অ্যামোনিয়াম হাইড্রোক্সাইড

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
অ্যামোনিয়াম হাইড্রোক্সাইড
শনাক্তকারী
ত্রিমাত্রিক মডেল (জেমল)
সিএইচইবিআই
কেমস্পাইডার
ইসিএইচএ ইনফোকার্ড ১০০.০১৪.২২৫
ই নম্বর E৫২৭ (অম্লতা নিয়ন্ত্রক, ...)
কেইজিজি
ইউএনআইআই
বৈশিষ্ট্য[১]
NH3(জলীয়)
আণবিক ভর ১৭.০৩১ গ্রাম/মোল
বর্ণ বর্ণহীন তরল
গন্ধ "আঁশটে", অত্যন্ত তীব্র
ঘনত্ব ০.৯১ গ্রাম/সেমি (২৫ % ভর/ভর)
০.৮৮ গ্রাম/সেমি3 (৩৫ % ভর/ভর)
গলনাঙ্ক −৫৭.৫ °সে (−৭১.৫ °ফা; ২১৫.৭ K) (২৫ % ভর/ভর)
−৯১.৫ °সে (৩৫% ভর/ভর)
স্ফুটনাঙ্ক ৩৭.৭ °সে (৯৯.৯ °ফা; ৩১০.৮ K) (২৫ % ভর/ভর)
মিশ্রণীয়
−৩১.৫×১০−৬ সেমি/মোল
তাপ রসায়নবিদ্যা
স্ট্যন্ডার্ড মোলার
এন্ট্রোফি
এস২৯৮
১১১ জুল/(মোল·কেলভিন)[২]
গঠনে প্রমান এনথ্যাল্পির পরিবর্তন ΔfHo২৯৮ −৮০ কিলোজুল/মোলl[২]
ঝুঁকি প্রবণতা[৩]
Dangerous for the Environment (Nature) N ক্ষয়কারক C
আর-বাক্যাংশ আর৩৪, আর৫০
এস-বাক্যাংশ (এস১/২), এস২৬, এস৩৬/৩৭/৩৯, এস৪৫, এস৬১
এনএফপিএ ৭০৪
সম্পর্কিত যৌগ
অ্যামোনিয়াম ক্লোরাইড
অ্যামোনিয়াম সায়ানাইড
টেট্রামিথাইলঅ্যামোনিয়াম হাইড্রোক্সাইড
সম্পর্কিত যৌগ
অ্যামোনিয়া
হাইড্রোক্সিলঅ্যামাইন
সুনির্দিষ্টভাবে উল্লেখ করা ছাড়া, পদার্থসমূহের সকল তথ্য-উপাত্তসমূহ তাদের প্রমাণ অবস্থা (২৫ °সে (৭৭ °ফা), ১০০ kPa) অনুসারে দেওয়া হয়েছে।
N যাচাই করুন (এটি কি YesYN ?)
তথ্যছক তথ্যসূত্র

অ্যামোনিয়া সলিউশন যা অ্যামোনিয়া পানি, অ্যামোনিয়াম হাইড্রোক্সাইড, অ্যামোনিয়াকাল অ্যালকোহল, অ্যামোনিয়া অ্যালকোহল, একোয়া অ্যামোনিয়া, জলীয় অ্যামোনিয়া বা (ভুলভাবে) অ্যামোনিয়া হিসাবে পরিচিত, এটি পানিতে অ্যামোনিয়ার একটি দ্রবণ। এর রাসায়নিক সংকেত NH3(জলীয়)। যদিও অ্যামোনিয়াম হাইড্রোক্সাইড নাম দ্বারা একটি ক্ষার বুঝায় এবং এর রাসায়নিক সংকেত [NH4+][OH] তবে NH4OH এর নমুনাসমূহ বিযুক্ত করা অসম্ভব। NH4+ এবং OH আয়নের পরিমান অত্যন্ত লঘু দ্রবণ ব্যতীত অ্যামোনিয়ার মোট পরিমাণের গুরুত্বপূর্ণ ভগ্নাংশের হিসাব করা যায় না।[৪]

