হিরোয়ুকি মাতসুসিতা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
হিরো মাতসুসিতা
ヒロ 松下 উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
জন্মহিরোয়ুকি মাতসুসিতা
(1961-03-14) ১৪ মার্চ ১৯৬১ (বয়স ৬২)[১]
নিশিনোমিয়া, জাপান
মাতৃশিক্ষায়তনকোনান বিশ্ববিদ্যালয়
পেশালুয়া ত্রুটি package.lua এর 80 নং লাইনে: module 'Module:GetParameters' not found।
উচ্চতা৫' ৯" (১.৭৫ ম)
উপাধি
[২]
দাম্পত্য সঙ্গীমিৎসুকো মাতসুসিতা
সন্তান1
আত্মীয়কোনোসুকে মাতসুসিতা (দাদা)
মাসাহারু মাতসুসিতা(বাবা)
মাসায়ুকি মাতসুসিতা (পূর্বজ)
স্বাক্ষর

হিরোয়ুকি মাতসুসিতা (ヒロ 松下|Hiro Matsushita) চ্যাম্প কার এবং ফর্মুলা আটলান্টিক সিরিজের প্রাক্তন চালক যিনি টয়োটা আটলান্টিক চ্যাম্পিয়নশিপ জিতেছেন ১৯৮৯ সালে প্রথম এবং একমাত্র জাপানি ড্রাইভার হিসাবে।[৩] তিনি কোনোসুকে মাতসুসিতা, প্যানাসনিক এর প্রতিষ্ঠাতার নাতি এবং মাসাহারু মাতসুসিতা এর পুত্র, যিনি ১৯৬১ সাল থেকে ষোল বছর ধরে প্যানাসনিক এর দ্বিতীয় সভাপতি হিসাবে দায়িত্ব পালন করেছিলেন।

রেসিং ক্যারিয়ার[সম্পাদনা]

১৯৯১ সালে হিরো মাতসুসিতা

মাতসুসিতা কার রেসিং করার আগে ১৯৭৭ থেকে ১৯৭৯ এর মধ্যে জাপানে মোটরসাইকেলের রেসিং শুরু করেছিলেন। প্যানাসনিকের সহায়তায় তিনি যুক্তরাষ্ট্রে চলে আসেন এবং ১৯৮৬ সালে তিনি প্রথম ফর্মুলা ফোর্ড রেসে প্রবেশ করেন। তিনি ডেটোনার ২৪ ঘণ্টা এবং দ্বিতীয়বার ১৯৮৮ সালে সেব্রিং ১২ ঘণ্টায় দ্বিতীয় স্থান অর্জন করেছিলেন। মাতসুশিটা ১৯৮৯ সালে টয়োটা আটলান্টিক চ্যাম্পিয়নশিপ (প্যাসিফিক বিভাগ) সর্বকালের বৃহত্তম পয়েন্ট মার্জিনের সাথে জয়ের মাধ্যমে নিজের নামটি পরিচিত করতে শুরু করেছিলেন।

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

মাতসুসিতা ২০০১ সালে রেসিং জীবনকে বিদায় দেন. তার পরিবার ১৯৯০ সালে যুক্তরাষ্ট্রে মাতসুসিতা ইন্টারন্যাশনাল কর্পোরেশন প্রতিষ্ঠা করেন এবং ২০০১ সাল থেকে তিনি যুক্তরাষ্ট্রের পারিবারিক ব্যাবসা গুলো দেখাশোনা করে আসছেন। মাতসুসিতা ইন্টারন্যাশনাল কর্পোরেশন ১৯৯১ সালে স্বনামধন্য রেস কার এর মেকার সুইফট কার কে কিনে নেন. মাতসুসিতা সুইফট চেয়ারম্যান হওয়ার পর তিনি কোম্পানির নাম সুইফট কার থেকে সুইফট ইঞ্জিনিয়ারিং এ পরিবর্তন করেন। সুইফট ইঞ্জিনিয়ারিং হচ্ছে একটি আমেরিকান ইঞ্জিনিয়ারিং প্রতিষ্ঠান। এটি মনুষ্যবিহীন আকাশযান, হেলিকপ্টার, সাবমেরিন, মহাকাশযান, মহাশূন্যযান, নভোযান, রোবোটিক এর নকশা এবং ম্যানুফ্যাকচারিং করে।

মাতসুসিতা এখন ক্যালিফোর্নিয়া এ বসবাস করেন।

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]