সুগুত

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সুগুত
শহর
সুগুত তুরস্ক-এ অবস্থিত
সুগুত
সুগুত
স্থানাঙ্ক: ৪০°১′৭″ উত্তর ৩০°১০′৫৩″ পূর্ব / ৪০.০১৮৬১° উত্তর ৩০.১৮১৩৯° পূর্ব / 40.01861; 30.18139স্থানাঙ্ক: ৪০°১′৭″ উত্তর ৩০°১০′৫৩″ পূর্ব / ৪০.০১৮৬১° উত্তর ৩০.১৮১৩৯° পূর্ব / 40.01861; 30.18139
Country তুরস্ক
অঞ্চলমারমারা
প্রদেশবেলাসিক
সরকার
 • মেয়রওসমান গনী (একেপি)
 • গভর্নরবেরকান সেনমেজাই
আয়তন
 • জেলা৫৩০ বর্গকিমি (২০০ বর্গমাইল)
Postal code১১৬০০
এলাকা কোড(+৯০) ০২২৮
ওয়েবসাইটwww.sogut.bel.tr
সুগুতে অবস্থিত আরতুগ্রুল গাজির যাদুঘর।

সুগুত(তুর্কি: Söğüt) তুরস্কের বিলাসিক প্রদেশের পাহাড়ী একটি ছোট শহর। [১] এটি দেশের উত্তর-পশ্চিমের মারমারা অঞ্চলে অবস্থিত।যার আয়তন ৫৯৯ বর্গকিলোমিটার। পশ্চিমে বিলেসিক সীমান্ত, উত্তরে গুলপাজারি, উত্তর-পূর্ব দিকে ইনহিসার, দক্ষিণ-পূর্ব দিকে তেপেবাসি এবং দক্ষিণ-পশ্চিমে বুজুইউক। সুগুত জেলায় ৫টি পৌরসভা এবং ২৩ টি গ্রাম রয়েছে। এটি ছিল অটোমান সাম্রাজ্যের প্রথম রাজধানী।[২]

জনসংখ্যা[সম্পাদনা]

২০০৯ সালে জনসংখ্যা ছিল ১৫০০৭ জন। ২০১৩ সালের আদমশুমারি অনুযায়ী জনসংখ্যা হলো-১৪,২১৬ জন। ২০১৯ সালের হিসাব অনুযায়ী এই জেলার জনসংখ্যা হলো-১৩,১৪২জন।[৩]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

সুগুতে পশ্চিম আনাতোলিয়ার একটি সেলজুক তুর্কি উপজাতির বসবাস ছিল যা পরবর্তীতে অটোমান সাম্রাজ্যের জন্ম দেয়। এখানে একটি ছোট উপজাতি ছিল যা সেলজুক তুর্কিদের কায়ি গোত্রের শাখা। যারা ১২ ও ১৩ শতকে আনাতোলিয়াতে বসতি স্থাপন করেছিল । সুগুত গ্রামটি চারদিকে বৃহত্তর তুর্কি উপজাতি দ্বারা বেষ্টিত ছিল: উত্তরে এস্কেনডেরাম, পূর্বে এস্কেহির, দক্ষিণে কোনিয়ালি; পশ্চিমে পূর্ব রোমান সাম্রাজ্য । জনশ্রুতিতে রয়েছে যে, ১৩ শতকের শেষভাগে উপজাতি প্রধান আরতুগ্রুল সাহসিকতার সাথে শত্রুদেরকে প্রতিহত করে রেখেছিলেন,[৪] যাতে করে তাঁর পুত্র ওসমান তাঁর রাজত্বকাল (১২৯৯ থেকে ১৩২৬ সাল) সমস্ত এলাকা জয় করতে সক্ষম হোন। ওসমানের পর মৃত্যুর পরে ওসমানের পুত্র ওরহান ক্ষমতায় এলে তিনি তাঁর পিতার সম্মানে উপজাতির নাম ওসমানীয় রাজবংশ বলে নামকরণ করেন। সুগুত শহরটি(পূর্বনাম ১২৩১ সাল পর্যন্ত থিবেশন)[১] বাইজেন্টাইনের বুরসা শহর ১৩২৬ সালে দখলের আগ পর্যন্ত উসমানী উপজাতির শহর বা রাজধানী ছিল। এই অঞ্চলে বুরসা একটি উল্লেখযোগ্য শহর হওয়ায় রাজধানী সুুগুত থেকে বুরসায় স্থানান্তরিত করা হয়েছিল।

সুগুত সুলতান প্রথম ওসমানের জন্মস্থান। ১২৩১ সালে সুগুত আরতুগ্রুল সেলজুক সাম্রাজ্যের জন্য নিসিয়ান সাম্রাজ্য থেকে দখল করে নেয়। এটি হুদাবেনদীগীর বেলায়েতের আরতুগ্রুল সানজাকের কাজা কেন্দ্র ছিল, যার কেন্দ্রবিন্দু ছিল বিলাসিক।

তুরস্কের স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় সুগুত তিনবার গ্রীক সেনাদের দখলে ছিল: ৮-১১ জানুয়ারী ১৯২১, ২৪ মার্চ -২১ এপ্রিল ১৯২১ এবং ১২ জুলাই ১৯২১-৬ সেপ্টেম্বর ১৯২২।

আজ[সম্পাদনা]

আজ সুগুত তুরস্কের[৫] বিলাসিক প্রদেশের আর্দ্র নদী উপত্যকার একটি ছোট শহর। তুর্কি ইতিহাস এবং অটোমান সুলতানদের জীবন-আকার সুগুত এথনোগ্রাফিকাল জাদুঘরে প্রদর্শিত হয়। এছাড়া এটি বিলাসিক প্রদেশের বিলাসিক ও বুজুইইক শহরের পর তৃতীয় বৃহত্তম শহর। সুগুতের বাজার প্রতি বৃহস্পতিবার খোলা থাকে। পরিদর্শন ও কেনাকাটা করার জন্য ইনহিসার এবং ইয়েনিপাযার লোক আসে।

দর্শনীয় স্থানসমূহ[সম্পাদনা]

  • আরতুগ্রুল গাজীর সমাধি
  • হামিদিয়া মসজিদ
  • আরতুগ্রুল গাজী জাদুঘর
  • হামিদিয়া একাডেমি
  • সেলেবী সুলতান মাহমুদ মসজিদ
  • কুয়ুলু মসজিদ [১]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Söğüt – Travel guide at Wikivoyage"en.wikivoyage.org (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৫-১২ 
  2. "Sogut, 'the first Ottoman capital', resurrected as a tourist hot spot"Sogut, 'the first Ottoman capital', resurrected as a tourist hot spot (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৫-১২ 
  3. "Söğüt (Söğüt, Bilecik, Turkey) - Population Statistics, Charts, Map, Location, Weather and Web Information"www.citypopulation.de। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৫-১২ 
  4. "'ছোট্ট বসতির নেতৃত্ব দিয়ে আরতুগ্রুল গাজীই বিশাল সাম্রাজ্যের ভিত রচনা করেছিলেন'"http://www.alokitobangladesh.com। ১২ মে ২০২০।  |ওয়েবসাইট= এ বহিঃসংযোগ দেয়া (সাহায্য)
  5. "Sogut | Turkey"Encyclopedia Britannica (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৫-১২