আদেল এক্সারচ্‌হোপল্‌স

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
আদেল এক্সারচ্‌হোপল্‌স
Adèle Exarchopoulos Cannes 2014.jpg
২০১৪ কান ফিল্ম ফেস্টিভালে আদেল এক্সারচ্‌হোপল্‌স
জন্ম (১৯৯৩-১১-২২) ২২ নভেম্বর ১৯৯৩ (বয়স ২২)
প্যারিস, ফ্রান্স
পেশা অভিনেত্রী
কার্যকাল ২০০৫–বর্তমান

আদেল এক্সারচ্‌হোপল্‌স (জন্ম ২২শে নভেম্বর, ১৯৯৩) একজন ফরাসী অভিনেত্রী এবং ২০১৩ সালে সর্ব কনিষ্ঠ অভিনয় শিল্পী হিসেবে পালমে দোর পুরষ্কার জিতেন।

জীবন এবং কর্ম[সম্পাদনা]

আদেল এক্সারচ্‌হোপল্‌স ফ্রান্সে বেড়ে উঠেন। তার পিতা দিদিয়ার এক্সারচ্‌হোপল্‌স একজন গিটার শিক্ষক এবং তার মা মারিয়ানা নিকুয়েট একজন নার্স। তার পিতামহ ছিলেন গ্রীসের অধিবাসী।[১][২] আদেল এক্সারচ্‌হোপল্‌সের লাজুক মুখবয়ের কারণে ৯ বছর বয়সে তার পিতামাতা তাকে অভিনয় কেন্দ্রে পাঠাতে শুরু করেন। ২০০৫ সালে তার অভিনীত মার্থা মুক্তি পাবার পূর্ব পর্যন্ত অভিনয় শিক্ষা গ্রহণ করতে থাকেন। ২০০৬ সালে আদে্‌ল টেলিভিশন ক্যারিয়ার শুরু করেন। ২০০৮ সালে লেস এনফেন্টস দে টিম্পেলব্যাক চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন। ব্লু ইজ দ্য ওয়ার্মেস্ট কালার (২০১৩) অভিনয়ের পূর্বে আদে্‌ল দি রাউন্ড আপ (২০১০), টার্ক হেড (২০১০), চেজ্‌ জিনো (২০১১) এবং আই ইউজ টু বি ডার্কার (২০১৩) প্রভৃতি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন। ব্লু ইজ দ্য ওয়ার্মেস্ট কালার ২০১৩ সালে পালমে দোর পুরস্কার জিতে, সাথে আদেল এক্সারচ্‌হোপল্‌স ও লিয়া সেদুও সেরা অভিনেত্রী নির্বাচিত হন।[৩]

অভিনীত চলচ্চিত্র[সম্পাদনা]

চলচ্চিত্র[সম্পাদনা]

বছর প্রযোজনা ভূমিকা পদটীকা
২০০৬ R.I.S, police scientifique Sarah টিভি সিরিজ
২০০৭ Boxes Lilli
২০০৮ Les Enfants de Timpelbach Marianne
২০১০ The Round Up Anna Traube
Turk's Head Nina
২০১১ Chez Gino Maria Roma
Carré blanc Marie (young)
২০১২ Des morceaux de moi Erell
২০১৩ I Used to Be Darker Camille
Making a Scene The Woman শর্ট ফিল্ম
ব্লু ইজ দ্য ওয়ার্মেস্ট কালার Adèle Broadcast Film Critics Association Award for Best Young Performer
কান ফিল্ম ফেস্টিভাল – পালমে দোর & Trophée Chopard Award for Female Revelation of the Year
César Award for Most Promising Actress
Chicago Film Critics Association Award for Most Promising Performer
Dublin Film Critics Circle Award for Best Newcomer
Étoiles d’or for Best Actress
Étoiles d’or for Best Female Newcomer
Globes de Cristal Award for Best Actress
International Cinephile Society Award for Best Actress
Los Angeles Film Critics Association Award for Best Actress
Lumières Award for Most Promising Actress
সাফল্যদায়ক অভিনেত্রীর জন্য রিভিউর ন্যাশনাল বোর্ড পুরস্কার
New York Film Critics Online Award for Breakthrough Actress
Prix Romy Schneider
Sant Jordi Award for Best Foreign Actress
Santa Barbara International Film Festival – Virtuoso Award
Village Voice Film Poll for Best Actress
মনোনীত—Chicago Film Critics Association Award for Best Actress
মনোনীত—Detroit Film Critics Society Award for Best Actress
মনোনীত—Dorian Awards for Film Performance of the Year - Actress
মনোনীত—Dublin Film Critics Circle Award for Best Actress (২য় স্থান)
মনোনীত—Empire Award for Best Female Newcomer
মনোনীত—সেরা অভিনেতার জন্য গার্ডিয়ান চলচ্চিত্র পুরস্কার
মনোনীত—London Film Critics Circle Award for Actress of the Year
মনোনীত—National Society of Film Critics Award for Best Actress (Runner-Up)
মনোনীত—New York Film Critics Circle Award for Best Actress (২য় স্থান)
মনোনীত—Online Film Critics Society Award for Best Actress
মনোনীত—San Diego Film Critics Society Award for Best Actress
মনোনীত—San Francisco Film Critics Circle Award for Best Actress
মনোনীত—Satellite Award for Best Actress – Motion Picture
মনোনীত—Washington D.C. Area Film Critics Association Award for Best Youth Performance
২০১৪ Insecure Jenny
Voyage vers la mère Marie Louise
২০১৫ The Anarchists Judith Lorillard
Apnée শর্ট ফিল্ম
The Last Face
২০১৬ Orpheline
Down By Love
Le Fidèle

টেলিভিশন[সম্পাদনা]

পুরস্কার[সম্পাদনা]

  • সেরা অভিনেত্রী পালমে দোর ২০১৩

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Five things to know about Adele Exarchopoulos"। সংগৃহীত ২০১৩-০৭-২২ 
  2. "The 19 year old Cannes winner"। ellines.com। 
  3. "Cannes 2013: Blue Is The Warmest Colour - first look review"। সংগৃহীত ২০১৩-০৭-২২ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]