আতিকুর রহমান (চিকিৎসক)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

আতিকুর রহমান একজন বাংলাদেশী চিকিৎসক ছিলেন। তিনি বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধে শহীদ হয়েছেন।

প্রথম জীবন[সম্পাদনা]

আতিকুর রহমানের জন্ম মুন্সিগঞ্জ জেলার শ্রীনগর উপজেলার কোলাপাড়ায় ১৯৩১ সালের ১ ফেব্রুয়ারি। তিনি কলকাতায় বালিগঞ্জ এজে মিত্র ইনস্টিটিউট থেকে ১৯৪৭ সালে স্নাতক ডিগ্রি অর্জন করেন। ১৯৫৫ সালে তিনি ঢাকার মিটফোর্ড মেডিকেল স্কুল থেকে মেডিকেল অনুষদে (এলএমএফ) শেষ করেন। তিনি এমবিবিএস প্রোগ্রাম স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজে শুরু করেন এবং ১৯৭০ সাল পর্যন্ত সেখানে পড়াশোনা করেন। [১]

পেশা[সম্পাদনা]

এলএমএফ শেষ করার পরে তিনি মেডিকেল অফিসার হিসাবে মেডিকেল সার্ভিসেস সেন্টারে যোগদান করেন। কেন্দ্রটি ফরিদপুর জেলা বোর্ডের তত্ত্বাবধানে ছিল। তিনি নারিন্দার ৯ শাহ সাহেব লেনে তার ব্যক্তিগত অনুশীলন শুরু করার জন্য এই পদটি ছেড়েছিলেন। তিনি উপস্থিত চিকিৎসক হিসাবে পিপলস সিরামিক ইন্ডাস্ট্রিজে খণ্ডকালীন কাজ করেছেন। ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ শুরু হয়, রহমান বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রামের মুক্তিবাহিনীর সদস্যদের চিকিৎসা সহায়তা দিয়েছিলেন। তিনি তাদের ওষুধ সরবরাহও করেছিলেন। [১]

মৃত্যু[সম্পাদনা]

১৯৭১ সালের ২৬ সেপ্টেম্বর পাকিস্তান সেনাবাহিনীর সদস্যরা তাকে তার বাসা থেকে নিয়ে যান। এর পরে তাকে আর কখনও দেখা যায়নি এবং ধারণা করা হয় তাকে হত্যা করা হয়েছে। [১]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Reaz, Bayzid Khurshid। "Rahman, Atiqur"en.banglapedia.org (ইংরেজি ভাষায়)। Banglapedia। সংগ্রহের তারিখ ১৩ আগস্ট ২০১৭