লেখমালানুক্রমণী

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

লেখমালানুক্রমণী রাখালদাস বন্দ্যোপাধ্যায় সম্পাদিত ভারতবর্ষের বিভিন্ন প্রান্তে প্রাপ্ত প্রস্তর খোদিত লিপির বর্ণনা মুলক সংকলন।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

১৩১৬ বঙ্গাব্দে রাখালদাস বন্দ্যোপাধ্যায় বঙ্গীয় সাহিত্য পরিষদের সহকারী সম্পাদক থাকাকালীন উৎকীর্ণ লিপিসঙ্কলন নামে একটি গ্রন্থ প্রকাশের প্রস্তাবনা দেন পরিষদের কার্য্য নির্ব্বাহক সমিতির কাছে। এতে তিনি ভারতবর্ষের বিভিন্ন প্রান্তের ধাতুফলকে, মূর্ত্তীর পাদপীঠে, গায়ে ও প্রস্তরফলকে লিখিত লিপির সম্পূর্ণ বিবরণ লিপিবদ্ধ করতে চেয়েছিলেন। তিনি অবশ্য অশোকের লিপি ব্যতীত গুপ্ত-সম্রাটদের সময় পর্যন্ত প্রাপ্ত অন্যান্য লিপিগুলির প্রকাশেই সীমাবদ্ধ থাকতে চেয়েছিলেন। পরিষদের সম্মতি পাওয়ার পরে রাখালদাস বন্দ্যোপাধ্যায় ১৩১৭ বঙ্গাব্দ থেকে লোক লাগিয়ে কাজ আরম্ভ করেন। ১৩২০ বঙ্গাব্দে সেই গ্রন্থের পান্ডুলিপি তৈরী হয়। এতে ৯৯৭টি লেখের বর্ণনা দেওয়া ছিল। ১৩২১ বঙ্গাব্দে হরপ্রসাদ শাস্ত্রী এই গ্রন্থের নাম পরিবর্তন করে লেখমালানুক্রমণী রাখেন। কিন্তু এরপর রাখালদাস বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাজ ও শারীরিক অসুস্থতার কারণে গ্রন্থের প্রকাশনার কাজ পিছিয়ে যায়। ১৩২১-২২ বঙ্গাব্দে এই গ্রন্থের ১৩টি ফর্ম্মা মুদ্রিত হয়। এরমধ্যে ড. লুডার্স ২০০-২৫০ টি পূর্বপ্রকাশিত লিপির বর্ণনা সমন্বিত একটি পরিশিষ্ট প্রকাশ করেন। সেইসব বিবরণও রাখালদাস বন্দ্যোপাধ্যায় তার গ্রন্থে সন্নিবিষ্ট করেন। কিন্তু পুনরায় রাখালদাস কাজে ব্যস্ত হয়ে পড়েন এবং পরিষদ থেকে গ্রন্থটির প্রথম খন্ড ১৩৩০ বঙ্গাব্দে প্রকাশ করা হয়, যদিও শেষের কিছু অংশ তিনি নিজে সম্পাদনা করেন নি।[১]

বিষয় বর্ণনা[সম্পাদনা]

প্রথম খণ্ডে ২৩১ টি লেখের বিবরণ দেওয়া হয়েছে। এগুলিকে উত্তরাপথের লেখমালা হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে। মথুরার চিত্রশালা ও বৌদ্ধস্তুপ, কঙ্কালিটিলা, লক্ষ্ণৌর চিত্রশালা, সাঁচি ও অন্যান্য স্থানে প্রাপ্ত ফলকে খোদিত লিপির বর্ণনা করা হয়েছে। প্রত্যেকটি বিবরণ একটি নির্দিষ্ট কাঠামো মেনে করা হয়েছে। উদাহরণ স্বরূপ ৮৮নং লেখ মথুরার স্তম্ভ-মূলের খোদিত লিপি-র বিবরণ নিচে দেওয়া হল,[২]

পূর্ব্বোল্লেখ ১৯১০, ভোগেল, মথুরা চিত্রশালার তালিকা, পৃঃ ১৭৮, সংখ্যা পি ৩২।
তারিখ অজ্ঞাত
ইতিহাস অজ্ঞাত
বিবরণ জ.......অয়ি (?) কু [ং] ভকো দ [া] নং ভি

[ক্ষু] স্য সঙ্ঘবর্ম্ম [স্য] বদ্ধ (?) স্য চ।
“এই কুম্ভক...... ভিক্ষু সঙ্ঘবর্ম্মা ও ভিক্ষু বদ্ধের দান”

মন্তব্য ইহার ছাপ ছাপা হয় নাই।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. লেখমালানুক্রমণী, প্রথম খন্ড, প্রকাশকের নিবেদন
  2. লেখমালানুক্রমণী, প্রথম খন্ড, পৃ. ৫৫

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]