শিল্পা শিরোদকর

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
শিল্পা শিরোদকর
ShilpaShirodkar.jpg
২০১৪ সালে শিল্পা শিরোদকর
জন্ম (1973-11-20) ২০ নভেম্বর ১৯৭৩ (বয়স ৪৬)
পেশাঅভিনেত্রী
কর্মজীবন১৯৮৯ – ২০০০, ২০১৩ – বর্তমান
দাম্পত্য সঙ্গীঅপরেশ রঞ্জিত (বি. ২০০০)
সন্তান

শিল্পা শিরোদকর (জন্ম: ২০শে নভেম্বর ১৯৭৩) হলেন একজন ভারতীয় অভিনেত্রী এবং প্রাক্তন মডেল, যিনি মূলত হিন্দি ভাষার চলচ্চিত্রে ১৯৮৯ সাল হতে ২০১০ সাল পর্যন্ত কাজ করেছিলেন। অভিনয় জীবনের মাঝখানে তিনি প্রায় ১৩ বছরের বিরতি গ্রহণ করেছিলেন। অতঃপর ২০১৩ সালে জি টিভিতে প্রচারিত টেলিভিশন ধারাবাহিক এক মুঠি আসমান-এ অভিনয়ের মাধ্যমে তিনি পুনরায় অভিনয় জগতে ফিরে এসেছিলেন; উক্ত ধারাবাহিকে তিনি কমলা ভিত্তল যাদবের চরিত্রে অভিনয় করেছেন।[১]

পেশা[সম্পাদনা]

শিল্পা শিরোদকর ১৯৮৯ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত রমেশ সিপ্পী দ্বারা পরিচালিত ভ্রষ্টাচর নামক একটি হিন্দি চলচ্চিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে অভিনয় জগতে পদার্পণ করেছিলেন; উক্ত চলচ্চিত্রে তিনি মিঠুন চক্রবর্তী এবং রেখার সাথে অভিনয় করেছিলেন। এই চলচ্চিত্রে তিনি একজন অন্ধ মেয়ের চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন।[২][৩][৪] ১৯৯০ সালে জনপ্রিয় চলচ্চিত্র কৃষ্ণ কানহাইয়া-তে তিনি অনিল কাপুরের বিপরীতে অভিনয় করেছিলেন। পরের বছর তিনি ত্রিনেত্র (১৯৯১) এবং হাম (১৯৯১)-এর মতো সফল চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছিলেন। অতঃপর তিনি খুদা গাওয়া (১৯৯২), আঁখে (১৯৯৩), পহচান (১৯৯৩), গোপী কিশন (১৯৯৪), বেবফা সনম (১৯৯৬) এবং মৃত্যুদণ্ড (১৯৯৭) এর মতো আরও বেশ কয়েকটি জনপ্রিয় চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছিলেন। তিনি বিয়ের পরে অভিনয় ছেড়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন এবং তিনি সর্বশেষ ২০০০ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত গজ গামিনী নামক একটি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছিলেন। তিনি খুদা গাওয়া-এ তাঁর অভিনয়ের জন্য শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেত্রী বিভাগে ফিল্মফেয়ার পুরস্কারের জন্য মনোনীত হয়েছিলেন।[৫] শিল্পা মিঠুন চক্রবর্তীর সাথে নয়টি চলচ্চিত্রে জুটি বেঁধেছিলেন এবং ভক্তরা তাঁদের জুটির বেশ প্রশংসা করেছেন।[১]

