উয়ারী

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
উয়ারী প্রত্নতাত্ত্বিক গ্রামে উয়ারী-বটেশ্বর দুর্গ-নগর উন্মুক্ত জাদুঘরের দিক নির্দেশনা ফলক

উয়ারী বাংলাদেশের রাজধানী শহর ঢাকা থেকে ৭০ কিলোমিটার উত্তর-পূর্বে নরসিংদীর বেলাবো উপজেলার আমলাব ইউনিয়নে অবস্থিত একটি প্রত্নতাত্ত্বিক গ্রাম।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

এই গ্রাম ও তার পাশের বটেশ্বর গ্রামের মানুষ বিভিন্ন সময়ে মাটি খোড়ার সময় প্রায়ই রৌপ্যমুদ্রা, প্রাচীন শহরের রাস্তা-গলি-বন্দরের পোড়ামাটি, মূল্যবান পাথর ও কাচের পুঁতি ইত্যাদি খুঁজে পেত। এই উয়ারী-বটেশ্বর দুই গ্রামের প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শনগুলো মানুষের নজরে আনেন স্কুলশিক্ষক মোহাম্মদ হানিফ পাঠান ও তাঁর ছেলে হাবিবুল্লাহ পাঠান। পরে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রত্নতত্ত্ব বিভাগের অধ্যাপক সুফি মোস্তাফিজুর রহমান প্রত্নতাত্ত্বিক এই গ্রাম দুটিকে পরিচিত করেন।[১]

জনসংখ্যা[সম্পাদনা]

এই গ্রামের মোট জনসংখ্যা ১০০০। এর মধ্যে ৪৬০ জন হলেন মহিলা ও ৫৪০ জন হলে পুরুষ।[২]

যোগাযোগ ব্যবস্থা[সম্পাদনা]

মরজাল অথবা বারৈচা বাস স্ট্যান্ড থেকে বা বেলাব বাজার থেকে একটি রাস্তা গ্রামটিকে সংযুক্ত করে। গ্রামে রিকশা, সিএনজি ইত্যাদি চলাচল করে।

উয়ারী বটেশ্বর দুর্গ নগর উন্মুক্ত জাদুঘর[সম্পাদনা]

প্রত্নতাত্ত্বিক গবেষণা কেন্দ্র "ঐতিহ্য অন্বেষণ"- এর উদ্যোগে এই প্রত্নতাত্ত্বিক গ্রামে ২০১৮ সালের ২৪ ফেব্রুয়ারি "উয়ারী বটেশ্বর দুর্গ নগর উন্মুক্ত জাদুঘর" উদ্বোধন করা হয়েছে। উদ্বোধন কালে ঐহিত্য অন্বেষণের নির্বাহী পরিচালক ড. সুফি মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, এ ধরনের প্রত্ন জাদুঘর বাংলাদেশে এই প্রথম। এই উয়ারী বটেশ্বর দুর্গ নগর উন্মুক্ত জাদুঘরে প্রত্নবস্তুর মডেল, রেপ্লিকা, প্রত্নবস্তু, প্রত্নবস্তুর আলোকচিত্র, বিবরণ, বিশ্লেষণ প্রদর্শন করা হয়েছে।[৩]

চিত্রশালা[সম্পাদনা]

"উয়ারী বটেশ্বর দুর্গ নগর উন্মুক্ত জাদুঘর"- এর সাইনবোর্ড। উয়ারী- বটেশ্বর, নরসিংদী, বাংলাদেশ। (আগস্ট ২০১৯)
"উয়ারী বটেশ্বর দুর্গ নগর উন্মুক্ত জাদুঘর"- এর একটি চিত্র। উয়ারী- বটেশ্বর, নরসিংদী, বাংলাদেশ। (আগস্ট ২০১৯)

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]