অ্যাথামাস

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
চিত্র:FLAXMAN John The Fury Of Athamas.jpg
জন ফ্ল্যাক্সম্যান (১৭৫৫-১৮২৬) নির্মিত "দ্য ফ্যুরি অফ অ্যাথামাস"

গ্রিক পুরাণে, অ্যাথামাস (Athamas) ( /ˈæθəməs/ ) ছিলেন বিওটিয়ার একজন রাজা। [১]

পরিবার[সম্পাদনা]

তিনি এওলাস এবং এনারেতির পুত্র,[২] এবং তার প্রথম স্ত্রী দেবী নেফেলি ও অন্যান্য স্ত্রী ইনোথেমিস্টোর দ্বারা তার কয়েকজন সন্তান ছিল।[৩] নেফেলির গর্ভে তার প্রথম দুই যমজ সন্তানের জন্ম হয় - পুত্র ফ্রিক্সাস ও কন্যা হেলি[১] সেই সাথে নেফেলির গর্ভে মেকিস্টোস নামে তার আরেক পুত্রেরও জন্ম হয়।[৪] তিনি পরবর্তীকালে ক্যাডমাসের কন্যা ইনোকে বিয়ে করেন, যার গর্ভে লিয়ারকেসমেলিকার্টেস নামে দুজন সন্তানের জন্ম হয়।

পুরাণ[সম্পাদনা]

"টিসিফোন ম্যাডেনস অ্যাথামাস অ্যান্ড ইনো" (১৭শ শতাব্দী)

ফ্রিক্সাস এবং হেলিকে তাদের সৎ মা ইনো ঘৃণা করতেন। ইনো এই যমজদের হাত থেকে রেহাই পেতে একটি ষড়যন্ত্র করে নগরের সমস্ত ফসলের বীজ পুড়িয়ে ফেলেন, যাতে সেগুলি থেকে ফসল না তৈরি হতে পারে।[৫] দুর্ভিক্ষে ভীত হয়ে স্থানীয় কৃষকরা নিকটবর্তী ভবিষ্যৎ-কথকের সহায়তা চেয়েছিলেন। ইনো সেই ভবিষ্যৎ-কথকের কাছে প্রেরিত লোকদের ঘুষ দিয়ে বলে, তারা যেন সবাইকে জানায় ভবিষ্যৎ-কথক বলেছে নগরের সংকট কাটাতে ফ্রিক্সাসের বলি দিতে হবে। অ্যাথামাস অনিচ্ছায় রাজি হন। তবে, ফ্রিক্সাসকে হত্যা করার আগে, তার মা নেফিলি একটি স্বর্ণের ভেড়া পাঠায় আর তাতে চড়ে ফ্রিক্সাস ও হেলি পালিয়ে যায়।[৬] তাদের যাত্রা শুরুর স্থলটি বিভিন্ন স্থানে থেসালির হ্যালোস বা বিওটিয়ার অর্কোমেনাস হিসেবে নথিভূক্ত হয়েছে। ফ্রিক্সাস ও হেলিকে বলা হয়েছিল উড্ডয়নের সময় নিচের দিকে না তাকাতে। তারপরো হেলি নিচের দিকে তাকায় ও ভয় পেয়ে ভেড়া থেকে পড়ে গিয়ে ইউরোপ ও এশিয়ার মধ্যবর্তী প্রণালীতে ডুবে যায় ও মারা যায়, প্রণালীটির নামকরণ করা হয়েছিল তার নামের সাথে মিলিয়ে হেলিসপন্ট, যার অর্থ হেলির সাগর (এখন দারদানেলিস নামে পরিচিত)। ফ্রিক্সাস কলচিসে পৌঁছে যায় যেখানে সেখানকার রাজা ও সূর্যদেব হেলিয়সের পুত্র ঈটিজ তাকে সাদরে অভ্যর্থনা জানান এবং তার সাথে নিজের কন্য ক্যালসিওপির বিবাহ দেন। কৃতজ্ঞতাস্বরূপ ফ্রিক্সাস ভেড়াটিকে দেবতা জিউসের কাছে উৎসর্গ করেন এবং ঈটিজকে এর স্বর্ণের পশম উপহার দেন। ঈটিজ স্বর্ণের পশমটিকে তার রাজ্যে অবস্থিত দেবতা আরেসের পবিত্র কুঞ্জবনের একটি বৃক্ষে ঝুলিয়ে রাখেন, যা একটি নির্ঘুম ড্রাগন পাহাড়া দেয়।[১] পরবর্তিতে জ্যাসন ও তার আর্গোনটরা এই স্বর্ণের পশম উদ্ধার করেন।

