এমভি শরীয়তপুর-১

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
২০১২ বাংলাদেশ ফেরী দুর্ঘটনা
BD Districts LOC.svg
মুন্সিগঞ্জ জেলাবাংলাদেশ
তারিখমার্চ ২০১২
যাত্রী ও কর্মী~২০০
হতাহত১৪৭
নৌযানের নামএমভি শরীয়তপুর ১

এমভিশরীয়তপুর ১ ছিল একটি দুই-পাটাতন বিশিষ্ট ফেরী যা ২০১২ সালের মার্চ মাসে বাংলাদেশের মেঘনা নদীতে একটি কার্গোবাহী জাহাজের সাথে ধাক্কা লেগে উল্টে যায়, এই দুর্ঘটনার ফলে ১৪৭জন লোক প্রাণ হারায়।[১]

পটভূমি[সম্পাদনা]

প্রথমদিকের রিপোর্টে বলা হয় ২০০ যাত্রী নিয়ে কার্গো জাহাজের সাথে ধাক্কা লেগে উল্টে যাওয়া ফেরীতে ৩০জন লোক নিহত হয়েছে এবং ডজনের মতো লোক অজ্ঞাত রয়েছে। বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকার পাশে মুন্সিগঞ্জ জেলার মেঘনা নদীতে ফেরীটি উল্টে গিয়ে ৭০ ফুট (২১ মি) পানির নিচে ডুবে যায়।[২][৩][৪][৫][৬]

উদ্ধার কার্য[সম্পাদনা]

ফেরীটিতে প্রায় ২০০ যাত্রী ছিল, যদিও যাত্রীর সঠিক তালিকা করা ছিল না। বেঁচে যাওয়াদের মধ্য থেকে ৩৫ জনকে পানি থেকে টেনে তোলা হয়েছিল, আরো ৪০ জন সাঁতরে তীরে এসে উঠে। ডুবুরীদের সহায়তায় মোট ১১২টি মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছিল। নৌযানটিকে সংস্কারের জন্য তোলা হলে আরো ৪টি লাশ নদীতে ভেসে উঠে। ১১০ জনের দেহ উদ্ধার করার পরও ৬১ জন নিরুদ্দেশ ছিল, তবে শেষ পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা দাঁড়ায় ১৪৭ জনে।[৭]

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Death toll in Bangladesh ferry sinking reaches 14"BNO News। ৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৩। ১৯ মে ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৩ 
  2. "Seven dead in Bangladesh ferry sinking"Brisbane Times। ১৩ মার্চ ২০১২। 
  3. "Bangladesh ferry sinking kills at least 32"BBC News। ১৩ মার্চ ২০১২। 
  4. "Ten dead, 150 missing as ferry sinks in Bangladesh"The Daily Telegraph। ১৩ মার্চ ২০১২। 
  5. "31 dead, dozens missing in Bangladesh ferry crash"Newsday। ১৩ মার্চ ২০১২। 
  6. "116 dead, more missing in Bangladesh ferry sinking"Associated Press। ১৫ মার্চ ২০১২। 
  7. "Bangladesh ferry dragged from river, death toll at 110"Reuters। ১৪ মার্চ ২০১২। ১৫ মার্চ ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা।