শতাব্দী রায়

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
শতাব্দী রায়
Satabdi Roy
দায়িত্ব
অধিকৃত অফিস
২২ মে ২০০৯
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্ম (১৯৬৯-১০-০৫) ৫ অক্টোবর ১৯৬৯ (বয়স ৪৪)
কলকাতা, পশ্চিম বঙ্গ
জাতীয়তা ভারতীয়
রাজনৈতিক দল সর্বভারতীয় তৃণমূল কংগ্রেস
বাসস্থান কলকাতা
জীবিকা অভিনেত্রী/রাজনীতিবিদ
ধর্ম হিন্দু

শতাব্দী রায় (ইংরেজি: Satabdi Roy; জন্ম ৫ অক্টোবর ১৯৬৮),[১] ভারতীয় সাধারণ নির্বাচনে পশ্চিম বঙ্গের[২] বীরভূম[৩] থেকে সর্বভারতীয় তৃণমূল কংগ্রেস দল থেকে ২০০৯ সালে সংসদ সদস্য হন। তিনি ভারতের বাংলা চলচ্চিত্র শিল্পের একজন অভিনেত্রী, পরিচালক এবং অভিনয় প্রশিক্ষক ছিলেন। এর সাথে তিনি বাংলা সাহিত্যের একজন প্রকাশিত কবিও ছিলেন। সংসদ সদস্য হিসেবে তিনি এখন আলোচনা সভা এবং রাজনৈতিক পরিদর্শনের ব্যস্ত থাকেন। তার নির্বাচনী এজেন্ডাগুলো হল; তার নিজ এলাকার রাস্তা, বিদ্যুৎ, হাসপাতাল এবং বিদ্যালয়ের ধরন পরিবর্তন।

পুরস্কার[সম্পাদনা]

রায় ২০০৫ সালে দেবীপক্ষ সিনেমায় অভিনয়ের জন্য বাংলা চলচ্চিত্র সাংবাদিক সহ-অভিনেত্রী পুরস্কার অর্জন করে।[৪][৫]

শৈশব[সম্পাদনা]

তিনি ১৯৬৮ সালের ৫ অক্টোবর আগারপাড়ায় শাইলেন এবং নীলিমা রায়ের পরিবারে জমগ্রহণ করেন। শতাব্দী রায় সরোজিনী উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ১৯৮৫ সালে মাধ্যমিক পড়া সম্পন্ন করেন এবং তারপর তিনি কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় অনুমোদিত মহিলা কলেজ “যোগমায়া দেবী কলেজে” ভর্তি হন।

চলচ্চিত্র ক্যারিয়ার এবং শৈশব জীবন[সম্পাদনা]

রায়ের “আতঙ্ক” নামের সিনেমার মাধ্যমে চলচ্চিত্র জগতে অভিষেক ঘটে, এই ছবির পরিচালক ছিলেন তপন সিন্‌হা এবং এই সিনেমাটি মুক্তি পায় ১৯৮৬ সালে (এর পূর্বে তিনি দিনেন দাসগুপ্ত পরিচালিত “টিনা” নামক একটি সিনেমায় অভিনয় করেন, যা মুক্তি পায় নি)। এর পরবর্তীতে তিনি একটি কল্পবিজ্ঞান নির্ভর চলচ্চিত্র “ফ্রেন্ড” সিনেমার পরিচালনা ও অভিনয় করেন, যা মুক্তি পায় ২০০৯ সালে। সংসদ সদস্য শতাব্দী রায় বর্তমানে বর্তমানের একটি জনপ্রিয় প্রতিষ্ঠান সারধা গ্রুপের ব্রান্ড অ্যাম্বাসেডর। তিনি তার অবসর সময়ে তার নিজের অভিনয়ের শিক্ষালয় “শতাব্দী ফাউন্ডেশন” এ অভিনয় শেখান অথবা তার ছেলে সাম্যরাজ (তোজো) এবং মৃগাঙ্ক বন্ধোপাধ্যায়ের সাথে সময় কাটান। তার স্বামী একজন মার্কেটিং এক্সেকিউটিভ।[৬]