পানিতে অ্যামোনিয়ার ক্ষারকত্ব[সম্পাদনা]

জলীয় দ্রবণে অ্যামোনিয়া নিম্নোক্ত সাম্যাবস্থা অনুযায়ী অ্যামোনিয়াম এবং হাইড্রোক্সাইড উৎপন্ন হওয়ার জন্য পানির একটি ছোট অংশকে ডিপ্রোটোনেশন করে:

NH3 + H2O is in equilibrium with NH4+ + OH

মোলার অ্যামোনিয়া দ্রবণে অ্যামোনিয়ার প্রায় ০.৪২% অ্যামোনিয়ামে রূপান্তরিত হয়, এর pH = ১১.৬৩ এর সমতুল্য কারণ [NH4+] = ০.০০৪২ M, [OH] = ০.০০৪২ M, [NH3] = ০.৯৯৫৮ মোলার, এবং pH = ১৪ + log10[OH] = ১১.৬২। ক্ষারক আয়নীকরণ ধ্রুবক হল

Kb = [NH4+][OH] / [NH3] = ১.৮×১০−৫

সম্পৃক্ত দ্রবণ[সম্পাদনা]

অন্যান্য গ্যাসের মতো দ্রাবকের তাপমাত্রা বৃদ্ধির সাথে সাথে তরল দ্রাবকে অ্যামোনিয়ার দ্রাব্যতা হ্রাস পায়। দ্রবীভূত অ্যামোনিয়ার ঘনত্ব বৃদ্ধির সাথে সাথে অ্যামোনিয়া দ্রবণের ঘনত্ব হ্রাস পায়। ১৫.৬° সেন্টিগ্রেড (৬০.১° ফারেনহাইট) তাপমাত্রায় একটি সম্পৃক্ত দ্রবণের ঘনত্ব ০.৮৮ গ্রাম/মিলিলিটার হয় এবং ভরের হিসাবে এতে ৩৫.৬% অ্যামোনিয়া থাকে, প্রতি লিটার দ্রবণে ৩০৮ গ্রাম অ্যামোনিয়া থাকে এবং এর মোলারিটি প্রায় ১৮ মোল/লিটার। উচ্চ তাপমাত্রায় সম্পৃক্ত দ্রবণটির মোলারিটি হ্রাস পায় এবং ঘনত্ব বৃদ্ধি পায়।[৫] সম্পৃক্ত দ্রবণকে উত্তপ্ত করলে অ্যামোনিয়া গ্যাস নির্গত হয়।

ব্যবহার[সম্পাদনা]

অনাদ্র্র অ্যামোনিয়ার বিপরীতে জলীয় অ্যামোনিয়ার পরিষ্কারক এজেন্টগুলির বাইরে কয়েকটি অ-প্রকৃত ব্যবহার দেখা যায়।

গৃহস্থালী পরিষ্কারক[সম্পাদনা]

পাতলা (১-৩%) অ্যামোনিয়া অনেকগুলি পরিষ্কারক এজেন্ট-এর একটি উপাদান যার মধ্যে জানালা পরিষ্কারের অনেক সূত্র রয়েছে।[৬] যেহেতু জলীয় অ্যামোনিয়া পানিতে দ্রবীভূত একটি গ্যাস, একটি জানালা থেকে যেমন পানি বাষ্পীভূত হয় তেমনি গ্যাসটিও বাষ্পীভূত হয় ফলে জানালাকে দাগ মুক্ত রাখে।

অন্যান্য পরিষ্কারক উপাদানের সাথে ময়লা দূরীকারক পদার্থের উপাদান হিসাবে ব্যবহার করার পাশাপাশি পানিতে অ্যামোনিয়া নিজেই একটি পরিষ্কারক উপাদান হিসাবে ব্যবহৃত হয়, সাধারণত একে সাদামাটাভাবে "অ্যামোনিয়া" হিসাবে আখ্যা দেত্তয়া হয়। এটি সাধারণ, লেবুর সুগন্ধযুক্ত (সাধারণত হলুদ রঙে) বা পাইন-সুগন্ধযুক্ত (সবুজ রঙে) আকারে বিক্রি হয়। সাধারণভাবে "মেঘবৎ অ্যামোনিয়া" হিসাবে পরিচিত সাবান যুক্ত অ্যামোনিয়া সহজলভ্য।

