গার্লস জেনারেশন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
Jump to navigation Jump to search
গার্লস জেনারেশন
Girls' Generation at DMC Festival 2015 MBC Radio DJ Concert 02.jpg
২০১৫ সালের সেপ্টেম্বরে গার্লস জেনারেশনের ছবিতে বাম থেকে ডানে দাঁড়ানো সানি, ইউরি, ইয়ুনা, সোহিউন এবং তেইয়োন। বাম থেকে ডানে ঝুঁকে আছে সুইয়োং, টিফানি এবং হিয়োইয়োন। 
প্রাথমিক তথ্য
উদ্ভব সউল, দক্ষিণ কোরিয়া
ধরন
  • কে-পপ
  • বাবলগাম পপ
  • ইলেক্ট্রো পপ
কার্যকাল ২০০৭-বর্তমান
লেবেল
  • এস.এম এন্টারটেইনমেন্ট
  • ইএমআই জাপান
  • ইন্টারস্কোপ
সহযোগী শিল্পী
  • এসএম টাউন
  • গার্লস জেনারেশন -টিটিএস
ওয়েবসাইট girlsgeneration.smtown.com
সদস্যবৃন্দ
  • তেইয়োন
  • সানি
  • টিফানি
  • হিয়োইয়ন
  • ইয়ুরি
  • সুইয়োং
  • ইয়ুনা
  • সোহিয়ুন
প্রাক্তন সদস্যবৃন্দ
  • জেসিকা
কোরীয় নাম
হাঙ্গুল 소녀시대
হাঞ্জা 少女時代
সংশোধিত রোমানীকরণ সোনিয়ো সিদে
ম্যাক্কিউন-রাইশাওয়া Sonyŏ Sidae

গার্লস জেনারেশন (হাঙ্গুল: 소녀시대; RR: Sonyeo Sidae সোনিয়ো সিদে)সংক্ষেপে এসএনএসডি (SNSD) নামেও পরিচিত। দক্ষিণ কোরিয়ার এই মহিলা গানের দল এস এম এন্টারটেনমেন্ট কর্তৃক গঠিত হয়। তেইয়োন ,সানি, টিফানি, হিয়োইয়্‌ন, ইয়ুরি, সুইয়োং, ইয়ুনা এবং সোহিয়ুন এই আট সদস্য নিয়ে এই গানের দল গঠিত। যদিও প্রথমে দলটি নয় সদস্যের ছিল। ২০১৪ সালে অন্য সদস্যা জেসিকা দল ছেড়ে চলে যাওয়ার পর এই আটজনই দলটি টিকিয়ে রেখেছে। ২০০৭ সালে গার্লস জেনারেশন দক্ষিণ কোরিয়ায় তাদের প্রথম এলবামের মাধ্যমে আত্মপ্রকাশ করে। তবে ২০০৯ সালে তাদের একক সঙ্গীত "জি" প্রকাশের আগ অব্দি খুব মনোযোগই তারা আকর্ষণ লাভে সক্ষম হয়েছিল। এই গানটি কেবিএস মিউজিক ব্যাংকে  নয় সপ্তাহ একটানা শীর্ষে অবস্থান করে পূর্বের সব রেকর্ড ভেঙে দেয়। অনলাইন ভিত্তিক সঙ্গীত পরিবেশক মেলন দ্বারা একে দক্ষিণ কোরিয়ার ২০০০এর সবচেয়ে জনপ্রিয় সঙ্গীত বলে অভিহিত করা হয়। পরবর্তীতে গার্লস জেনারেশন আরো বেশ কিছু জনপ্রিয় একক সঙ্গীত উপহার দেয়। এর মাঝে রয়েছে "টেল মী ইয়ুর উইশ (জিনি)", "ওহ!" এবং "রান ডেভিল রান"। ২০০৯ সালের মধ্যবর্তী সময় থেকে ২০১০ সালের শুরু অব্দি এই গানগুলো ব্যাপক জনপ্রিয়তা লাভ করেছিল।