চলচ্চিত্র[সম্পাদনা]

  • ফাইট ১:১ (২০১১)
  • ধাকী (২০০৯)
  • ফ্রেন্ড (২০০৯)
  • বিয়ের লগ্ন (২০০৮)
  • টলি লাইটস (২০০৮)
  • অভিনেত্রী (২০০৬)
  • দীর্ঘমান (২০০৫)
  • নিশাচর (২০০৫)
  • দেবীপক্ষ (২০০৪)
  • চোর ও ভগবান (২০০৩)
  • দেবীপূজা (২০০৩)
  • জুয়া (২০০৩)
  • সুখ দুঃখের সংসার (২০০৩)
  • আমি জীবনপুরের পথিক (২০০১)
  • ভালবাসা কি আগে বুঝি নি (২০০১)
  • বিধাতার খেলা (২০০১)
  • ক্যান্সার (২০০১)
  • এটাই স্বর্গ (২০০১)
  • জনক জননী (২০০১)
  • নদী পাড়ে আমার বাড়ি (২০০১)
  • শেষ বিচার (২০০১)
  • শ্রীমতি ভয়ঙ্করী (২০০১)
  • দাবী (২০০০)
  • দিদি আমার মা (২০০০)
  • কলঙ্কিনী বধু (২০০০)
  • পিতা স্বর্গ পিতা ধর্ম (২০০০)
  • রুপসী দোহাই তোমার (২০০০)
  • সজনী আমার সোহাগ (২০০০)
  • শত্রুতা (২০০০)
  • শপথ নিলাম (২০০০)
  • ত্রিশূল (২০০০)
  • গরীবের রাজা রবীনহুড (১৯৯৯)
  • গুন্ডা (১৯৯৯)
  • যুগবতার লোকনাথ (১৯৯৯)
  • কৃষ্ণ কভেরী (১৯৯৯)
  • অপরাজিতা (১৯৯৮)
  • আসল নকল (১৯৯৮)
  • জীবন তৃষ্ণা (১৯৯৮)
  • কমলার বনবাস (১৯৯৮)
  • পুত্রবধু (১৯৯৮)
  • রাজা রাণী বাদশাহ্‌ (১৯৯৮)
  • রণক্ষেত্র (১৯৯৮)
  • শিমুল পারুল (১৯৯৮)
  • শ্রীমান ৪২০ (১৯৯৮)
  • স্বামীর আদেশ (১৯৯৮)
  • অভিশপ্ত প্রেম (১৯৯৭)
  • আজকের সন্তান (১৯৯৭)
  • বহুরুপা (১৯৯৭)
  • বকুল প্রিয়া (১৯৯৭)
  • বিদ্রোহ (১৯৯৭)
  • চন্দ্রগ্রহণ (১৯৯৭)
  • মায়ার বাধন (১৯৯৭)
  • প্রতিরোধ (১৯৯৭)
  • সর্বজয়া (১৯৯৭)
  • জামায়বাবু (১৯৯৬)
  • জয় বিজয় (১৯৯৬)
  • সখী তুমি কার (১৯৯৬)
  • সিঁথির সিধুর (১৯৯৬)
  • ত্রিধারা (১৯৯৬)
  • আবির্ভাব (১৯৯৫)
  • বৌমণি (১৯৯৫)
  • কুমারী মা (১৯৯৫)
  • মশাল (১৯৯৫)
  • প্রতিধ্বনি (১৯৯৫)
  • সংসার সংগ্রাম (১৯৯৫)
  • শেষ প্রতিক্ষা (১৯৯৫)
  • সুখের আশা (১৯৯৫)
  • অজানা পথ (১৯৯৪)
  • বিদ্রোহিণী (১৯৯৪)
  • কালপুরুষ (১৯৯৪)
  • লাল পান বিবি (১৯৯৪)
  • নাগিয়্যতি (১৯৯৪)
  • ফিরিয়ে দাও (১৯৯৪)
  • তুমি যে আমার (১৯৯৪)
  • অর্জুন (১৯৯৩)
  • ঘর সংসার (১৯৯৩)
  • কন্যাদান (১৯৯৩)
  • মান সম্মান (১৯৯৩)
  • প্রজাপতি (১৯৯৩)
  • প্রথমা (১৯৯৩)
  • প্রেমী (১৯৯৩)
  • শক্তি (১৯৯৩)
