করুণানিধান বন্দ্যোপাধ্যায়

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান

করুণানিধান বন্দ্যোপাধ্যায় (১৯ নভেম্বর, ১৮৭৭ - ৫ ফেব্রুয়ারী, ১৯৫৫) একজন বাঙালী রোমান্টিক রবীন্দ্রানুসারী জাতীয়তাবাদী কবি।

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

তিনি নদিয়া জেলাশান্তিপুরের কাছে বাগআঁচড়া গ্রামে জন্মগ্রহন করেছিলেন। পিতার নাম নৃসিংহ বন্দ্যোপাধ্যায়। করুণানিধান শান্তিপুর মিউনিসিপ্যাল স্কুল থেকে ১৮৯৬ সালে এন্ট্রান্স ও কলকাতা মেট্রোপলিটন ইনস্টিটিউশন থেকে এফ.এ পাস করে কলকাতা জেনারেল অ্যাসেমব্লিজ ইনস্টিটিউশনে বি.এ পড়া শুরু করেন। ১৯০২ সালে বি.এ পাশ করে শিক্ষকতা করতেন।[১]

কাব্যপ্রতিভা[সম্পাদনা]

ছাত্র জীবন থেকে কবিতা লিখতেন। তার প্রথম লেখা দেশাত্মবোধক কাব্য বঙ্গমঙ্গল প্রকাশিত হয় ১৯০১ সালে। এটি রাজরোষে পড়ার আশঙ্কায় বিনা নামে বের হয়। অন্যান্য কাবগ্রন্থের মধ্যে প্রসাদী, ঝরাফুল, শান্তিজল, শতনরী, রবীন্দ্র আরতি, গীতায়ন ইত্যাদি উল্লেখযোগ্য। তার দ্বারা পরবর্তীতে মোহিতলাল মজুমদার প্রমুখ অনেক কবি প্রভাবিত হন।[২][৩]

সম্মান[সম্পাদনা]

সাহিত্যে অবদানের কারনে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় তাকে জগত্তারিণী স্বর্নপদক প্রদান করে ১৯৫১ সালে।[২]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "বন্দ্যোপাধ্যায়, করুণানিধান"। সংগ্রহের তারিখ ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৭ 
  2. প্রথম খন্ড, সুবোধ চন্দ্র সেনগুপ্ত ও অঞ্জলি বসু (২০০২)। সংসদ বাঙালি চরিতাভিধান। কলকাতা: সাহিত্য সংসদ। পৃষ্ঠা ৭৮। 
  3. "দেশপ্রেমিক কবি করুণানিধান বন্দ্যোপাধ্যায়ের ৬২মৃত্যূ বার্ষিকী আজ"। সংগ্রহের তারিখ ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৭