গডফ্রিড ম্যাস দ্বারা অঙ্কিত "অ্যাথামাস টিয়ারিং অ্যাপার্ট হিস চিলড্রেন"

পরবর্তীতে, ইনো তার বোন সেমিলির পুত্র ডায়োনিসাস এর প্রতিপালনের ভার নেন,[৭] যা হেরার তীব্র ঈর্ষার কারণ হয়। প্রতিহিংসায় হেরা তার স্বামী অ্যাথামাসকে পাগল বানিয়ে দেন। অ্যাথামাস পাগল হয়ে তার এক পুত্র লিয়ারকাসকে একটি মেষ ভেবে হত্যা করে, এবং ইনোকে মারার জন্য উন্মত্ত হয়ে ধেয়ে আসেন। ইনো, তার উন্মত্ত স্বামীর তাড়া থেকে বাঁচতে, পুত্র মেলিকার্টিসকে নিয়ে সমুদ্রে ঝাপ দেন। বিকল্প আরেকটি গল্পে ইনোও পাগল হয়ে যান, এবং তিনি তার পুত্র মেলিকার্টিসকে একটি কড়াইতে সিদ্ধ করেন। এরপর তিনি সেই কড়াই নিয়ে সমুদ্রে ঝাপ দেন। দেবতা সহানুভূতিশীল জিউস চাননি ইনো মারা যান। তাই তিনি ইনো ও তার পুত্র মেলিকার্টিসকে দেব-দেবীতে রূপান্তরিত করেন। এরপর উভয়ই সমুদ্রের দেবদেবীতে পরিণত হন এবং উপাস্য হন। ইনো দেবী লিউকোথিয়া ও মেলিকার্টিস দেবতা প্যালিমনে রূপান্তরিত হন।[৮]

পুত্রহত্যার গ্লানি নিয়ে অ্যাথামাস বিওটিয়া ত্যাগ করেন। একজন ভবিষ্যৎবক্তা তাকে এমন একটি স্থানে বসতি স্থাপন করতে বলেন যেখানে তিনি বন্য জন্তুর কাছ থেকে আতিথেয়তা লাভ করবেন। এটি তিনি পান থেসালির ফ্‌থিওটিসে, যেখানে তিনি অদ্ভুতভাবে নেকড়েখেকো ভেড়া দেখতে পান। তিনি সেখানে গেলে ভেড়াগুলো হাড়গুলো রেখে পালিয়ে যায়। এই দেখে অ্যাথামাস বুঝতে পারেন ভবিষ্যদ্বক্তার বাণী পুর্ণ হয়েছে। তিনি সেখানেই বসতি নির্মাণ করেন এবং থেমিস্টো নামে একজন নারীকে বিবাহ করেন (যার গর্ভে স্কেনিয়াস, লিউকন, টোউয়াস এবং/অথবা অন্যান্য সন্তানের জন্ম হয়)। এই স্থানটি পরবর্তীতে অ্যাথামানীয় সমভূমি নামে পরিচিত হয়।

কিছু সূত্র অনুসারে অ্যাথামাস তার দ্বিতীয় স্ত্রী ইনোকে মৃত ভেবে থেমিস্টোকে বিবাহ করেন, কিন্তু দেখা যায় ইনো জীবিত আছেন, এবং তিনি মায়েনাডদের সাথে পারনাসাস পর্বতে বাস করছেন। অ্যাথামাস ইনোকে তার গৃহে নিয়ে আসেন কিন্তু তার এই আগমনকে তিনি গোপন রাখেন। কিন্তু থেমিস্টো আবিষ্কার করেন যে ইনো ফিরে এসেছেন, এবং এর প্রতিশোধ নেবার জন্য তিনি ইনোর সন্তানদের হত্যা করার সিদ্ধান্ত নেন। কিন্তু তিনি জানতেন না যে এই ইনো আসলে কে, তিনি ইনোকে দেখার পর তাকে নিজের ভৃত্যা হিসেবে নিয়োগ দেন, এবং তাকে তার নিজের সন্তানদেরকে সাদা পোশাক পরাতে ও ইনোর সন্তানদেরকে কালো পোশাক পরাতে বলেন। এরপর থেমিস্টো সবকটা কালো পোশাক পরা শিশুকে হত্যা করেন। কিন্তু থেমিস্টো এটা বুঝতে পারেনি যে ইনো তাদের সন্তানদের পোশাক পরিবর্তন করে ফেলেছিল, আর ফলে থেমিস্টো নিজের সন্তানদেরই হত্যা করেছেন।[৮] এটি আবিষ্কারের পর থেমিস্টো আত্মহত্যা করেন।[৯] স্যুডো-অ্যাপোলোডোরাস অনুসারে, থেমিস্টো ইনোর মৃত্যুর পর অ্যাথামাসকে বিবাহ করেন, এবং শিশুদের হত্যা করার এই ঘটনাটি ঘটেনি।[১০]

