অগ্নি (চলচ্চিত্র)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
অগ্নি
অগ্নির পোস্টার.jpg
অগ্নির পোস্টার
পরিচালকইফতেখার চৌধুরী
প্রযোজকআব্দুল আজিজ
রচয়িতাআবদুল্লাহ জহির বাবু
শ্রেষ্ঠাংশে
সম্পাদকতৌহিদ হোসেইন চৌধুরী
প্রযোজনা
কোম্পানি
পরিবেশকজাজ মাল্টিমিডিয়া
মুক্তি১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৪ (2014-02-14)
দেশবাংলাদেশ
ভাষাবাংলা
নির্মাণব্যয়১.৫ কোটি
আয়২.৫ কোটি[১]

অগ্নি ইফতেখার চৌধুরী পরিচালিত ২০১৪ সালের একটি বাংলাদেশী চলচ্চিত্রমাহিয়া মাহী, আরেফিন শুভমিশা সওদাগর এই চলচ্চিত্রে প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন। জাজ মাল্টিমিডিয়া এই চলচ্চিত্র প্রযোজনা করেছে। অগ্নি বাংলাদেশের একটি সর্বোচ্চ বাজেটের চলচ্চিত্র। অগ্নির অক্টোবর ২০১৩ এ মুক্তি থাকার কথা থাকলেও পোস্ট প্রোডাকশন এর কারণে মুক্তির তারিখ পিছিয়ে ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৪ ঠিক করা হয় অগ্নির প্রথম দর্শন ১৭ অক্টোবর ফেসবুক-এ মুক্তি দেয়া হয় এবং প্রথম দিনে ২ লক্ষের বেশি বার দেখা হয়, বাংলা চলচ্চিত্রর ইতিহাসে সর্বোচ্চ। অগ্নির পূর্ণ ট্রেইলার ফেসবুকে ১ ডিসেম্বর মুক্তি দেয়া হয় এবং ট্রেইলার ১০ লক্ষ বার এর মত দেখা হয় (প্রথম সপ্তাহে)। অগ্নি পুরোপুরি থাইলান্ডে চিত্রায়ন করা হয়েছে, অগ্নির ট্রেইলার সামাজিক যোগাযোগ সাইটগুলোতে প্রবল প্রতিক্রিয়া পায়। অগ্নি ২০১১ সালের ফরাসি [২] অ্যাকশন চলচ্চিত্র "কলোম্বিয়ানা"-এর পুনঃনির্মাণ।

কাহিনী সংক্ষেপ[সম্পাদনা]

তানিশা (মাহিয়া মাহী) থাইল্যান্ডে ছদ্মবেশী হত্যাকারী, যে আন্ডারওয়ার্ল্ডের বড় অপরাধীদের হত্যা করে, তানিশাকে থাইল্যান্ডের সবাই "দা কিলার ওয়ান" বলে জানে কিন্তু কেউ তাকে চেনে না। আইনাল (মিশা সদাগর), থাইল্যান্ডের সবচেয়ে বড় আন্ডারওয়ার্ল্ড ডন। আইনাল তানিশাকে মেরে ফেলার সিদ্ধান্ত নেয়। ড্রাগণ (আরেফিন শুভ) থাইল্যান্ডের সবচেয়ে দু:সাহসী ফাইটার, ৩ বার ওয়ার্ল্ড বক্সিং চ্যাম্পিয়ন। আইনাল তানিশাকে মারার মিশন দিয়ে ড্রাগনকে পাঠায়, মিশনের মাঝে ড্রাগণ একটি মেয়ের প্রেমে পরে কিন্তু পরে জানতে পায় তার প্রেমিকা হচ্ছে তানিশা।

অভিনয়[সম্পাদনা]

নির্মাণ[সম্পাদনা]

শুটিং[সম্পাদনা]

