সাঁগ্রা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

সাঁগ্রা
Restricted demon
Close wing nectering of Notocrypta curvifascia (C. & R. Felder, 1862) – Restricted Demon WLB DSC 4605.jpg
ডানা বন্ধ অবস্থায়
বৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাস
জগৎ: Animalia
পর্ব: Arthropoda
শ্রেণী: Insecta
বর্গ: Lepidoptera
পরিবার: Hesperiidae
গণ: Notocrypta
প্রজাতি: N. curvifascia
দ্বিপদী নাম
Notocrypta curvifascia
(Felder & Felder, 1862)

সাঁগ্রা[১] (বৈজ্ঞানিক নাম: Notocrypta curvifascia (Felder)) 'হেসপারিডি' (Hespaeriidae) বা স্কিপারস (Skippers) গোত্র ও 'হেসপারিনি' (Hesperiinae) উপ-গোত্রের অন্তর্ভুক্ত ছোট আকৃতির প্রজাতি।[২][৩]

আকার[সম্পাদনা]

সাঁগ্রা এর প্রসারিত অবস্থায় ডানার আকার ৩৮-৫০ মিলিমিটার দৈর্ঘ্যের হয়।[৪]

বিস্তার[সম্পাদনা]

ভারত (পশ্চিমঘাট পর্বত [দক্ষিণ গোয়া], কর্ণাটক, হিমাচল প্রদেশ থেকে অরুণাচল প্রদেশ, উত্তর-পূর্ব ভারত,আন্দামান) নেপাল, ভুটান, বাংলাদেশ, মায়ানমার, শ্রীলঙ্কা ও ইন্দোনেশিয়া এর বিভিন্ন অঞ্চলে এদের পাওয়া যায়।[৪]

বর্ণনা[সম্পাদনা]

প্রজাপতির দেহাংশের পরিচয় বিষদ জানার জন্য প্রজাপতির দেহ এবং ডানার অংশের নির্দেশিকা দেখুন:-

স্পটেড ও দিঘল সাঁগ্রা এর সাথে ভীষণ সাদৃশ্য যুক্ত ।

ডানার উপরিতল কালো বা ঘন কালচে বাদামি ও সাদা দাগ-ছোপ-বন্ধনী যুক্ত। সামনের ডানায় একটি অর্ধ-স্বচ্ছ , চওড়া ও সামান্য বাঁকা ডিসকাল বন্ধনী বর্তমান যাহা কোস্টা অবধি বিস্তৃত নয়; কোস্টাল শিরার নিচে শেষ হয়েছে। উক্ত ডিসকাল বন্ধনী নিচের দিকে ডরসামের খানিক উপরে ১ নং শিরা পর্যন্ত বিন্যস্ত। কোস্টার ঠিক নিচে ৩ টি সংলগ্ন সাদা ছোট সাব-এপিক্যাল ছোপ বিদ্যমান (৬ থেকে ৮ নং শিরামধ্যে) এবং তার খানিক নিচে ক্ষুদ্র ৩ টি সাদা ছোপ দেখা যায় । পিছনের ডানা দাগ-ছোপ হীন । ডানার নিম্নতল কালচে বাদামি ও ফ্যাকাশে সাদা আঁশে হালকাভাবে ছাওয়া। সামনের ও পিছনের ডানা উপরিতলের একদম অনুরূপ, তবে নিম্নতলের দাগ-ছোপ-বন্ধনী স্পষ্টতর। স্ত্রী-পুরুষ উভয় প্রকারই অনুরূপ ।

শুঙ্গ কালো, শীর্ষের খানিক নিচে সাদা দাগযুক্ত ও শীর্ষ আঁকশির ন্যায় বাঁকানো । মাথা, বক্ষদেশ (thorax)উদর উপরিতলের কালচে বাদামি বা কালো ও নিম্নতলে ফ্যাকাশে বাদামি ।[৫]

আচরণ[সম্পাদনা]