অ্যালকাইল অ্যামাইন এর অগ্রদূত[সম্পাদনা]

শিল্পক্ষেত্রে জলীয় অ্যামোনিয়া কিছু অ্যালকিল অ্যামিনের অগ্রণী হিসাবে ব্যবহৃত হয়, যদিও অনাদ্র্র অ্যামোনিয়া সাধারণত পছন্দনীয়। জলীয় অ্যামোনিয়া এবং ফর্মালডিহাইড থেকে সহজেই হেক্সা মিথাইলিনটেট্রামিন গঠিত হয়। ১,২-ডাইক্লোরোইথেন এবং জলীয় অ্যামোনিয়া থেকে ইথিলিনডাইঅ্যামিন তৈরি হয়।[৭]

শোষণ রেফ্রিজারেশন[সম্পাদনা]

বিংশ শতাব্দীর গোড়ার দিকে জলীয়-অ্যামোনিয়া পদ্ধতি ব্যবহার করে বাষ্প শোষণ চক্র জনপ্রিয় এবং ব্যাপকভাবে ব্যবহৃত হয়েছিল, তবে বাষ্প সংকোচন চক্রের উন্নয়নের পরে এটি তার তাৎপর্যপূর্ণ দক্ষতার নিম্নগতির কারণে এর গুরুত্ব অনেকাংশে হ্রাস পায় (বাষ্প সংকোচন চক্রের প্রায় এক পঞ্চমাংশ)। ইলেক্ট্রোলাক্স রেফ্রিজারেটর এবং আইনস্টাইন রেফ্রিজারেটর উভয়ই অ্যামোনিয়া দ্রবণের এই প্রয়োগের সুপরিচিত উদাহরণ।

পানি শোধন[সম্পাদনা]

মনোক্লোরামিন উৎপাদন করতে অ্যামোনিয়া ব্যবহৃত হয়, এটি জীবাণুনাশক হিসাবে ব্যবহৃত হয়।[৮] ক্লোরামিনকে ক্লোরিনেশনের চেয়ে বদ্ধ পানির পাইপে সক্রিয় থাকার ক্ষমতার জন্য বেশি পছন্দ করা হয়, এটি পানিবাহিত সংক্রমণের ঝুঁকি হ্রাস করে।

অ্যামোনিয়াকে ফিসলেস সাইক্লিং নামে পরিচিত অ্যামোনিয়া প্রক্রিয়া ব্যবহার করে একটি নতুন ফিশ ট্যাঙ্ক স্থাপনের জন্য অ্যাকোরিয়াররা ব্যবহার করেন।[৯] অ্যামোনিয়াতে কোনও সংরক্ষণকর বস্তু না থাকায় এটির প্রয়োজন হয়।

খাদ্য উৎপাদন[সম্পাদনা]

বেকিং অ্যামোনিয়া (অ্যামোনিয়াম বাইকার্বোনেট) হল মূল রাসায়নিক গাঁজান এজেন্টগুলির মধ্যে একটি। এটি পিঁপড়া হরিণ থেকে পাত্তয়া যায়।[১০] এটি একটি গাঁজান এজেন্ট হিসাবে কার্যকর কারণ অ্যামোনিয়াম কার্বনেট তাপে সক্রিয় হয়। এই বৈশিষ্টের কারণে বেকারিতে ঈস্ট এর দীর্ঘ প্রুফিং সময় এবং পাউরুটি ও কুকিজ তৈরিতে বেকিং সোডার দ্রুত CO2 অপসারণ উভয় পরিহার করা যায়। এটি এখনও অ্যামোনিয়া কুকিজ এবং অন্যান্য মচ্মচে সেঁকা পণ্য তৈরিতে ব্যবহৃত হয় তবে অ্যামোনিয়ার অপ্রীতিকর-গন্ধ এবং আধুনিক সময়ের বেকিং পাউডার সূত্রগুলির তুলনায় খাদ্য উপাদান হিসাবে এটি ব্যবহারের বিষয়ে উদ্বেগের কারণে এর জনপ্রিয়তা হ্রাস পেয়েছে। ইউরোপীয় ইউনিয়নে খাদ্য সংরক্ষণকর বস্তু হিসাবে ব্যবহারের জন্য এর ই নম্বর ই৫২৭ নির্ধারণ করা হয়েছে।