তিনি তাঁর পরিবারের সাথে থাকার জন্য অভিনয় জগতে থেকে প্রায় ১৩ বছরের বিরতি নিয়েছিলেন এবং ২০১৩ সালে পুনরায় টেলিভিশন জগতে ফিরে আসেন। কর্মসূত্রে তিনি বর্তমানে মুম্বই বসবাস করেন। গার্হস্থ্য সাহায্যকারীদের জীবনের উপর ভিত্তি করে জি টিভি টেলিভিশন ধারাবাহিক এক মুঠি আসমান-এ অভিনয় করেছেন। এই ধারাবাহিকের প্রথম শ্যুটিং স্থল ছিল দিল্লির একটি শহর।[৬][৭] ২০১৪ সালের শেষের দিকে এই ধারাবাহিকটি প্রচার সমাপ্ত হয়েছে। অতঃপর তিনি ২০১৬ সালের ৪ঠা জানুয়ারি থেকে শুরু হওয়া স্টার প্লাসে প্রচারিত সিলসিলা পেয়ার কা তে অভিনয় করেছেন;[৮][৯][১০] এই ধারাবাহিকটি প্রচার শুরু হওয়ার ছয় মাসের মাথায় শেষ হয়ে গিয়েছিল। পরবর্তীতে ২০১৭ সালের মে মাস থেকে ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বর মাস পর্যন্ত তিনি কালার্স টিভিতে প্রচারিত সাবিত্রী দেবী কলেজ অ্যান্ড হাসপাতাল নামক টেলিভিশন ধারাবাহিকে অভিনয় করেছেন।[১১] ২০২০ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে, তিনি গানস অফ বনারস নামে একটি চলচ্চিত্রের পার্শ্ব চরিত্রে অভিনয় করেছেন; এই চলচ্চিত্রের কাজ ২০১৪ সালে সম্পন্ন হলেও এর মুক্তি পেতে ৬ বছর দেরি হয়েছে।[১২]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "90 के दशक में बोल्ड सीन देकर फेमस हुई थीं ये एक्ट्रेस, 13 साल बाद की वापसी तो पहचानना हुआ मुश्किल"Amar Ujala (হিন্দি ভাষায়)। ২০ নভেম্বর ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ৩০ মে ২০১৯ 
  2. "अब ऐसी दिखती हैं नब्बे के दशक की हीरोइन शिल्पा शिरोडकर, बड़े पर्दे के बाद टीवी पर शुरू की दूसरी पारी"Dainik Jagran (হিন্দি ভাষায়)। ২৪ নভেম্বর ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ৬ জানুয়ারি ২০২০ 
  3. "सूजा चेहरा और आंखों के नीचे काले धब्बे, देखिए अब कैसी हो गई हैं शिल्पा शिरोडकर"Jansatta (হিন্দি ভাষায়)। ২০ নভেম্বর ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ৬ জানুয়ারি ২০২০ 
  4. "Remember Shilpa Shirodkar? Here's what the 90s Bollywood actress is doing now"mid-day (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২৭ জুলাই ২০১৯ 
  5. "51st Fair One Filmfare Awards"। Filmfare। ১৬ জুলাই ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০ মে ২০১১ 
  6. "Shilpa Shirodkar: I never missed Bollywood!"। Bollywood Life। ৩ আগস্ট ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ৩ আগস্ট ২০১৩ 
  7. Sharma, Priya (২২ আগস্ট ২০১৩)। "Hearth is where the art is"The Hindu (ইংরেজি ভাষায়)। আইএসএসএন 0971-751X। সংগ্রহের তারিখ ২৭ জুলাই ২০১৯ 
  8. "Shilpa Shirodkar's next show about 'mother-son relationship'"The Indian Express (ইংরেজি ভাষায়)। ১৭ নভেম্বর ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ২৭ জুলাই ২০১৯ 
  9. "Shilpa Shirodkar returns to the small screen as an obsessive mom"mid-day (ইংরেজি ভাষায়)। ২০ ডিসেম্বর ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ২৭ জুলাই ২০১৯ 
  10. "Shilpa thanks movie career for comeback"Deccan Herald (ইংরেজি ভাষায়)। ২২ আগস্ট ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ২৭ জুলাই ২০১৯ 
  11. "I'd be lying if I said that I didn't care about ratings, says Shilpa Shirodkar"The Asian Age। ১৫ মে ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ২৭ জুলাই ২০১৯ 
  12. Jha, Subhash K. (২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০)। "Shilpa Shirodkar makes a comeback"Rediff (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৬ মার্চ ২০২০ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]