স্পৃহা জোশী

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
স্পৃহা জোশী
Spruha Joshi.jpg
জন্ম
স্পৃহা জোশী

(1989-10-13) ১৩ অক্টোবর ১৯৮৯ (বয়স ৩১)
জাতীয়তাভারতীয়
পেশাঅভিনেত্রী, গীতিকার, টেলিভিশন উপস্থাপক
দাম্পত্য সঙ্গীভরদ লাঘাতে
আত্মীয়শিপ্রা জোশী (বোন)

স্পৃহা জোশী (জন্ম: ১৩ই অক্টোবর ১৯৮৯) হলেন একজন ভারতীয় টেলিভিশন, চলচ্চিত্র এবং নাট্য অভিনেত্রী। তিনি মারাঠি চলচ্চিত্র এবং টেলিভিশন ধারাবাহিকে কাজ করার পাশাপাশি একজন টেলিভিশন উপস্থাপক হিসেবেও কাজ করেছেন। তিনি চলচ্চিত্রের জন্য কবিতা এবং গানও লিখে থাকেন।[১]

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

স্পৃহা জোশী ১৯৮৯ সালের ১৩ই অক্টোবর তারিখে ভারতের মহারাষ্ট্রের মুম্বইয়ে জন্মগ্রহণ করেছেন। তাঁর বাবার নাম শিরিশ মধুসূদন জোশী এবং তাঁর মায়ের নাম শ্রেয়া শিরিশ জোশী (বিবাহ পূর্ব নাম অলকা অরবিন্দ তেরদালকর)। তিনি তাঁর বাবা মায়ের একমাত্র সন্তান। তিনি দাদারের বালমোহন বিদ্যামন্দির থেকে তাঁর স্কুল জীবনের পড়াশোনা সম্পন্ন করেছেন এবং পরে রামনারায়ণ রুইয়া কলেজ থেকে স্নাতক সম্পন্ন করেছেন।[২]

পেশা[সম্পাদনা]

স্পৃহা জোশী ২০০৪ সালে নাট্য চলচ্চিত্র মাঈ বাপ-এ অভিনয়ের মাধ্যমে অভিনয় জগতে আত্মপ্রকাশ করেছেন। এই চলচ্চিত্রে তিনি একজন ধ্রুপদী সংগীত শিক্ষার্থীর চরিত্রে অভিনয় করেছেন। অভিষেকের পরে, তিনি স্নাতক শেষ করার জন্য চলচ্চিত্র জগত থেকে বিরতি নিয়েছিলেন। তিনি রামনারায়ণ রুইয়া কলেজ-এ থাকাকালীন তিনি গামাভানা, যুগ্মক, এক অর মাইয়াত, সান্তা, এক আশি ব্যক্তি, কোই অ্যায়সা, ক্যানভাস এবং অনন্যার মতো বেশ কয়েকটি নাটকে অভিনয় করেছিলেন।[৩] টেলিভিশন জগতে তিনি অগ্নিহোত্র-এ উমা ব্যান্ডের চরিত্রে অভিনয় করার মাধ্যমে সকলে নজর কেড়েছিলেন। ২০১১ সালে তিনি অবধূত গুপ্তা দ্বারা পরিচালিত মৌর্য-এ অভিনয় করেছেন। একই বছরে তাঁকে টেলিভিশন ধারাবাহিক একা লাগনাচি দুশরী গোশতা-এ অভিনয় করার জন্য প্রস্তাব করা হয়েছিল; যেখানে তিনি কুহু চরিত্রে অভিনয় করেছেন। এই ধারাবাহিকে তিনি মুক্ত বারভে এবং স্বপ্নিল জোশীর মতো অভিনয়শিল্পীদের সাথে অভিনয় করেছেন।[৪] ২০১২ সালে তিনি রামাভাই রানাড়ের উঁচ মাজা জোকা-এর কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেছেন, এই চলচ্চিত্রটি বীরেন প্রধান পরিচালনা করেছেন। তিনি জি মারাঠিতে প্রচারিত মারাঠি টেলিভিশন ধারাবাহিক দে ধামাল -এ একজন শিশু শিল্পীর চরিত্রে অভিনয় করেছেন।[৫] ২০১৩ সালে স্পৃহা জোশী একা লাগনাচি দুশরী গোশতা-এর প্রধান চরিত্রে উকিল ঈশা দেশমুখের চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন।[৬] স্পৃহা জোশীর পরের চলচ্চিত্রটি ছিল উমেশ কামাতের এ পেয়িং গেস্ট। এই চলচ্চিত্রটি সমালোচক এবং দর্শকদের কাছ থেকে ইতিবাচক প্রতিক্রিয়া পেয়েছে। অতঃপর স্পৃহা ২০১৫ সালের ১৭ই জুলাই তারিখে মুক্তিপ্রাপ্ত বায়োস্কোপ-এ অভিনয় করেছেন।

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

স্পৃহা জোশীর বাবা ট্রাইম্যাক্স কোম্পানিতে কর্মরত এবং তাঁর মা একজন গৃহিণী। তাঁর ছোট বোন শিপ্রা জোশী একজন ক্রীড়াবিদ। ২০১৪ সালের ২৮শে নভেম্বর তারিখে তিনি ভরদ লাঘাতের সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন। বিয়ের পূর্বে তারা পাঁচ বছর যাবৎ একটি প্রেমের সম্পর্কে ছিলেন।[১][৭]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Spruha plans to tie the knot with fiancé by end of the year - Times of India"। সংগ্রহের তারিখ ১৭ জুন ২০১৭ 
  2. Staff, Editorial (২১ মে ২০১৪)। "Spruha Joshi Marathi Actress Biography Photos Filmography Profile Wiki"MarathiStars 
  3. "Spruha Joshi"meetkalakar.com 
  4. "Popularity of TV stars help Box Office success"The Times Of India। ১ মার্চ ২০১৪। 
  5. "Friendship Day Special: These Marathi TV shows taught the real meaning of friendship"The Times of India (ইংরেজি ভাষায়)। ৪ আগস্ট ২০১৯। 
  6. Deshmukh, Gayatri (২৭ মে ২০১৪)। "Women power in Marathi television shows Movie Review"The Times Of India। সংগ্রহের তারিখ ২০ মার্চ ২০১৫ 
  7. "Spruha fed up of husband's OCD? - Times of India"। সংগ্রহের তারিখ ১৭ জুন ২০১৭ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]