অপরাধ বিজ্ঞান

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
China, 1875

অপরাধ বিজ্ঞান ( Criminology ) হল অপরাধের কারণ, প্রভাব, অপরাধীর চরিত্র, বিষয় বিবেচনা, প্রতিকার বা নিয়ন্ত্রনের সামাজিক, বিজ্ঞানভিত্তিক অনুশীলন। অপরাধ বিজ্ঞান সব ধরনের অপরাধের প্রকৃতি, পরিধি ও বিজ্ঞানভিত্তিক পদ্ধতিতে অপরাধ সংক্রান্ত গবেষনার ফলাফলসমূহকে সমন্বয় সাধন এবং পর্যালোচনা করে থাকে।[১][২]

আলোচ্য বিষয়[সম্পাদনা]

১) অপরাধের প্রকৃতি ২) অপরাধ প্রবণতার কারণ ৩) অপরাধ সংক্রান্ত আইন ও বিচার ব্যবস্থা ৪) অপরাধীর চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য ৫) সংশোধনের পদ্ধতি ও শাস্তি ৬) সমাজে অপরাধীর প্রভাব।

শাখাসমূহ[সম্পাদনা]

অপরাধতত্ত্ববিদ বঙ্গার অপরাধবিজ্ঞানকে ৫টি শাখায় ভাগ করেছেন। ১) নৃতাত্ত্বিক ২) সামাজিক ৩) মনস্তাত্ত্বিক ৪) অসুস্থতা ভিত্তিক এবং ৫) শাস্তিদাননীতি।[২]

মার্ক্সবাদী তত্ব[সম্পাদনা]

নারীবাদী তত্ব[সম্পাদনা]

সমাজবাদী তত্ব[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "What Is Criminology?"। Study.com। সংগৃহীত ২৯.০১.১৭ 
  2. Criminology and Penology, N.V. Paranjape (১৯৯৬)। Nature and scope of criminology। Allahabad: central law publication। পৃ: 15। আইএসবিএন 978-81-908613-0-4