এলিটা করিম

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এলিটা করিম
স্থানীয় নামএলিটা
জন্ম নামদিলশাদ করিম এলিটা
জন্ম৪ সেপ্টেম্বর, ১৯৮২
ঢাকা, বাংলাদেশ
উদ্ভবঢাকা
ধরনপপ মিউজিক
পেশাসঙ্গীত শিল্পী
বাদ্যযন্ত্রসমূহগায়িকা
কার্যকাল২০০১–বর্তমান
সহযোগী শিল্পীফুয়াদ আল মুকতাদির

এলিটা করিম (জন্ম: ৪ সেপ্টেম্বর, ১৯৮২) বাংলাদেশের একজন নামকরা পপ গায়িকা হিসেবে বেশ পরিচিতি লাভ করেছেন। তার পুরো নাম দিলশাদ করিম এলিটা।

জন্ম[সম্পাদনা]

এলিটা করিম ১৯৮২ সালের ৪ সেপ্টেম্বর চট্টগ্রাম শহরের হাটহাজারীর উত্তর মাদার্শায় জন্মগ্রহণ করেন। মাত্র দুই মাস বয়সে মা-বাবার সাথে পাড়ি দেন সুদূর মধ্যপ্রাচ্যে। বাবা মোহাম্মদ নুরুল করিমের চাকরির সুবাদে সপরিবারে সৌদি আরব চলে যান। সৌদি আরবে তার বেড়ে উঠা। [১]

শৈশব[সম্পাদনা]

এলিটার শৈশব কাটে সৌদি আরব এ। গানে তার কোন প্রাতিষ্ঠানিক তালিম নেই। কোন ওস্তাদ ধরেও গান শেখা হয়নি এলিটার। গৃহীণি মা দিলরুবা বেগমের কণ্ঠে গান শুনতে শুনতেই মূলত শিল্পী হয়ে ওঠার জন্য তার অনুপ্রেরনা হয়ে উঠে। এলিটার পরিবারে দুই ভাই দুই বোনের মধ্যে এলিটা সবার বড়। দুই ভাইয়ের একজন এমিলও গানের সাথে যুক্ত। শূন্য ব্যান্ডের ভোকালিষ্ট সে। আরেক ভাই এলিন, দেশের বহুল পরিচিত ইংরেজি দৈনিক ডেলি ষ্টারের স্পোর্টস রিপোর্টার। আর ছোট বোন ইলোরা পড়ছে নর্থ-সাউথ ইউনিভার্সিটিতে।

সঙ্গীত জীবন[সম্পাদনা]

২০০১ সালে দেশে ফেরেন এলিটা। এরপর ব্ল্যাক ব্যান্ডের সাথে জড়িত হন এলিটা। ২০০৯ সালে বের হয় প্রথম মিক্সড অ্যালবাম ‘আমার পৃথিবী’। ‘মিথ্যা’ শিরোনামে অ্যালবামটির একটি গানে ব্যান্ডের ভোকালিষ্ট জন।জনের এর সাথে কণ্ঠ দেন তিনি। সে সময় শ্রোতামহলে গানটি বেশ সাড়া ফেলে। পরবর্তীতে গড়ে তোলেন তার নিজের ব্যান্ড ‘রাগা’।[২] ব্যান্ডের নামেই একটি অ্যালবামও বের করেন তিনি। অবশ্য, ব্যান্ডটি এখন আর নেই। তবে ২০০৯ সালে ‘অন্তহীন’ নামের মিক্সড অ্যালবামটি বাজারে বেশ আলোচিত হয় তার। আর তখন থেকেই তার পরিচিতির গণ্ডিটা একটু একটু করে প্রসারিত হতে থাকে। এরপর অনেক মিক্সড অ্যালবামে কণ্ঠ দিলেও এখনো পর্যন্ত একক কোন অ্যালবাম বের করা হয়নি এলিটার। তবে, শ্রোতাদের জন্য সুখবর দিতে দেরি করলেন না এই কণ্ঠশিল্পী। জানালেন- নাম এখনো চূড়ান্ত না হলেও খুব শীঘ্রই বাজারে আসছে প্রথম একক (সলো) অ্যালবাম। এখন কাজ চলছে।[১]। তাছাড়া আইসিসি বিশ্ব টুয়েন্টি২০ প্রতিযোগিতার সূচনা সঙ্গীত চার ছক্কা হৈ হৈ গানটিতে অন্য সবার মত কণ্ঠ দেন এলিটা। [৩]

সাংবাদিক জীবন[সম্পাদনা]

২০০১ সালে দেশে ফেরার পর ২০০৩ সালে বিনোদন প্রতিবেদক হিসেবে ইংরেজি দৈনিক ডেলি স্টারের সাথে যুক্ত হন তিনি। এরপর স্টার ম্যাগাজিনের সিনিয়র রিপোর্টার এবং স্টার ক্যাম্পাস ম্যাগাজিনের সম্পাদক হিসেবে কাজ করেছেন বহু দিন। বর্তমানে তিনি ইংরেজি দৈনিকটির ফিচার সম্পাদক হিসেবে কর্মরত আছেন।[৪] সাংবাদিকতা করতে গিয়ে মিলেছে অ্যাওয়ার্ডও। কিশোরী ও নারী পাচারের উপর একটি স্টোরির জন্য রেডক্রস ইন্টারন্যাশনাল এই অ্যাওয়ার্ড প্রদানের মাধ্যমে ২০০৯ সালে তাকে সম্মানিত করে। [৫] গান ও সাংবাদিকতার বাইরে রেডিও ফুর্তি তে নিয়মিত একটি শো করেন। সে হিসেবে তার আর একটি পরিচয় তিনি একজন রেডিও জকি। গান, সাংবাদিকতা ও রেডিও জকি হিসেবে কাজ করার পাশাপাশি তিনি ভাবেন সমাজ নিয়ে। আর সমাজের উন্নয়ন মূলক কর্মকান্ডে অংশ গ্রহণের জন্য তিনি যুক্ত আছেন ‘জাগো ফাউন্ডেশনের’ সঙ্গে।

অভিনয়[সম্পাদনা]

গান ও সাংবাদিকতার বাইরে এলিটা বেশ কিছু নাটকে অভিনয় করেছেন। তাদের মধ্যে মুকিম ব্রাদাস, এবং ক্লোজ আপ আছে আসার গল্পে নাটকে অভিনয় করেছেন। [৪]

পুরস্কার ও মনোনয়ন[সম্পাদনা]

বছর পুরস্কার শ্রেণী ফলাফল

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "সংরক্ষণাগারভুক্ত অনুলিপি"। ২০১৬-০৩-০৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৫-০৩-০৩ 
  2. "বিবিসির সাথে গান-গল্প"BBC News বাংলা 
  3. "`Bangla` World T20 song set to outdo J Lo-Pitbull`s FIFA 2014 tune"। ১৯ মার্চ ২০১৪। 
  4. "সংরক্ষণাগারভুক্ত অনুলিপি"। ৪ মার্চ ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩ মার্চ ২০১৫ 
  5. "Page not found - Dhaka Tribune"www.dhakatribune.com 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

ফেসবুকে এলিটা করিম উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন