কালাপানি অঞ্চল

স্থানাঙ্ক: ৩০°১২′৫০″ উত্তর ৮০°৫৯′০২″ পূর্ব / ৩০.২১৪° উত্তর ৮০.৯৮৪° পূর্ব / 30.214; 80.984
উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
কালাপানি অঞ্চল
বিতর্কিত অঞ্চল
Map of Uttarakhand
Map of Uttarakhand
কালাপানি অঞ্চল
Location in Uttarakhand
কালাপানি অঞ্চলটি কালাপানি নদীর অববাহিকার দক্ষিণাঞ্চল
স্থানাঙ্ক: ৩০°১২′৫০″ উত্তর ৮০°৫৯′০২″ পূর্ব / ৩০.২১৪° উত্তর ৮০.৯৮৪° পূর্ব / 30.214; 80.984
অবস্থাভারত কর্তৃক নিয়ন্ত্রিত
নেপাল কর্তৃক দাবীকৃত
প্রতিষ্ঠিতআনু. ১৮৬৫
প্রতিষ্ঠা করেনব্রিটিশ রাজ
সরকার
 • ধরনসীমান্ত নিরাপত্তা
 • শাসকইন্দো-তিব্বত সীমান্ত পুলিশ[১]
আয়তন[২]
 • মোট৩৫ বর্গকিমি (১৪ বর্গমাইল)
সর্বোচ্চ উচ্চতা[৩]৬,১৮০ মিটার (২০,২৮০ ফুট)
সর্বনিন্ম উচ্চতা৩,৬৫০ মিটার (১১,৯৮০ ফুট)
জনসংখ্যা
 • মোট৫০–১০০

কালাপানি অঞ্চল ভারত ও নেপালের মধ্যকার বিতর্কিত একটি অঞ্চল যা উত্তরাখণ্ডের পিথোরাগড় জেলায় অবস্থিত বর্তমানে ভারত প্রশাসনের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। অঞ্চলটি হিমালয়ের কালী নদীর অন্যতম প্রধান জলপথ কালাপানি বা শার্দা নদী দ্বারা চিহ্নিত যার উচ্চতা ৩৬০০-৫২০০ মিটার পর্যন্ত। কালাপানি উপত্যকাটির সর্বোচ্চ চূড়া লিপুলেখ পাস যার মধ্য দিয়ে প্রাচীন তীর্থস্থান যাত্রার কৈলাস-মানস সরোবর পথ তৈরি হয়েছে। পথটি উত্তরাখণ্ডের ভুতিয়া গোত্রদের দ্বারা তিব্বতে বাণিজ্য করার অন্যতম সড়ক হিসেবেও ব্যবহৃত হয়।[৪]

কালী নদী পশ্চিম দিকে ভারত এবং নেপালকে বিভক্ত করেছে। তবে ভারত দাবী করে, নদীর তীরবর্তী শাখাসমূহ সীমানায় অন্তর্ভুক্ত নয়। সীমানাটি জলবিভাজিকার সাথেই অবস্থিত। ভারতের এই অবস্থানটি ব্রিটিশ ভারতের সময় অনুমানিক ১৮৬৫ থেকে চলে আসছে।[৫][৬]

এই অঞ্চলের কাছেই টিঙ্কার পাস নামে নেপালের আরো একটি পাস রয়েছে।[ক] ১৯৬২ সালে চীন-ভারত যুদ্ধের সময় ভারত লিপুলেখ পাসটি বন্ধ করে দিলে অধিকাংশ বাণিজ্য টিঙ্কার পাস দিয়ে সংগঠিত হত।[৮] ১৯৯৭ সালে যখন ভারত ও চীন উভয়ে লিপুলেখ পাসটি উন্মুক্ত করে দিতে সম্মত হয় তখন নেপাল কালাপানি অঞ্চল নিয়ে বিরোধীতা শুরু করে।[৯][১০]

বর্তমান সময়ে নেপাল কালাপানি নদীর পুরো অঞ্চলই তাদের বলে দাবী করে। নেপাল তাদের সরকারি মানচিত্রে এই অঞ্চলের ৩৫ বর্গ কিলোমিটার তাদের দারচুলা জেলার অর্ন্তভূক্ত হিসেবে দেখায়।[২] ভারত ও নেপালের যৌথ কমিটি ১৯৯৮ সাল থেকে এই অঞ্চলসহ আরো কয়েকটি বিতর্কিত অঞ্চলের সীমানা নির্ধারণে কাজ করছে।[২] কিন্তু এখনো দুই পক্ষ কোন যৌথভাবে সম্মত হতে পারেনি।

টীকা[সম্পাদনা]

  1. According to Nepalese analyst, Buddhi Narayana Shreshtha, the distance between the two passes is 3.84 km.[৭]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Why Kalapani is crucial and the Chinese threat should not be taken lightly"Hindustan Times। ৯ আগস্ট ২০১৭। 
  2. Gupta, Alok Kumar, Kalapani: A Bone of Contention Between India and Nepal, Institute of Peace and Conflict Studies, 17 October 2000; Also included in Gupta, Alok Kumar (জুন–ডিসেম্বর ২০০৯), "The Context of New-Nepal: Challenges and Opportunities for India", Indian Journal of Asian Affairs, 22 (1/2): 57–73, জেস্টোর 41950496 
  3. Śreshṭha, Border Management of Nepal (2003), পৃ. 243
  4. Chatterjee, The Bhotias of Uttarakhand (1976), pp. 4–5.
  5. Manandhar & Koirala, Nepal-India Boundary Issue (2001), পৃ. 3–4: "The map 'District Almora' published by the Survey of India [during 1865-1869] for the first time shifted the boundary further east beyond even the Lipu Khola (Map-5). The new boundary moving away from Lipu Khola follows the southern divide of Pankhagadh Khola and then moves norh along the ridge."
  6. Walton, Almora District Gazetteer (1911), পৃ. 253: "The drainage area of the Kalapani lies wholly within British territory, but a short way below the springs the Kali forms the boundary with Nepal." (Emphasis added)
  7. Śreshṭha, Border Management of Nepal (2003), p. 243.
  8. Schrader, Trading Patterns in the Nepal Himalayas (1988), পৃ. 99: "Lipu La, however, was closed in 1962, due to the strained Sino—Indian relations. Today renaining trade moves via Tinkar La."
  9. Rose, Leo E. (জানুয়ারি–ফেব্রুয়ারি ১৯৯৯), "Nepal and Bhutan in 1998: Two Himalayan Kingdoms", Asian Survey, 39 (1): 155–162, জেস্টোর 2645605 
  10. Harsh Mahaseth, Nepal: The Different Interpretations of Crime, National Academy of Legal Studies and Research University, 10 March 2017, via Social Science Research Network.