খাবারে অম্লতার মাত্রা কমিয়ে আনার জন্য জলীয় অ্যামোনিয়া অম্লতা নিয়ন্ত্রক হিসাবে ব্যবহৃত হয়। খাদ্য ও ঔষধ প্রশাসন কর্তৃক এটি যুক্তরাষ্ট্রে খাদ্য মান সংস্করণ ব্যবহার করার সময় এটি সাধারণত নিরাপদ হিসাবে স্বীকৃত (জিআরএএস) শ্রেণিবদ্ধ করা হয়েছে।[১১] এর pH নিয়ন্ত্রণ ক্ষমতা এটিকে কার্যকর অ্যান্টিমাইক্রোবায়াল এজেন্ট হিসাবে স্বীকৃতি লাভ করেছে।

আসবাবপত্র বিবর্ণকরণ[সম্পাদনা]

আসবাবপত্র তৈরিতে ঐতিহ্যগতভাবে ট্যানিক অ্যাসিডযুক্ত কাঠকে বিবর্ণ বা রঙ করার জন্য অ্যামোনিয়া ফিউমিং ব্যবহার করা হয়। কাঠ দিয়ে কোন পাত্র বায়ুরোধী করার পর অ্যামোনিয়া দ্রবণ থেকে উৎপন্ন ধোঁয়া স্বাভাবিকভাবেই কাঠের মধ্যে থাকা ট্যানিক এসিড এবং লোহার লবণের সাথে বিক্রিয়া করে কাঠকে সমৃদ্ধ করে ও গাঢ় দাগযুক্ত চেহারা প্রদান করে। এই কৌশলটি সাধারণত শিল্প এবং কারুশিল্প বিপ্লবের সময় আসবাবপত্রে ব্যবহার করা হয় - একটি আসবাবপত্রের একটি শৈলী যা প্রাথমিকভাবে ওক কাঠ দিয়ে তৈরি হয়েছিল এবং এই পদ্ধতি ব্যবহার করে দাগ দেওয়া হয়েছিল।[১২]

গবাদি পশুর খড়ের ব্যবস্থাপনায়[সম্পাদনা]

অ্যামোনিয়া দ্রবণ খড়ের প্রক্রিয়জাতকরণে ব্যবহৃত হয়, "অ্যামোনিয়াকৃত খড়" উৎপাদন করে এটি গবাদি পশুর জন্য আরো অধিক ভোজ্য করে তোলা হয়।[১৩]

পরীক্ষাগারে ব্যবহার[সম্পাদনা]

