২০১৯ সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ চ্যাম্পিয়নশিপ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
২০১৯ সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ চ্যাম্পিয়নশিপ
প্রতিযোগিতার বিবরণ
স্বাগতিক দেশভারত
তারিখ২১-৩০ আগস্ট ২০১৯
দল৫ (১টি কনফেডারেশন থেকে)
ভেন্যু১ (কল্যাণীটি আয়োজক শহরে)
চূড়ান্ত অবস্থান
চ্যাম্পিয়ন ভারত ( ৩য় শিরোপা)
রানার-আপ   নেপাল
তৃতীয় স্থান বাংলাদেশ
চতুর্থ স্থান শ্রীলঙ্কা
পরিসংখ্যান
ম্যাচ খেলেছে১১
গোল সংখ্যা৬০ (ম্যাচ প্রতি ৫.৪৫টি)
উপস্থিতি৩৫,৬৯০ (ম্যাচ প্রতি ৩,২৪৫ জন)
শীর্ষ গোলদাতাভারত Himanshu Jangra
(7 Goals)
সেরা খেলোয়াড়ভারত Himanshu Jangra
ফেয়ার প্লে পুরষ্কার বাংলাদেশ
সর্বশেষ হালনাগাদ: ৩১ আগস্ট ২০১৯

২০১৯ সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ চ্যাম্পিয়নশিপ হল সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ চ্যাম্পিয়নশিপের ৬ষ্ঠ আসর, যা সাফ কর্তৃক দক্ষিণ এশিয়ার অনূর্ধ্ব-১৫ জাতীয় পুরুষ দলসমূহের জন্য প্রতি বছর আয়োজিত হয়। প্রতিযোগিতার এবারের আসরটি ২০১৯ সালের ২১ থেকে ৩০ আগস্ট ভারতে নদীয়া জেলার কল্যাণী শহরে অনুষ্ঠিত হয়।

বাংলাদেশ পূর্ববর্তী চ্যাম্পিয়ন হিসেবে অংশগ্রহণ করে। ২০১৮ সালে নেপালে অনুষ্ঠিত আসরে বাংলাদেশ পাকিস্তানকে ১(৩)-১(২) পেলান্টি গোলে পরাজিত করেছিল।

খেলোয়াড়[সম্পাদনা]

১লা জানুয়ারি ২০০৪ সালে বা তার পরে জন্মগ্রহণ করা খেলোয়াড়রা প্রতিযোগিতায় অংশ নেওয়ার যোগ্য বলে বিবেচিত হয়। প্রতিটি দলকে ন্যূনতম ১৮ জন খেলোয়াড় এবং সর্বোচ্চ ২৩ জন খেলোয়াড়ের একটি দল নিবন্ধ করতে হবে, যাদের মধ্যে ন্যূনতম তিনজনকে গোলরক্ষক থাকতে হবে।

অংশগ্রহনকারী দলসমূহ[সম্পাদনা]

প্রতিযোগিতায় প্রতিদন্ধীতা করার জন্য পাকিস্তান তাদের প্রবেশিকা প্রেরণ করেছিল এবং তাদের গ্রুপ-এ স্থান দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু পরে তাদের ফেডারেশনে কিছু অভ্যন্তরীণ সমস্যার কারণে তা প্রত্যাহার করে নেয়।[১]

দল সাফ অনূর্ধ্ব-১৬ চ্যাম্পিয়নশিপে
উপস্থিতি
পূর্বের সেরা উপস্থিতি
 বাংলাদেশ ৬ষ্ঠ চ্যাম্পিয়ন (২০১৫), (২০১৮)
 ভুটান ৪র্থ চতুর্থ স্থান
 ভারত (স্বাগতিক) ৬ষ্ঠ চ্যাম্পিয়ন (২০১৩, ২০১৭, ২০১৯)
   নেপাল ৬ষ্ঠ রানার্স আপ (২০১৩, ২০১৭)
 শ্রীলঙ্কা ৫ম গ্রুপ পর্ব

খেলা পরিচালনাকারী[সম্পাদনা]

মাঠ[সম্পাদনা]

কল্যাণী
কল্যাণী স্টেডিয়াম
২২°৫২′৫৯″ উত্তর ৮৮°৪৫′৩৪.০৭″ পূর্ব / ২২.৮৮৩০৬° উত্তর ৮৮.৭৫৯৪৬৩৯° পূর্ব / 22.88306; 88.7594639 (Ahmedabad)
ধারণক্ষমতা: ২০,০০০

