হেল'স এঞ্জেল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
হেল'স এঞ্জেল
Hell's Angel – Mother Teresa of Calcutta.png
পরিচালকজেনি মরগান
প্রযোজকতারিক আলি
রচয়িতাক্রিস্টোফার হিচেন্স ও তারিক আলি
দেশযুক্তরাজ্য
ভাষাইংরেজি

হেল'স এঞ্জেল (ইংরেজি : Hell's Angel; বাংলা: নরকের দেবদূত) হল ক্যাথলিক ধর্মপ্রচারক মাদার টেরিজার জীবন ও কর্ম উপজীব্য করে নির্মিত একটি প্রামান্যতথ্যচিত্র যা ১৯৯৪ সালে চ্যানেল ৪-এ প্রথম প্রচারিত হয়। তথ্যচিত্রটির ধারাভাষ্যকার ক্রিস্টোফার হিচেন্স, পরিচালক জেনি মরগান, প্রযোজক তারিক আলি। হিচেন্স ও আলি যৌথভাবে তথ্যচিত্রটির চিত্রনাট্য রচনা করেন।[১][২]

তথ্যচিত্রটিতে টেরিজার সমালোচনা করে হিচেন্স বলেন যে টেরিজা গরিব-মিসকিনদের দুঃখদুর্দশাকে ঈশ্বর প্রণীত কপালের লিখন বলে মেনে নিতে বলেন এবং তাদের তিনি মানহীন, অনিরাপদ, ও অকার্যকর চিকিৎসা সেবা দিতে নানা ধরনের নৈতিকতাবিবর্জিত ব্যক্তির কাছ থেকে অর্থ গ্রহণ করেছেন।

পরবর্তীতে এই তথ্যচিত্রের ভিত্তিতে হিচেন্স দ্য মিশনারি পজিশন: মাদার টেরিজা ইন থিওরি অ্যান্ড প্র্যাকটিস (১৯৯৫) শিরোনামে একটি গ্রন্থ রচনা করেন।

পটভূমি[সম্পাদনা]

টেরিজাকে নিয়ে গণমাধ্যমের প্রশ্নহীন স্থুল স্তুতিপূর্ণ প্রচারণার একটি জবাব হেল'স এঞ্জেল। গণমাধ্যমের হুজুগ সম্পর্কে তথ্যচিত্রটি বলে, গণমাধ্যমের স্থুল হুজুগ ও মধ্যযুগীয় কুসংস্কারের ধর্মচ্যুত অশৌচ এই মেলবন্ধন টেরিজার এমন এক ভাবমূর্তি তৈরি করেছে যা কেউ প্রশ্নবিদ্ধ করছে না।[৩]:৩:৩৮[৪]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "BBC Politics 97: Mother Teresa Dies"BBC। BBC। ১৯৯৭। সংগ্রহের তারিখ ২৯ জানুয়ারি ২০১৭ 
  2. "Seeker of Souls"Time। Time, Inc.। ২৪ জুন ২০০১। সংগ্রহের তারিখ ২৯ জানুয়ারি ২০১৭ 
  3. Morgan, Jenny (Director) (১৯৯৪)। Hell's Angel: Mother Teresa of Calcutta। Channel 4। সংগ্রহের তারিখ ২৭ জানুয়ারি ২০১৭ 
  4. Schultz, Kai (২৬ আগস্ট ২০১৬)। "A Critic's Lonely Quest: Revealing the Whole Truth About Mother Teresa"The New York Times। The New York Times Company। সংগ্রহের তারিখ ২৭ জানুয়ারি ২০১৭ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]