জলীয় অ্যামোনিয়া প্রচলিত গুণগত অজৈব বিশ্লেষণে জটিল যৌগ এবং ক্ষারক হিসাবে ব্যবহৃত হয়। অনেক অ্যামিনের মতো এটি কপার (দ্বিযোজী) দ্রবণের সাথে গাঢ় নীল বর্ণ ‍তৈরি করে। অ্যামোনিয়া দ্রবণ সিলভার অক্সাইডের অধঃক্ষেপকে দ্রবীভূত করতে পারে, উদাহরণ স্বরূপ টলেন বিকারক থেকে গঠিত অধঃক্ষেপ। এটি প্রায়শই স্বর্ণ, রূপা এবং প্ল্যাটিনাম গহনা পরিষ্কার করার জন্য ব্যবহৃত দ্রবণে পাওয়া যায় তবে এটি উপল এবং মুক্তার মতো ছিদ্রযুক্ত রত্ন পাথরের ক্ষেত্রে বিরূপ প্রভাব ফেলতে পারে।[১৪]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Record of Ammonia solution in the GESTIS Substance Database from the IFA.
  2. Zumdahl, Steven S. (২০০৯)। Chemical Principles 6th Ed.। Houghton Mifflin Company। পৃষ্ঠা A22। আইএসবিএন 978-0-618-94690-7 
  3. C&L Inventory.
  4. টেমপ্লেট:Housecroft2nd
  5. Max Appl (২০০৬)। "Ammonia"। Ammonia, in Ullmann's Encyclopedia of Industrial Chemistry। Weinheim: Wiley-VCH। আইএসবিএন 978-3527306732ডিওআই:10.1002/14356007.a02_143.pub2 
  6. Christian Nitsch; Hans-Joachim Heitland; Horst Marsen; Hans-Joachim Schlüussler (২০০৫)। "Cleansing Agents"। Ullmann’s Encyclopedia of Industrial Chemistry। Weinheim: Wiley-VCH। আইএসবিএন 978-3527306732ডিওআই:10.1002/14356007.a07_137 
  7. Eller, Karsten; Henkes, Erhard; Rossbacher, Roland; Höke, Hartmut (২০০০)। "Amines, Aliphatic"। Ullmann's Encyclopedia of Industrial Chemistryআইএসবিএন 978-3-527-30673-2ডিওআই:10.1002/14356007.a02_001 
  8. "Chloramines in Drinking Water"EPA। US Environmental Protection Agency। ২০১৫-১০-২০। সংগ্রহের তারিখ ৬ মার্চ ২০১৮ 
  9. "Fishless Cycling"Aquarium Advice। সংগ্রহের তারিখ ৬ মার্চ ২০১৮ 
  10. Olver, Lynne"Ammonia Cookies"The Food Timeline। সংগ্রহের তারিখ ৬ মার্চ ২০১৮ 
  11. Database of Select Committee on GRAS Substances (SCOGS) Reviews: Ammonium hydroxide, U.S. Food and Drug Administration
  12. Rigers, Shayne; Umney, Nick (২০০৯-০৮-১২)। "Acidic and alkaline stains"Wood Coatings: Theory and Practice। Amsterdam: Elsevier। পৃষ্ঠা 618–9। আইএসবিএন 978-0-444-52840-7 
  13. "Is it Bedding or is it Feed? | Ohio BEEF Cattle Letter" 
  14. দ্য জুয়েলার্স বেঞ্চ। ২০১৫। চমৎকার গহনা পরিষ্কারক। লিটলটন, কলো।

আরও পড়ুন[সম্পাদনা]

  • গিয়োরনার্স, I.; Sofos, জে. এন. (২০০৫)। "আমিষের জন্য শারীরিক ও রাসায়নিক বিশুদ্ধ মধ্যবর্ত্তি সম্মিলন"। সোফোস, জন নিকোলাস। তাজা মাংসের সংরক্ষণ ব্যবস্থার উন্নয়ন। বোকা র‌্যাটন: সিআরসি প্রেস। পৃষ্ঠা ৪৩৩–৬০। আইএসবিএন 978-0-8493-3427-6 
  • স্ক্যান্ডামিস, প্যানাগিওটিস এন.; নাইচাস, জর্জ-জন ই.; সোফোস, জন এন. (২০১০)। "মাংস সংক্রমণমুক্তকরণ"। তোলদ্রা, ফিদেল। মাংস প্রক্রিয়াকরণ হ্যান্ডবুক। আমেস: আইওয়া স্টেট ইউনিভার্সিটি প্রেস। পৃষ্ঠা ৪৩–৮৫। আইএসবিএন 978-0-8138-2089-7ডিওআই:10.1002/9780813820897.ch3 
  • এডওয়ার্ডস, জেসিকা রেনি; ফাঙ, ড্যানিয়েল ওয়াই.সি. (২০০৬)। "বাণিজ্যিক গরুর মাংসের কসাইখানায় কাঁচা গরুর মাংসের দেহাবশেষে এসচেরিচিয়া কোলির ও১৫৭: এইচ৭ এর প্রতিষেধক ও সংক্রমণমুক্তকরণ"। র‌্যাপিড মেথোডস এন্ড অটোমেশন ইন মাইক্রোবায়োলজি সাময়িকী১৪ (১): ১–৯৫। ডিওআই:10.1111/j.1745-4581.2006.00037.x 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]