সুলভ দর্শন এই প্রজাতির উড়ান খুব দ্রুত ও স্বল্পগামী। এরা ভূমির কাছাকাছি নিচু দিয়ে তীরের বেগে স্বল্পদৈর্ঘ উড়ে আবার ডালে, পাতায় বা মাটিতে ও পাথরে বসে। এরা প্রায়শই খানিক উড়ে আবার পূর্বের বসার জায়গায় ফিরে আসে। পুরুষ প্রকার স্থানিক স্বভাব সম্পন্ন (territorial habit)। এই প্রজাতি সকাল, পড়ন্ত বিকেল ও সন্ধ্যার সময় সক্রিয় থাকে; দিনের বাকি সময় নিচু উচ্ছতাযুক্ত ঝোপঝাড় বা পাতার আশ্রয়ে ছায়াচ্ছন্ন পরিবেশে কাটায়। এরা দীর্ঘক্ষণ ধরে একই জায়গায় অবস্থান করতে পছন্দ করে। প্রায়শই এদের পাতায়,ডালে, ভিজে মাটিতে ও পাথরের ভিজে ছোপে বসে খ্যাদ্যরস আহরণ করতে ও রোদ পোহাতে দেখা যায়। এরা হালকা রোদে বারবার রোদ পোহাতে আসে, তবে সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্য। বিভিন্ন বড় আকারের বুনো ফুলের ভিতরে খানিক সেধিয়ে গিয়ে মধুপান করতে এদের প্রায়ই চোখে পড়ে। মাঝেমধ্যেই অন্যান্য ডেমন গোত্রের প্রজাতির সাথে এদের দেখা যায়। জঙ্গলের বাইরে ফাঁকা অঞ্চলে বা সমতলভূমিতে এদের দর্শন পাওয়া যায় না। পশ্চিমঘাট পর্বত ও হিমালয়ের পাদদেশে আর্দ্র পর্ণমোচী, চিরহরিৎ ও প্রায়-চিরহরিৎ বনাঞ্চল এদের পছন্দের বাসভূমি। পশ্চিমঘাট পর্বতের সমস্ত ভিজে ঢালে, বিশেষত বর্ষাকালের মাসগুলিতে এই প্রজাতিদের প্রচুর সংখ্যায় উপস্থিতি লক্ষ্য করা যায়। জঙ্গলের ভিতর ফাঁকা জায়গা, জঙ্গলের পথে, কিনারে ও নদী বা ঝর্ণার ছায়াচ্ছন্ন অংশ এদের বিচরণ ক্ষেত্র। হিমালয়ের পাদদেশ থেকে ১৮০০ মি, উচ্চতা পর্যন্ত মার্চ থেকে নভেম্বর এদের বিচরণ চোখে পড়ে ।এই প্রজাতির সাথে দিঘল সাঁগ্রা (Notocrypta paralysos) ও তান সাঁগ্রা (Notocrypta feisthamelii) প্রজাতির স্বভাবের অনেক মিল দেখা যায়।[১][৬]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. A Pictorial Guide Butterflies of Gorumara National Park (2013 সংস্করণ)। Department of Forests Government of West Bengal। পৃষ্ঠা 312। 
  2. R.K., Varshney; Smetacek, Peter (২০১৫)। A Synoptic Catalogue of the Butterflies of India। New Delhi: Butterfly Research Centre, Bhimtal & Indinov Publishing, New Delhi। পৃষ্ঠা 48–49। doi:10.13140/RG.2.1.3966.2164আইএসবিএন 978-81-929826-4-9 
  3. W. H., Evans (১৯৪৯)। A Catalogue of the Hesperiidae from Europe, Asia, and Australia in the British Museum। London: British Museum (Natural History). Department of Entomology। পৃষ্ঠা 286। 
  4. Isaac, Kehimkar (২০০৮)। The book of Indian Butterflies (ইংরেজি ভাষায়) (1st সংস্করণ)। নতুন দিল্লি: অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় প্রেস। পৃষ্ঠা 94। আইএসবিএন 978 019569620 2 
  5. Wynter-Blyth, M.A. (1957) Butterflies of the Indian Region, pg 489.
  6. Kunte, Krushnamegh (২০১৩)। Butterflies of The Garo Hills। Dehradun: Samrakshan Trust, Titli Trust and Indian Foundation of Butterflies। পৃষ্ঠা 12।