আব্বাস (অভিনেতা)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
আব্বাস
জন্ম
মীর্জা আব্বাস আলী

(1975-05-21) ২১ মে ১৯৭৫ (বয়স ৪৭)[১]
পেশাঅভিনেতা, মডেল
কর্মজীবন১৯৯৬ - বর্তমান
উচ্চতা৫ ফুট ১০ ইঞ্চি
দাম্পত্য সঙ্গীএরুম আলী
সন্তানএমিরা, আয়মান

মীর্জা আব্বাস আলী (জন্মঃ ২১ মে ১৯৭৫) ভারতের তামিল চলচ্চিত্রের একজন অভিনেতা এবং সাবেক মডেল।[২] তিনি ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে শুধুই আব্বাস হিসেবে পরিচিত। ১৯৯৬ সালে তামিল চলচ্চিত্র কাদাল দেসাম এর মাধ্যমে তার চলচ্চিত্র ক্যারিয়ার শুরু হয়।[৩]

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

আব্বাস হিন্দি এবং বাংলা চলচ্চিত্র দেখে দেখে বড় হয়েছেন, তার নানা একজন বাংলা চলচ্চিত্র অভিনেতা ছিলেন যদিও ছোটোখাটো, সত্তরের দশকের অন্যতম জনপ্রিয় হিন্দি চলচ্চিত্র অভিনেতা ফিরোজ খান আব্বাসের দূর সম্পর্কের কাকা হতেন।[৪] আব্বাস কলেজ জীবন থেকে মডেলিং করা শুরু করেন এবং মনে মনে চলচ্চিত্র অভিনেতা হওয়ার স্বপ্ন দেখতেন। তামিল চলচ্চিত্র পরিচালক কাদির তার নতুন একটি তামিল চলচ্চিত্র বানানোর জন্য নতুন পুরুষ মুখ খুঁজছিলেন, আব্বাসদের কলেজে একটি অডিশনের ব্যবস্থা করা হলে আব্বাস তার যেসব বন্ধু তামিল ভাষা জানে তাদেরকে অডিশনে যেতে বলেন এবং পরে নিজেও অডিশনে যান। কাদির আব্বাসকে দেখে পছন্দ করে ফেলেন যদিও আব্বাস তামিল ভাষা পারতেননা, কাদির তার 'কাদাল দেসাম' চলচ্চিত্রে আব্বাসকে নেবেন বলে সিদ্ধান্ত নেন।[৫] যেহেতু আব্বাস তামিল একটুও পারতেননা তাই পরিচালক কাদির তাকে চলচ্চিত্রটির সংলাপ মুখস্থ করার জন্য দিতেন এবং আব্বাস তাই করতেন। কাদাল দেসামে আব্বাস অভিনেত্রী তাবু এর সঙ্গে কাজ করার সুযোগ পেয়েছিলেন, চলচ্চিত্রটি ভালো ব্যবসাসফল হওয়ার ফলস্বরুপ আব্বাস মোটামুটি পরিচিতি পেয়ে যান এবং আরো কিছু চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য প্রস্তাব তার কাছে এসে যায়।[৬] ১৯৯৮ সালে তার মাধবনের সঙ্গে অভিনীত কন্নড় ভাষার চলচ্চিত্র 'শান্তি শান্তি শান্তি' মুক্তি পায়, মাধবন নিজেও তখন অভিনয় ক্যারিয়ারের শুরুর দিকে।

স্ত্রী এবং পরিবার[সম্পাদনা]

আব্বাসের স্ত্রীর নাম হচ্ছে এরুম (বাঙালি) যিনি একজন ফ্যাশন ডিজাইনার। আব্বাস-এরুম দম্পতির এক পুত্র ও এক কন্যা আছে। আব্বাস-এরুম বাঙালি হলেও তারা সন্তানসহ চেন্নাইতে বাস করেন।[৭]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Nilacharal" 
  2. "Tamil film director Rajiv Menon sets a trend with Kandukondain Kandukondain"ইন্ডিয়া টুডে। সংগ্রহের তারিখ ১৫ আগস্ট ২০১৬ 
  3. "The Hindu : Moving into the fast lane"। ১ জানুয়ারি ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৭ ডিসেম্বর ২০১৬ 
  4. http://movies.rediff.com/slide-show/2010/sep/15/slide-show-1-south-interview-with-abbas.htm#4
  5. http://in.rediff.com/movies/2002/jan/30abbas.htm
  6. http://www.rediff.com/movies/1998/dec/01ss.htm
  7. "Metro Plus Chennai : It takes two pairs to tango"। Chennai, India: The Hindu। ২০০৮-০৭-২৬। ২০০৮-১২-০৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০৬-০৫ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]