  • শ্রদ্ধাঞ্জলী (১৯৯৩)
  • সুখের স্বর্গ (১৯৯৩)
  • অধিকার (১৯৯২)
  • অন্তর্ধান (১৯৯২)
  • ধর্ম যুদ্ধ (১৯৯২)
  • মা (১৯৯২)
  • মনিকাঞ্চন (১৯৯২)
  • নতুন সংসার (১৯৯২)
  • পেন্নাম কলকাতা (১৯৯২)
  • শয়তান (১৯৯২)
  • আমার সাথী (১৯৯১)
  • বিধির বিধান (১৯৯১)
  • মান মর্যাদা (১৯৯১)
  • নয়া যাহের (১৯৯১)
  • প্রেম পুজারী (১৯৯১)
  • অভিমন্যু (১৯৯০)
  • আবিষ্কার (১৯৯০)
  • আলিঙ্গন (১৯৯০)
  • অনুরাগ (১৯৯০)
  • আপন আমার আপন (১৯৯০)
  • ভাঙা-গড়া (১৯৯০)
  • চেতনা (১৯৯০)
  • ঘড়ের বউ (১৯৯০)
  • কলঙ্ক (১৯৯০)
  • রক্ত ঋণ (১৯৯০)
  • আমার শপথ (১৯৮৯)
  • অগ্নিতৃষ্ণা (১৯৮৯)
  • আমানত (১৯৮৯)
  • আঙ্গার (১৯৮৯)
  • বিদায় (১৯৮৯)
  • বন্ধিনী (১৯৮৯)
  • জজ সাহেব (১৯৮৯)
  • মহাপিঠ তারাপিঠ (১৯৮৯)
  • মঙ্গলদ্বীপ (১৯৮৯)
  • মারইয়াদা (১৯৮৯)
  • মনে মনে (১৯৮৯)
  • মণিমালা (১৯৮৯)
  • শত্রুপক্ষ (১৯৮৯)
  • শ্রীমতি হংসিরাজ (১৯৮৯)
  • আঘাত (১৯৮৮)
  • অগ্নিসংকেত (১৯৮৮)
  • অন্তরঙ্গ (১৯৮৮)
  • ছন্নছাড়া (১৯৮৮)
  • দেনা পাওনা (১৯৮৮)
  • মা এক মন্দির (১৯৮৮)
  • পরশমণি (১৯৮৮)
  • পুনর্মিলন (১৯৮৮)
  • শুধু তোমারী (১৯৮৮)
  • একান্ত আপন (১৯৮৭)
  • গুরুদক্ষিণা (১৯৮৭)
  • নিজ অধিকার (১৯৮৭)
  • প্রতিভা (১৯৮৭)
  • প্রতিকার (১৯৮৭)
  • আমার বন্ধন (১৯৮৭)
  • আতঙ্ক (১৯৮৭)
  • বৌমা (১৯৮৭)

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Detailed Profile: Smt. Satabdi Roy"। Indian Government। সংগৃহীত 23 May 2012 
  2. [১] 'Shatabdi Takes to Playing Teacher' by Chandrima S. Bhattacharya, Calcutta Telegraph, 6 May 2009
  3. S.Saha। "Satabdi Roy -Political Profile,Contact, Blogs, News, Address"। westbengalelectionresult.com। 
  4. "IndiaDaily"। IndiaDaily। সংগৃহীত 2012-08-25 
  5. The Telegraph (Calcutta, India) http://www.telegraphindia.com/1050820/asp/weekend/story_51111640.asp |url= শিরোনাম অনুপস্থিত (সাহায্য) [অকার্যকর সংযোগ]
  6. [২] The Telegraph - Calcutta : Weekend

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

টেমপ্লেট:Fifteenth Lok Sabha, West Bengal