গ্রুপ পর্ব[সম্পাদনা]

পাঁচটি দল নিয়ে রাউন্ড রবিন পদ্ধতিতে খেলা অনুষ্ঠিত হয় এবং শীর্ষ দুইটি দল ফাইনালে উঠে।

  • সকল খেলা ভারতের কল্যাণীতে অনুষ্ঠিত হয়।
  • খেলাগুলো সেখানের স্থানীয় সময়(ইউটিসি+০৫:৩০) অনুযায়ী শুরু হয়।
গ্রুপ টেবিলে রঙের চাবিকাঠি
ফাইনালে উঠেছে
অব দল খে ড্র হা স্বগো বিগো গোপা পয়েন্ট অবস্থা
 ভারত (H, C) ২৮ +২৮ ১৫ ফাইনালে উঠেছে
   নেপাল (Q) ১১ ১৩ −২
 বাংলাদেশ (E) ১৩ ১১ +২
 শ্রীলঙ্কা (E) ১৬ −১২
 ভুটান (E) ২০ −১৬
৩১ আগস্ট ২০১৯ তারিখের ম্যাচ খেলা শেষের পর হালনাগাদকৃত। উৎস: SAFF
শ্রেণীবিভাগের নিয়মাবলী: 1) পয়েন্ট; 2) হেড টু হেড পয়েন্ট; 3) হেড টু হেড গোল পার্থক্য; 4) গোল পার্থক্য; 5) গোলস্কোরের নাম্বার;
(C) চ্যাম্পিয়ন; (E) বাদ; (H) স্বাগতিক; (Q) টুর্নামেন্টের নির্দেশিত পর্যায়ে যাওয়ার উপযুক্ত।

নেপাল   ০−৫ ভারত
প্রতিবেদন
দর্শক সংখ্যা: ৫,৬০০
রেফারি: K.L.S. Chaturanga (শ্রীলঙ্কা)

শ্রীলঙ্কা ৩–২ ভুটান
প্রতিবেদন
দর্শক সংখ্যা: ১,৮৪০
রেফারি: ভুবন তরফদার (বাংলাদেশ)

ভুটান ২−৫ বাংলাদেশ
প্রতিবেদন
দর্শক সংখ্যা: ২,৮৯০ y
রেফারি: নবিন্দ্রা মহজন (নেপাল)

নেপাল   ২−০ শ্রীলঙ্কা
প্রতিবেদন
দর্শক সংখ্যা: ৩,২১০
রেফারি: বিনয় সুবর্ণ (ভারত)

বাংলাদেশ ৭−১ শ্রীলঙ্কা
প্রতিবেদন
দর্শক সংখ্যা: ২,০০০
রেফারি: উজিয়েন পিঞ্জর (ভুটান)

ভারত ৭−০ ভুটান
প্রতিবেদন
দর্শক সংখ্যা: ৩,৪৫০
রেফারি: ভুবন তরফদার (বাংলাদেশ)

ভারত ৫–০ শ্রীলঙ্কা
প্রতিবেদন
দর্শক সংখ্যা: ৩,৫০০
রেফারি: নবিন্দ্র মহাজন (নেপাল)

বাংলাদেশ ১–৪   নেপাল
প্রতিবেদন
দর্শক সংখ্যা: ১,৮০০
রেফারি: বিনয় সুবর্ণ (ভারত)

ভুটান ০–৬   নেপাল
প্রতিবেদন
দর্শক সংখ্যা: ৩,৬০০
রেফারি: বিনম সুবর্ণ (ভারত)

বাংলাদেশ ০–৪ ভারত
প্রতিবেদন
দর্শক সংখ্যা: ৩০০০
রেফারি: কে এল এস চাতুরাঙ্গা (শ্রীলঙ্কা)

ফাইনাল[সম্পাদনা]

ভারত ৭−০   নেপাল
প্রতিবেদন
দর্শক সংখ্যা: ৪,৮০০
রেফারি: ভুবন তরফদার (বাংলাদেশ)

বিজয়ী[সম্পাদনা]

 ২০১৯ সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ চ্যাম্পিয়নশিপ 

ভারত
৩য় শিরোপা

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Pakistan pulls out of SAFF event due to internal issues"Times of India। ২৬ আগস্ট ২০১৯। 
  2. "Pictures of the officials during 2019 SAFF U15 in India"। ২১ আগস্ট ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ২১ আগস্ট ২০১৯