শার্লেমাইন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
শার্লেমাইন
Charlemagne denier Mayence 812 814.jpg
শার্লেমাইনের একটি কয়েন
রোমান সম্রাজ্য
রাজত্ব ২৫ ডিসেম্বর ৮০০ – ২৮ জানুয়ারী ৮১৪
রাজ সিংহাসনারোহণ ২৫ ডিসেম্বর ৮০০
পুরাতন সেন্ট ব্যাসিলিকা, রোম
পূর্বসূরী স্থায়ী
উত্তরসূরী লুইস I
ইতালির রাজা
রাজত্ব ১০ জুলাই ৭৭৪ – ২৮ জানুয়ারি ৮১৪
রাজ সিংহাসনারোহণ ১০ জুলাই ৭৭৪
পূর্বসূরী ডেসিড্রিয়াস
উত্তরসূরী লুইস I
কিং অফ দা ফ্রাঙ্কস
রাজত্ব ৯ অক্টোবর ৭৬৮ – ২৮ জানুয়ারি ৮১৪
রাজ সিংহাসনারোহণ ৯ অক্টোবর ৭৬৮
উত্তরসূরী লুইস I

শার্লেমাইন বা শার্ল দি গ্রেট (ফরাসি: Charlemagne, প্রকৃত উচ্চারণ: শার্লেমাইঞ) (৭৪২ - ২৮শে জানুয়ারি, ৮১৪) ৭৬৮ সাল থেকে ফ্রাংকদের রাজা এবং ৮০০ সাল থেকে তার মৃত্যুর পূর্ব পর্যন্ত পুণ্য রোমান সম্রাট ছিলেন।[১] পশ্চিমা রোমান সাম্রাজ্যের পতনের তিন শতাব্দী পর, শার্লেমাইন ছিলেন পশ্চিম ইউরোপের প্রথম সম্রাট। তার পিতা ছিলেন পেপিন দা শর্ট এবং মাতা বার্ট্রাডা অফ লাওন। তিনি ফ্রাংকিশ সম্রাজ্যকে একটি অনেক বর্ধিত করেন যার মধ্যে তখন মধ্য এবং পশ্চিম ইউরোপের অধিকাংশ রাজ্য অন্তর্ভুক্ত হয়েছিল। রাজত্বকালে তিনি ইতালীয় সম্রাজ্য দখল করেন এবং পোপ লেও ৩ ৮০০ সালের ২৫শে ডিসেম্বর রোম শহরে তাকে ইমপেরাতোর আউগুস্তুস হিসেবে অভিষিক্ত করেন।

৭৬৮ খৃষ্টাব্দে পেপিন দ্য শর্ট এর মৃত্যুর পর শার্লেমাইন তার ভাই প্রথম কার্লোমান এর সাথে ফ্রাঙ্কদের রাজা হন। ৭৭১ সালে প্রথম কার্লোমানের হঠাৎ মৃত্যুর পর তিনি ফ্রাঙ্কিয় রাজ্যের (বর্তমানকালের বেলজিয়াম, ফ্রান্স, নেদারল্যান্ড এবং পশ্চিম জার্মানি) নিরঙ্কুশ আধিপত্য গ্রহন করেন এবং মৃত্যু পর্যন্ত রাজত্ব করেন। সামরিক অভিযানের মাধ্যমে তিনি রাজ্যকে সাম্রাজ্যে পরিনত করেন, যা ছিল পশ্চিম এবং মধ্য ইউরোপের অধিকাংশ এলাকা নিয়ে বিস্তৃত।

ক্ষমতায় যাওয়ার পর থেকে শার্লেমাইন ব্যস্ত ছিলেন সকল জার্মানিক জনগণকে এক রাজত্বের আওতায় আনতে এবং তার প্রজাদের খৃষ্ট ধর্মে দিক্ষিত করতে।[২] তিনি পোপের প্রতি তার পিতার নীতি অব্যহত রাখেন এবং লম্বার্ডদের কিংডম অফ লম্বার্ড (বর্তমান উত্তর ইতালি) থেকে উৎখাত করে পোপের রক্ষক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। তিনি মুসলিম স্পেনের দিকে অভিযান পরিচালনা করেন। তিনি পূর্ব দিকে অবস্থিত রাজ্যেও আক্রমন করেন এবং তাদের (উল্লেখযোগ্য: স্যাক্সন) বলপূর্বক খৃস্ট ধর্মগ্রহনে বাধ্য করেন। শার্লেমেন তার ক্ষমতার শীর্ষে পৌছান যখন, ৮০০ খৃষ্টাব্দের ক্রিসমাস দিবসে পোপ তৃতীয় লিও তাকে সম্রাট উপাধিতে ভূষিত করে।[৩]

রোমান সাম্রাজ্যের পর তিনি প্রথমবারের মত পশ্চিম ইউরোপের অধিকাংশ এলাকা একত্রিত করেন। কেউ কেউ তাকে "ইউরোপের জনক"[৪] বলেও সম্বোধন করে। তার রাজত্বকালে ইউরোপে একটি নব জাগরণের সূত্রপাত ঘটে যাকে বর্তমানে কারোলিনজীয় রেনেসাঁ নামে অভিহিত করা হয়, কারণ শার্লেমাইন যে রাজবংশের সদস্য ছিলেন তার নাম কারোলিনজীয় (Carolingian) বংশ। সে সময় শিল্প, ধর্ম ও সংস্কৃতিতে ইউরোপ জুড়ে ব্যাপক পরিবর্তন আসে। অনেকগুলো রাজ্য দখল করে শার্লেমাইন পশ্চিম ইউরোপের সীমানা সংজ্ঞায়িত করেন এবং একইসাথে ইউরোপীয় মধ্যযুগের সময়সীমা নির্ধারণ করে দেন।

৮১৪ সালে তিনি তার সাম্রাজ্যের রাজধানী আখেন (বর্তমান জার্মানীতে অবস্থিত) এ মারা যান। তার মৃত্যুর পর সন্তান লুই দ্য পায়াস (ধার্মিক লুই) তার সাম্রাজ্যের উত্তরাধিকারী হিসেবে সম্রাটের আসনে বসেন।

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]