: এশিয়াটিক সোসাইটি বাংলাদেশআইএসবিএন 984-32-0576-6। সংগ্রহের তারিখ ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 
  3. "এই দিনে" (ওয়েব)দৈনিক আজাদী। চট্টগ্রাম। ৩০ নভেম্বর ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 
  4. "বরেন্দ্র গবেষণা জাদুঘর"। ট্রাভেল নিউজ। ২৭ জুলাই ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]