আনুশা রেহমান

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
আনুশা রেহমান
Anusha Rahman Ahmad Khan (cropped).jpg
কেন্দ্রীয় তথ্যপ্রযুক্তি ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী
কাজের মেয়াদ
২৭ এপ্রিল, ২০১৮ – ৩১ মে, ২০১৮
রাষ্ট্রপতিমামনুন হুসাইন
প্রধানমন্ত্রীশহীদ খাকন আব্বাসি
তথ্যপ্রযুক্তি ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী
কাজের মেয়াদ
৪ আগস্ট, ২০১৭ – ২৭ এপপিল ২০১৮
রাষ্ট্রপতিমামনুন হুসাইন
প্রধানমন্ত্রীশহীদ খাকন আব্বাসি
কাজের মেয়াদ
৭ জুন, ২০১৩ – ২৮ জুলাই, ২০১৭
রাষ্ট্রপতিমামনুন হুসাইন
প্রধানমন্ত্রীনওয়াজ শরীফ
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্ম (1968-06-01) ১ জুন ১৯৬৮ (বয়স ৫৩)
লাহোর, পাঞ্জাব, পাকিস্তান
জাতীয়তাপাকিস্তানি
রাজনৈতিক দলপাকিস্তান মুসলিম লীগ (এন)
প্রাক্তন শিক্ষার্থীইউনিভার্সিটি কলেজ লন্ডন

আনুশা রেহমান আহমদ খান ( উর্দু: انوشہ رحمان احمد خان‎‎ ; জন্ম ১ জুন, ১৯৬৮) হলেন একজন পাকিস্তানি রাজনীতিবিদ যিনি ২০১৮ সালের এপ্রিল থেকে মে পর্যন্ত আব্বাসি মন্ত্রিসভায় কেন্দ্রীয় তথ্য প্রযুক্তি ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী হিসাবে দায়িত্ব পালন করেছিলেন। এর আগে তিনি তৃতীয় শরীফ মন্ত্রীসভাতে ২০১৩ সালের জুন থেকে ২০১৭ সালের জুলাই পর্যন্ত পাকিস্তানের তথ্য প্রযুক্তি ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী[১][২][৩] এবং পুনরায় আব্বাসি মন্ত্রিসভায় ২০১৭ সালের আগস্ট থেকে ২০১৮ সালের এপ্রিল পর্যন্ত দায়িত্ব পালন করেছিলেন । তিনি ২০০৮ থেকে ২০১৮ সালের মে পর্যন্ত পাকিস্তান মুসলিম লীগের (এন) প্রতিনিধি হিসেবে পাকিস্তানের জাতীয় পরিষদের সদস্য ছিলেন।

প্রাথমিক ও শিক্ষাজীবন[সম্পাদনা]

আনুশা রেহমান ১৯৬৮ সালের ১লা জুন একটি তৎপাকিস্তানি রাজনৈতিক পরিবারে জন্মগ্রহণ করেছিলেন।[৪] ১৯৯২ সালে তিনি আইনবিদ্যায় স্নাতক (এলএলবি) স্নাতক হন এবং নিয়ন্ত্রিত শিল্প, নেটওয়ার্ক ও বাজার আইন এবং অর্থনীতিতে ইউনিভার্সিটি কলেজ লন্ডন থেকে এলএলএম ডিগ্রি অর্জন করেছিলেন।[৫][৬]

পেশাদার কর্মজীবন[সম্পাদনা]

নব্বইয়ের দশকের গোড়ার দিকে আনুশা রেহমান আইনজীবী হিসেবে কর্মজীবন শুরু করেছিলেন। তিনি পেশায় একজন পেশাদার কর্পোরেট আইনজীবী। তার মতে তিনি ১৯৯০ এর দশক থেকে টেলিকম সেক্টরে কাজ করছিলেন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Federal cabinet unveiled: Enter the ministers – The Express Tribune"The Express Tribune। ৮ জুন ২০১৩। ২৯ অক্টোবর ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৮ জানুয়ারি ২০১৭ 
  2. "Anusha invited by British PM to WEF panel discussion"The Nation (ইংরেজি ভাষায়)। ১৮ জানুয়ারি ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৮ জানুয়ারি ২০১৭ 
  3. "Sworn in as Minister of State"। Nation pk। ৭ জুন ২০১৩। Archived from the original on ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ ৩ জুন ২০১৪ 
  4. "If elections are held on time…"www.thenews.com.pk (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৪ ডিসেম্বর ২০১৭ 
  5. "Profiles: International Conference on Civil-Military Relations"। Pildat। ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৬ 
  6. "National Assembly of Pakistan"www.na.gov.pk। ৯ জানুয়ারি ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-০১-০৮