গোমুখী

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
গঙ্গোত্রী হিমবাহের গোমুখ অংশ (চিত্রের নিচে ডানদিকে অবস্থিত)

গঙ্গোত্রী হিমবাহের মুখ যা গোমুখ নামে পরিচিত যেখান থেকে ভাগীরথী নদীর উতপত্তি. এটা গঙ্গা নদীর প্রাথমিক উতসস্থলও. ভারতের উত্তরাখণ্ড রাজ্যের উত্তরকাশী জেলায় 13,200 ফুট উচ্চতায় এর অবস্থান. এটি আয়তনের দিক থেকে হিমালয়ের বৃহত্তম অংশ যা 27 ঘনকিলোমিটার জুডে অবস্থান করছে. এটি হিন্দুদের একটি জনপ্রিয় তীর্থস্থান পাশাপাশি ভাবে [[গঙ্গোত্রী]] একটি ভীষন সুন্দর ট্রেকরূট. 2013 সালে উত্তরাখন্ডে প্রচন্ড প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের জন্য গোমুখের সামনের দিকের একটা বড অংশ ভেঙে যায় ও নষ্ট হয়ে যায়.

গঙ্গোত্রী হিমবাহের উৎস

[১] এর অবস্থান গঙ্গোত্রী হিমবাহের শেষ প্রান্তে। ১৩,২০০ ফুট উচ্চতার এই স্থান থেকে গঙ্গা নদীর উৎপত্তি হয়েছে। একে নদীবাঁধও বলা হয়।[২][৩]

পৌরাণিক তথ্য[সম্পাদনা]

পুরাণে গোমুখের উল্লেখ আছে. কথিত আছে একজন মেষপালক ছেলে তাঁর একটি হারানো মেষকে খুঁজতে খুঁজেতে গঙ্গোত্রী হিমবাহের কাছে পৌঁছে যায়. সেখানটা দেখতে অনেকটা গরুর মুখের মতো দেখতে তাই নাম হয় গোমুখ. বিভিন্ন জাতির মানুষের কাছে এটি একটি পবিত্র যাত্রা. বহু সন্ন্যাসী ও মানুষ আসেন এখানে পুজো দিতে.

ভৌগোলিক অবস্থান[সম্পাদনা]

গোমুখ, গঙ্গোত্রী থেকে 18কিমি দূরে এবং ভাগীরথীর পাদদেশ থেকে 4255মিটার উচ্চতায় অবিস্থত.

ট্রেক রুট[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. মুহম্মদ এনামুল হক, সম্পাদক (জুন ২০১১)। "গ"। বাংলা একাডেমি ব্যবহারিক বাংলা অভিধান। ঢাকা: বাংলা একাডেমী। পৃষ্ঠা ৩৭৩। গোমুখী: হিমালয়স্থ গোমুখাকৃতি গহ্বর যার মধ্য দিয়ে গঙ্গানদী প্রবাহমান 
  2. "Other Rivers in Tamil Nadu"। mapsofindia.com। ০৩-১২-২০১২। সংগ্রহের তারিখ ২৬-০৬-২০১৪  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |তারিখ=, |সংগ্রহের-তারিখ= (সাহায্য)
  3. "River leading into gomukhi dam"। geoview.info। সংগ্রহের তারিখ ২৬-০৬-২০১৪  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |সংগ্রহের-তারিখ= (সাহায্য)

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

স্থানাঙ্ক: ৩০°৫৫′৩৬″ উত্তর ৭৯°০৪′৫১″ পূর্ব / ৩০.৯২৬৭৮° উত্তর ৭৯.০৮০৭৯° পূর্ব / 30.92678; 79.08079