হাঙ্গেরির ভূগোল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
হাঙ্গেরির ভূ-সংস্থানিক মানচিত্র

হাঙ্গেরি কিছুটা ডিম্বাকৃতির। দেশটি পূর্ব-পশ্চিমে সর্বাধিক প্রায় ৫০০ কিলোমিটার এবং উত্তর দক্ষিণে সর্বাধিক প্রায় ৩১৫ কিলোমিটার বিস্তৃত। হাঙ্গেরির উত্তরে স্লোভাকিয়া, উত্তর-পূর্বে ইউক্রেন, পূর্বে রোমানিয়া, দক্ষিণে সার্বিয়া, মন্টেনিগ্রো, ক্রোয়েশিয়াস্লোভেনিয়া, এবং পশ্চিমে অস্ট্রিয়া। হাঙ্গেরির ভূমির মোট আয়তন ৯৩,০৩০ বর্গকিলোমিটার।

প্রাকৃতিক অঞ্চল[সম্পাদনা]

হাঙ্গেরি প্রায় পুরোটাই সমতল ভূমি। দানিউব নদী উত্তর-পশ্চিমে হাঙ্গেরি-স্লোভাকিয়া সীমান্তের কিয়দংশ গঠন করেছে। সেখান থেকে নদীটি দক্ষিণে বুদাপেশ্‌তের মধ্য দিয়ে প্রবাহিত হয়ে হাঙ্গেরিকে দুইটি সাধারণ অঞ্চলে ভাগ করেছে। দানিউবের পূর্ব পাড়ে অবস্থিত অঞ্চলটি একটি নিম্ন, ঢেউখেলানো সমভূমি যা বৃহৎ হাঙ্গেরীয় সমভূমি বা বৃহৎ Alföld নামে পরিচিত। এই সমভূমিটি পূর্বে রোমানিয়াতে এবং দক্ষিণে সার্বিয়া ও মন্টেনিগ্রোতে বিস্তৃত। উত্তর-পশ্চিম হাঙ্গেরিতে অবস্থিত অপেক্ষাকৃত ক্ষুদ্রাকার সমভূমিটির নাম ক্ষুদ্র Alföld এবং এটি স্লোভাকিয়া পর্যন্ত চলে গেছে। বৃহৎ Alföld সমভূমিটি হাঙ্গেরির তিন-চতুর্থাংশ এলাকা গঠন করেছে। এটি পুরোপুরি সমতল নয়। পশ্চিম দিকে এটি বেশ পাহাড়ি আকার ধারণ করেছে। এটি হাঙ্গেরির প্রধান কৃষিভূমি। এখানে ভুট্টা, গম, সূর্যমুখী, মিষ্টি বিট, লাল মরিচ ও অন্যান্য খাদ্যশস্য উৎপাদন করা হয় এবং এখানকার তৃণভূমিতে ভেড়া চরানো হয়। চারণভূমিগুলি puszta নামে পরিচিত। হাঙ্গেরীয় লোকগীতি, নৃত্য ও সাহিত্যে এই pusztaগুলিতে উনিশ শতকের রাখাল ও তাদের গবাদি পশুর পাল নিয়ে অনেক বর্ণনা আছে। ক্ষুদ্র সমভূমিটিও উর্বর এবং এখানে ব্যাপক চাষাবাদ হয়।

সমভূমিগুলিকে পশ্চিম, উত্তর ও পূর্বে দিকে পর্বতের সারি ঘিরে রেখেছে। উত্তর সীমান্তের উচ্চভূমিগুলি Esztergom-এ দানিউব নদীর গিরিখাত থেকে পূর্বে বিস্তৃত হয়েছে এবং মাত্রা পর্বতমালা গঠন করেছে, যা কার্পেথীয় পর্বতমালার একটি অংশ। দানিউবের পশ্চিমের অঞ্চলটি আন্তঃদানিউবিয়া নামে পরিচিত। এখানে উত্তর-পশ্চিমের ক্ষুদ্র সমভূমি ছাড়াও আরও বিভিন্ন ধরনের ভূমিরূপ দেখতে পাওয়া যায়। দক্ষিণে রয়েছে Mecsek পর্বতমালা, উত্তরে অরণ্যাবৃত বাকোনি পর্বতমালা, যার কাছেই রয়েছে বালাতন হ্রদ

নদী ও হ্রদ[সম্পাদনা]

দানিউব নদী হাঙ্গেরির সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ নদী। গোটা হাঙ্গেরিকেই দানিউব নদীর অববাহিকা বলা চলে। দানিউব নদী পশ্চিমে অস্ট্রিয়া থেকে হাঙ্গেরিতে প্রবেশ করেছে এবং উত্তর-পশ্চিমে হাঙ্গেরির সাথে স্লোভাকিয়ার সীমান্ত নির্ধারণ করেছে। বুদাপেশ্‌তের উত্তরে ভাক শহরের কাছে নদীটি দক্ষিণ দিকে খাড়া মোড় নিয়েছে এবং দক্ষিণ দিকে বুদাপেশতের মধ্য দিয়ে প্রবাহিত হয়ে সার্বিয়া ও মন্টেনিগ্রোর দিকে চলে গেছে। হাঙ্গেরির অন্য সব প্রধান নদীই দানিউব নদীর উপনদী। এদের মধ্যে আছে হাঙ্গেরির দীর্ঘতম নদী Tisza, রাবা এবং দ্রাউ নদীগুলি।

বালাতন হ্রদ হাঙ্গেরির প্রধান হ্রদ। এটি গোটা মধ্য ইউরোপের বৃহত্তম হ্রদ। এটি হাঙ্গেরির প্রধান অবকাশযাপন কেন্দ্র ও স্বাস্থ্য স্পা। এর দক্ষিণ তীরের বালুকাময় বেলাভূমিগুলি সুপরিচিত। হ্রদের উত্তর তীরের আঙ্গুরক্ষেতগুলি থেকে হাঙ্গেরির সবচেয়ে ভাল ওয়াইনগুলির কয়েকটি তৈরি হয়। বালাতন হ্রদ অঞ্চলে পশুশিকার খেলা হয়। এখানে অনেক দুর্লভ জলজ পাখি ও মাছ দেখতে পাওয়া যায়। উত্তর-পশ্চিমে অস্ট্রিয়ার সাথে হাঙ্গেরি নয়জিডলার হ্রদটির অংশীদার।