ক্যালসিওপির গর্ভে ফ্রিক্সাসের চার পুত্র জন্মলাভ করে (কোন কোন সূত্র অনুসারে পাঁচ)। এই চারজন ছিল আরগুস, ফ্রন্টিস, মেলাসসাইটিসোরাস, যারা স্বর্ণমেষের চামড়া আনার অভিযানে আর্গোনটদের সেনাদলে যোগ দিয়েছিল। এই চারজন ছাড়াও কোন কোন সূত্র অনুসারে ফ্রিক্সাস ও ক্যালসিওপির প্রেসবন নামে আরও একজন পুত্রের কথার উল্লেখ আছে, যার উল্লেখ কখনই পূর্বোক্ত চার ভাই এর সাথে করা হয়নি।[১১] অ্যাথামাসের কোন পুত্রসন্তান অবশিষ্ট না থাকায় তিনি তার ভাই সিসিফাস এর দুই পৌত্র হেলিয়ার্টাস ও করোনাসকে (সিসিফাসপুত্র থারস্যান্ডারের পুত্র) দত্তক নেন, এবং তাদের হাতে রাজত্ব দিয়ে যান। করোনাস তার প্রাপ্ত অঞ্চলে করোনিয়া নামে একটি নগর প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। প্রেসবন কলচিস থেকে বিওটিয়ায় ফিরে এলে তাকে তার পিতামত অ্যাথামাস এর পালকপুত্র হেলিয়ার্টাসকরোনাস এর থেকে তার রাজত্ব লাভ করেন।[১২] প্রেসবনের পর তার পুত্র ক্লাইমেনাস অরকোমেনাসের রাজা হন।[১৩]  

অ্যাথামাস এর রাজ্যের একটি অংশ ও অ্যাথামাস নিজে উত্তর-পশ্চিম দিকে সরে যায়, এবং এপিরাসের পিন্ডাস পর্বতমালায় স্থান করে নেয়, যাকে অ্যাথামানীয় পর্বতমালা বলা হয়। তাই সেই অঞ্চলের জনগোষ্ঠী আজ অ্যাথামানীয় নামে পরিচিত।

চিত্র[সম্পাদনা]

টীকা[সম্পাদনা]

  1. Pseudo-Apollodorus. Bibliotheca, 1.9.1
  2. Compare Hesiod, Catalogue of Women fr. 10(a)25–6 & Pseudo-Apollodorus. Bibliotheca, 1.7.3
  3. Pseudo-Apollodorus. Bibliotheca, 1.9.1-2
  4. Edmunds, Lowell (২০১৫)। "Early Greek Mythography. Volume 2: Commentary by Robert L. Fowler": 303–304। আইএসএসএন 1558-9234ডিওআই:10.1353/clw.2015.0005 
  5. Bibliotheke i.9.1; "it is possible, however", Kerenyi suggests (The Gods of the Greeks p 264) "that originally she did not cause the seed-corn to be roasted, but introduced the practice of roasting corn in general."
  6. Flying is conventional in modern treatments, but see D. S. Robertson, "The Flight of Phrixus", The Classical Review, Vol. 54, No. 1 (Mar., 1940), pp. 1–8.
  7. Local tradition sited the suckling of Dionysus at Brasiai in Laconia. (Kerenyi 1951:264).
  8. Ovid. Metamorphoses, 4.416
  9. Hyginus, Fabulae, 4; a shorter version in Fab. 1, where the clothing swap is attributed to a nurse's mistake and Ino isn't involved.
  10. Pseudo-Apollodorus, Bibliotheca 1.9.2.
  11. Scholia on Apollonius Rhodius, Argonautica, 2. 1122
  12. Pausanias, Description of Greece, 9. 34. 8
  13. Pausanias, Description of Greece, 9. 37. 1

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

বহিঃস্থ সূত্র[সম্পাদনা]