এইচটিএমএল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

হাইপার টেক্সট মার্ক আপ ল্যাঙ্গুয়েজ (অথবা এইচটিএমএল, ইংরেজি: Hyper Text Markup Language) হলো একটি ফর্ম্যাট যাতে বিভিন্ন প্রকারের ফর্ম্যাটিং ও হাইপারলিংক ব্যবহার করা যায়। ইন্টারনেটে, তথা ওয়েবসাইটে এইচ টি এম এল সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত হয়। এই ফাইলের এক্সটেনশন .htm অথবা .html উভয়ই হতে পারে। এতে বিভিন্ন ট্যাগ ব্যবহার করে বিভিন্ন ফর্ম্যাটিং, অবজেক্ট ও লিংক প্রকাশ করা করা হয়। html এর সর্বশেষ ভার্সন হলো html 5 যার উন্নয়ন কাজ এখনো অসম্পূর্ণ। html 5 এ ওয়েবসাইটে অডিও,ভিডিও যোগ করার জন্য নতুন আদর্শ(স্ট্যান্ডার্ড) যোগ করা হয়েছে।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

1980 সালে Tim Berners-Lee, যিনি CERN এ একজন ঠিকাদার ​​ছিলেন, সর্বপ্রথম CERN গবেষকদের মাঝে দস্তাবেজ শেয়ার করার জন্য ENQUIRE prototyped নামে একটি ‍System এর প্রস্তাব দেন। 1989 সালে, Berners-Lee একটি ইন্টারনেট ভিত্তিক হাইপারটেক্সট সিস্টেম প্রস্তাবে একটি মেমো লিখেন. 1990 সালে Berners-Lee ব্রাউজার এবং সার্ভারের সফ্টওয়্যারে এইচটিএমএল (HTML) এর উল্লেখ করেন ।এ বছরেই, Berners-Lee এবং CERN এর তথ্য সিস্টেম ইঞ্জিনিয়ার Robert Cailliau যৌথভাবে CERN কে এ প্রকল্পের জন্য অর্থায়নেঅনুরোধ করেন, কিন্তু প্রকল্পটি আনুষ্ঠানিকভাবে CERN দ্বারা গৃহীত হয়নি।

ট্যাগ[সম্পাদনা]

কোড লেখার আগে পরে নির্দিষ্ট কিছু চিহ্নসহ নির্ধারিত কিছু শব্দ ব্যাবহার করা হয়। এগুলোকে ট্যাগ বলে। একটি হচ্ছে আরম্ভ ট্যাগ (যেমন <h1>) এবং অপরটি সমাপ্তি ট্যাগ (</h1>)।

বিভিন্ন কোড[সম্পাদনা]

হেডিং[সম্পাদনা]

এইচটিএমএল হেডিং <h1> থেকে <h6> ট্যাগসমূহ দ্বারা লেখা হয়।[১] h1 হচ্ছে সবচেয়ে বড় হেডিং এবং ক্রমান্বয়ে h6 সবচেয়ে ছোট। বিভিন্ন ধরণের বড় ছোট হেডিং নিম্নরূপে লেখা হয়।

<h1>Biggest heading</h1>
<h2>Smaller Heading</h2>

প্যারাগ্রাফ[সম্পাদনা]

কোন প্যারাগ্রাফ লেখার জন্যে আরম্ভ ট্যাগ হিসেবে <p> এবং সমাপ্তি ট্যাগ হিসেবে </p> ব্যাবহার করতে হয়।
উদাহরণঃ

<p>A paragraph can be written here</p>

লিঙ্ক[সম্পাদনা]

অন্য কোন ওয়েব পৃষ্ঠার লিঙ্ক দিতে নিম্নের কোড ব্যবহার করতে হয়।

<a href="url">Displayable text</a>

url এর স্থলে ওয়েবপৃষ্ঠার পূর্ণাঙ্গ ঠিকানা দিতে হবে।

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]