নামকরণ[সম্পাদনা]

দলটির কোরীয় ভাষার নাম সো-নিয়ো সি-দে (কোরীয়: 소녀시대, RR: Sonyeo Sidae), যার অর্থ দাঁড়ায় "কন্যা বংশপরম্পরা" বা ইরেজিতে "জেনারেশন অব গার্লস"। সংক্ষেপে এদের সোসি (Korean: 소시) বা SNSD বলেও অভিহিত করা হয়। [১] যেহেতু নামকরণের ব্যবহৃত শব্দটির মূল চৈনিক ভাষা থেকে আগত, তাই চৈনিক ও জাপানি ভাষায়ও দলটির নাম একই। জাপানি ভাষায় দলটির না, সোজ জিদাই    Shōjo Jidai (Japanese: 少女時代)উচ্চারণ করা হয়।[২] এবং মান্দারিন চৈনিক ভাষায় উচ্চারণ শাওনু শিদাই (Chinese: 少女時代/少女时代).[৩]

 ইতিহাস[সম্পাদনা]

২০০০-০৮ঃ গঠন ও আত্মপ্রকাশ[সম্পাদনা]

দলটির আত্মপ্রকাশের আগে থেকেই এর কিছু সদস্য মিডিয়া জগতে কাজ করেছিল। ইয়ুুুনা গার্লস জেনারেশনের সদস্য হওয়ার আগে প্রায় ২০০টির মত অডিশন মিউজিক ভিডিও, নাটকসহ মিডিয়ার  ভিন্ন ক্ষেত্রে দিয়েছে।[৪] রুট থিটা (θ) নামের একটি জাপানী পপ দলের সদস্য হিসেবে সুুুুইয়োংকে কিছুদিন দেখা গেছে।[৫][৬]

২০০৮ সালের বীচ ভলিবল প্রতিযোগিতায় সউলের ঝামসিল অঞ্চলে পারফর্মরত গার্লস জেনারেশন গানের দল 

২০০৯-২০১০ঃ বিরাট সাফল্য অর্জন ও জাপানের আত্মপ্রকাশ [সম্পাদনা]

২০০৭ সালের প্রথম এ্যালবাম দ্বারা কিছুটা নজর কাড়তে সক্ষম হলেও গার্লস জেনারেশোনের ফ্যানদল গড়ে উঠা শূরু হয় ২০০৯ সাল থেকে।  ৭ই জানুয়ারি এই দলটির একক "জি" মুক্তি পেলে ১ লাখেরও বেশী কপি সমগ্র দক্ষিণ কোরিয়া জুড়ে বিক্রি হয়।  ২০১২ সালে সাই এর গ্যাংনাম স্টাইলের আগ অব্দি এটিই মিউজিক ব্যাংকে সবচেয়ে দীর্ঘকালীন সময় ৯ সপ্তাহ ধরে শীর্ষ স্থানে থাকার রেকর্ড ধরে রেখেছিল।[৭][৮][৯] ২০০৯ সালে দক্ষিণ কোরিয়ার সবচেয়ে বেশী বিক্রিত সিঙ্গেল হিসেবেও এটিকে উল্লেখ করা হয়। [১০] দলটির দ্বিতীয় ইপি "টেল মী ইয়ুর উইশ (জিনি)" ২০০৯ সালের জুনে মুক্তি পায়। (소원을 말해봐হাঙ্গুল: 소원을 말해봐; RR: Sowoneul malhaebwa) [১১] প্রথম সপ্তাহেই এটির ৫০ হাজার কপি বিক্রি হয়, যা সেসময়ের অন্য সকল রেকর্ড ভেঙে দেয়। [১২][১৩] ২০০৯ সালের নভেম্বরে এসএম এন্টারটেইনমেন্ট দলটির প্রথম কনসার্ট ট্যুরের ঘোষণা দেয়। "ইন্টু দ্যা নিউ ওয়ার্ল্ড" নামক এই ট্যুর কনসার্টের দক্ষিণ কোরিয়ার সকল টিকেট মাত্র তিন মিনিটেই সব বিক্রি হয়ে যায়।[১৪][১৫] এই ট্যুরের অংশ হিসেবে গানটির দল দক্ষিণ কোরিয়ার সউল ছাড়াও  ২০১০ সালের এপ্রিলে চীনের সাংহাই এবং অক্টোবরে তাইওয়ানের তেইপেই শহরে কনসার্ট করে।[১৬][১৭]

২০১৭ - বর্তমানঃ হলিডে নাইট [সম্পাদনা]

২০১৭ সালে পারফর্মরত গার্লস জেনারেশন

২০১৭ সালের জুলাইয়ে গার্লস জেনারেশন তাদের দশম বর্ষপূর্তি উপলক্ষ্যে নিজেদের ষষ্ঠ এ্যালবাম বের করার ঘোষণা দেয়।[১৮] পরের মাসেই ৭ই আগস্ট,২০১৭তে "হলিড নাইট" নামের এলবামটি বের হয়। [১৯] শুরুতে এটি বিলবোর্ড ওয়ার্ল্ড এলবাম চার্টে শীর্ষে জায়গা করে নেয়। [২০] একই সাথে দক্ষিণ কোরিয়ান গাওন এ্যালবাম চার্টে দ্বিতীয় স্থান অর্জন করে নেয়। [২১] বছর শেষে এলবামটির ১৬৭,৬৩৮ অফলাইন কপি বিক্রি হয়। [২২] [২৩]

ডিস্কোগ্রাফি[সম্পাদনা]

কোরিয়ান এ্যালবাম

  • গার্লস জেনারেশন ২০০৭ এ্যালবাম (২০০৭)
  • ওহ! (২০১০)
  • দি বয়েজ (২০১১)
  • আই গট এ বয় (২০১৩)
  • লায়ন হার্ট (২০১৫)
  • হলিডে নাইট (২০১৭)

জাপানি এ্যালবাম

  • গার্লস জেনারেশন ২০১১ এ্যালবাম (২০১১)
  • গার্লস এন্ড পীস (২০১২)
  • লাভ এন্ড পীস (২০১৩)

চলচ্চিত্র[সম্পাদনা]

  • আই এম (২০১২)[২৪]
  • এসএমটাউনঃ দি স্টেজ (২০১৫)[২৫]

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Girls' Generation Fans Explain the 'Optimism & Hope' of the K-Pop Girl Group"Billboard। আগস্ট ১৯, ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ৩০, ২০১৬ 
  2. Schreiber, Mark (সেপ্টেম্বর ২, ২০১২)। "Will the Takeshima dispute break the Korean wave?"The Japan Times। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ১, ২০১৩ 
  3. "SM娱乐官方声明确认郑秀妍退团 少女时代将由8人活动" [SM Announce That SNSD Will Have 8 Members Following Jessica's Departure] (Chinese ভাষায়)। China Radio International। সেপ্টেম্বর ৩০, ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ মে ২, ২০১৫ 
  4. 윤아 '연기 오디션 200번, 자신감 있는 태도 중요' [Yoona '200 acting auditions, confident attitude is important'] (Korean ভাষায়)। Nate News। ডিসেম্বর ১, ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ নভেম্বর ১৮, ২০১৪ 
  5. "Route 0 – profile" (Japanese ভাষায়)। R&C Japan Ltd.। ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০০৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  6. Song Hye-jin (ফেব্রুয়ারি ১২, ২০০৯)। 데뷔 7년차 중견가수, '소녀시대' 멤버가 되다 [7 singers debut mid-year, 'Girls' Generation' ranked]। The Chosun Ilbo (কোরীয় ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০১৫ 
  7. Lee Jeong-hyeok (জানুয়ারি ১৬, ২০০৯)। '소녀시대', KBS와 갈등?...2주 연속 출연 안해 [Girls' Generation Claim No.1 Position on KBS]। The Chosun Ilbo (Korean ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ১৬, ২০০৯ উদ্ধৃতি শৈলী রক্ষণাবেক্ষণ: অচেনা ভাষা (link)
  8. "Girls Generation to Return With New Album"The Korea Times। জুন ১৫, ২০০৯। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ৫, ২০১৫ 
  9. Song Cheol-min (২০১৬)। "The Meteoric Rise of Idol Groups in Korea"। K-pop Beyond AsiaKorean Culture and Information Service। পৃষ্ঠা 56 & 68। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ২৮, ২০১৬ 
  10. Han Sang-hee (ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০১০)। "Korea Launches First Official Music Charts Gaon"The Korea Times। আগস্ট ৪, ২০১০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  11. Kim Hyeong-u (জুন ২৩, ২০০৯)। 소녀시대 제로센 논란에 음반 발매일 29일로 연기 '문제 부분 삭제' [Girls' Generation's New Mini Album Titled 'Tell Me Your Wish'] (কোরীয় ভাষায়)। Newsen। অক্টোবর ৬, ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  12. 소녀시대 가요계 올킬 '음반 음원 벨 방송횟수 모두 1위 싹쓸이' [Girls' Generation's New Mini Album Claim the Top Spot on Music Websites] (Korean ভাষায়)। Newsen। জুলাই ৭, ২০০৯। ডিসেম্বর ১৬, ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। উদ্ধৃতি শৈলী রক্ষণাবেক্ষণ: অচেনা ভাষা (link)
  13. "G-Music Weekly Chart" (চীনা ভাষায়)। Taiwan: G-Music। আগস্ট ১১, ২০০৯। আগস্ট ১৯, ২০০৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  14. Lynn, Kim (নভেম্বর ১১, ২০০৯)। "Girls' Generation to embark on Asia tour next month"The Asia Economy Daily। সংগ্রহের তারিখ নভেম্বর ২৯, ২০০৯ 
  15. "Girls' Generation Gig Sells Out in 3 Minutes"The Chosun Ilbo। নভেম্বর ২৪, ২০০৯। সংগ্রহের তারিখ নভেম্বর ২৯, ২০০৯ 
  16. Han Sang Hee (নভেম্বর ১১, ২০০৯)। "Girls' Generation to Hold Asian Tour"The Korea Times। সংগ্রহের তারিখ নভেম্বর ২৯, ২০০৯ 
  17. 少女時代、台湾コンサート最多観客記録 [Girls' Generation To Visit Taiwan] (Chinese ভাষায়)। Innolife। অক্টোবর ১৮, ২০১০। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ২৯, ২০১৫ উদ্ধৃতি শৈলী রক্ষণাবেক্ষণ: অচেনা ভাষা (link)
  18. Yoon Min-sik (জুলাই ৪, ২০১৭)। "Girls' Generation celebrates 10-year anniversary with new album"। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ৪, ২০১৭ 
  19. "Girls' Generation to release sixth full-length album next month"। জুলাই ২৭, ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ২৭, ২০১৭ 
  20. Benjamin, Jeff (আগস্ট ১৫, ২০১৭)। "Girls' Generation Score Third No. 1 on World Albums With 'Holiday Night'"Billboard। সংগ্রহের তারিখ অক্টোবর ১২, ২০১৭ 
  21. "Gaon Album Chart – Week 32, 2017"Gaon Chart (কোরীয় ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ আগস্ট ১৭, ২০১৭ 
  22. Lee Moon-won (আগস্ট ১৬, ২০১৭)। "소녀시대, 아직 은퇴는 이르다" (কোরীয় ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ আগস্ট ১৬, ২০১৭ 
  23. "Album Chart: 2017" (কোরীয় ভাষায়)। Gaon Album Chart। জানুয়ারি ১২, ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ১২, ২০১৮ 
  24. "Box Office"The Korea Herald। জুন ২২, ২০১২। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ২৭, ২০১৬ 
  25. Lee, Edmund (নভেম্বর ২৪, ২০১৫)। "Film review: SMTown: The Stage"South China Morning Post। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ৮, ২০১৬