চলচ্চিত্রটি শুটিং শুরুর আগ থেকেই মিডিয়া জগতে ব্যাপক আলোড়ন সৃষ্টি করে। চলচ্চিত্রটির প্রধান ফটোশুট ২৯ অগাস্টে শুরু হয়। প্রোডাকশন হাউস জাজ মাল্টিমিডিয়া এবং অভিনেতা আরেফিন শুভ চলচ্চিত্রটি ২০১৩ ঈদে মুক্তি দেয়ার ইচ্ছা থাকলেও পোস্ট প্রোডাকশনের জন্যে মুক্তির দিন পরিবর্তন করে ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৪ তে নির্ধারণ করা হয়। চলচ্চিত্রের জন্য পুরো শুটিং ইউনিট ২ মাস থাইল্যান্ডে শুটিং করে। চলচ্চিত্রটি পুরোপরি একটি অ্যাকশন থ্রিলার চলচ্চিত্রের একটি স্টান্ট করতে আরেফিন শুভ গুরুতর আহত হয়, অস্ত্রোপ্রচারের পর তিনি আবার শুটিং-এ যোগ দেন।

অভিনয়[সম্পাদনা]

আরেফিন শুভ এবং মাহিয়া মাহীকে জাজ মাল্টিমিডিয়া প্রধান চরিত্রে সাইন করায়। এছাড়া মিশা সওদাগর এবং আলীরাজকে খলনায়ক চরিত্রে নেয়া হয়। আরেফিন শুভ এবং মাহিয়া মাহীকে অ্যাকশন দৃশ্যের জন্য বিশেষ ট্রেনিং দেয়া হয়। আরেফিন শুভ একটি ইন্টারভিউতে বলেছেন, অগ্নি তার ক্যারিয়ারের সবচেয়ে কঠিন চরিত্র।

শ্যুটিং এবং স্থান[সম্পাদনা]

অগ্নির পুরো চিত্রায়ন করা হয়েছে থাইল্যান্ডের ব্যাংককে[৩]

ব্যয়[সম্পাদনা]

সব মিলিয়ে সর্বমোট ১.৫ কোটি টাকা খরচ করে অগ্নি নির্মাণ করা হয়েছে। চলচ্চিত্রটিতে ডলবি ডিজিটাল সাউন্ড ব্যবহার করা হয়েছে। জাজ মাল্টিমিডিয়া ছবিটি প্রথম দিনে ৯২ টি সিনেমা হলে মুক্তি দেয়ার অনুমোদন দিয়েছে। সর্বমোট ২৮০ টি স্পেশাল এফেক্টস দৃশ্য ধারণ করা হয়েছে এই চলচ্চিত্রটিতে।

সঙ্গীত[সম্পাদনা]

অগ্নি গানের অ্যালবাম ১০ টি গান নিয়ে গঠিত, সঙ্গীত পরিচালনা করেছেন আদিত, শফিক তুহিন এবং আহমেদ হুমায়ুন। গান গেয়েছেন দিলশাদ নাহার কনা, মিলা, লেমিস, লাবণ্য, বলিউডের গায়ক শান, এবং নীতি মোহন। ছবির টাইটেল গান "সহেনা যাতনা" গেয়েছেন আরেফিন শুভ।

সঙ্গীত[সম্পাদনা]

অগ্নি
আরেফিন শুভ, শান, নীতি মোহন, মিলা, কনা, লেমিস, লাবণ্য কর্তৃক অ্যালবাম
মুক্তির তারিখ৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৪
শব্দধারণের সময়২০১৩
ঘরানাচলচ্চিত্রের গান
সঙ্গীত প্রকাশনীজাজ মাল্টিমিডিয়া
প্রযোজকশিষ মনোয়ার

গানের তালিকা[সম্পাদনা]

নং.শিরোনামকণ্ঠশিল্পী(গণ)দৈর্ঘ্য
১."সহেনা যাতনা"আরিফিন শুভ, দিলশাদ নাহার কনা 
২."ভালবাসি তোকে"শান 
৩."নেশায় নেশায়"নীতি মোহন 
৪."অগ্নি"লেমিস 
৫."শ্রাবণের মেঘ"দোলা 

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. [১]. ManabZamin
  2. https://en.m.wikipedia.org/wiki/Colombiana
  3. "Agnee Releasing on Valentines Day"। Amardesh। সংগ্রহের তারিখ ১৪ ডিসেম্বর ২০১৪ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]