লাভ’স লেবার’স লস্ট

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
প্রথম কোয়ার্টোর প্রচ্ছদ পৃষ্ঠা (১৫৯৮)

লাভ’স লেবার’স লস্ট (ইংরেজি: Love’s Labour’s Lost) হল উইলিয়াম শেকসপিয়র রচিত প্রথম কমেডিগুলির অন্যতম। মনে করা হয়, ইনস অফ কোর্টে রানি প্রথম এলিজাবেথের সামনে অভিনয়ের জন্য ১৫৯০-এর দশকের মধ্যভাগে কোনও এক সময়ে নাটকটি রচিত হয়েছিল। এই নাটকে দেখা যায় নাভারির রাজা ও তাঁর তিন সঙ্গী পঠনপাঠন ও উপবাসে মনোনিবেশ করার জন্য তিন বছর নারীসঙ্গ না করার শপথ গ্রহণ করছেন; কিন্তু ফ্রান্সের রাজকুমারী ও তাঁর সহচরীদের প্রতি মোহ তাঁদের শপথভঙ্গ করতে বাধ্য করছে। এই নাটকটির সমাপ্তি অংশটি কমেডির ঐতিহ্যবিরোধী। এখানে দেখা যায়, রাজকুমারীর পিতার মৃত্যু ঘটলে সকল বিবাহ এক বছরের জন্য স্থগিত রাখা হয়। এই নাটকটি পুরুষের প্রেম ও কামনা, পরিগণনা ও অনুধাবন এবং বাস্তব বনাম কল্পনার মতো বিষয়গুলির প্রতি দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে।

১৫৯৮ সালে কোয়ার্টোয় প্রথম প্রকাশিত হলেও নাটকটির প্রচ্ছদ পৃষ্ঠাটি দেখে মনে হয় সেটি নাটকের পূর্ববর্তী একটি সংস্করণের সংশোধিত রূপ। নাট্যকাহিনিটির কোনও স্পষ্ট উৎসসূত্রের কথা জানা না গেলেও চারটি প্রধান চরিত্র চার ঐতিহাসিক ব্যক্তিত্বের ছায়া অবলম্বনে নির্মিত। নাটকের শিরোনামে ঊর্ধ্বকমার ব্যবহার বিভিন্ন সংস্করণে ভিন্ন ভিন্ন। তবে সচরাচর লাভ’স লেবার’স লস্ট শিরোনামটিই ব্যবহৃত হয়।

শেকসপিয়রের দর্শকেরা নাটকে উপস্থাপিত ঐতিহাসিক ব্যক্তিবর্গ এবং নাটকের প্রেক্ষাপট ও ঘটনার সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত ইউরোপীয় রাজনৈতিক পরিস্থিতির বিষয়ে অবহিত ছিলেন। গবেষকদের মতে, নাভারি রাজসভার এই ঐতিহাসিক ও রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটটি সেকেলে হয়ে পড়লে এবং পরবর্তী প্রজন্মের থিয়েটার-দর্শকদের এগুলির প্রভাব হ্রাস পেলে নাটকটিও জনপ্রিয়তা হারায়। নাটকটির সূক্ষ্ম শব্দব্যঞ্জনা, পাণ্ডিত্যাভিমানী হাস্যরস ও অচলিত সাহিত্যিক উল্লিখন শেকসপিয়রের অধিকতর জনপ্রিয় কাজগুলির তুলনায় এটির আপেক্ষিক খ্যাতির কারণ হতে পারে। ঊনবিংশ শতাব্দীতে খুব কমই লাভ’স লেবার’স লস্ট মঞ্চস্থ হয়েছিল। তবে বিংশ ও একবিংশ শতাব্দীতে রয়্যাল শেকসপিয়র কোম্পানিন্যাশনাল থিয়েটার ও অন্যান্য অন্যান্য প্রযোজনায় এটি অনেক বেশি সংখ্যায় মঞ্চস্থ হয়। এছাড়া একটি মিউজিক্যাল, একটি অপেরা, বেতার ও টেলিভিশন অনুষ্ঠান এবং একটি একটি মিউজিক্যাল চলচ্চিত্র রূপেও এটি অভিযোজিত হয়।

শেকসপিয়র রচিত দীর্ঘতম নাট্যদৃশ্য (৫.২), দীর্ঘতম একক শব্দ 'অনরিফিকেবিলিটিউডিনিটেটিবাস' ('honorificabilitudinitatibus', ৫.১.৩৯–৪০) এবং (সম্পাদকীয় নির্বাচনের সাপেক্ষে) দীর্ঘতম ভাষণ (৪.৩.২৮৪-৩৬১) লাভ’স লেবার’স লস্ট নাটকের অন্তর্গত (নিচে "রচনাকাল ও পাঠ" অংশটি দেখুন)।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

সংস্করণ[সম্পাদনা]

  • Bate, Jonathan and Rasmussen, Eric (eds.) Love's Labour's Lost (The RSC Shakespeare; London: Macmillan, 2008)
  • Arthos, John (ed.) Love's Labour's Lost (Signet Classic Shakespeare; New York: Signet, 1965; revised edition, 1988; 2nd revised edition 2004)
  • Carroll, William C. (ed.) Love's Labour's Lost (The New Cambridge Shakespeare; Cambridge: Cambridge University Press, 2009)
  • David, Richard T. (ed.) Love's Labour's Lost (The Arden Shakespeare, 2nd Series; London: Arden, 1951)
  • Furness, H.H. (ed.) Love's Labour's Lost (A New Variourm Edition of Shakespeare; Philadelphia: J.B. Lippincott Company, 1904)
  • Evans, G. Blakemore (ed.) The Riverside Shakespeare (Boston: Houghton Mifflin, 1974; 2nd edn., 1997)
  • Greenblatt, Stephen; Cohen, Walter; Howard, Jean E. and Maus, Katharine Eisaman (eds.) The Norton Shakespeare: Based on the Oxford Shakespeare (London: Norton, 1997)
  • Harbage, Alfred (ed.) Love's Labour's Lost (The Pelican Shakespeare; London: Penguin, 1963; revised edition 1973)
  • Hart, H.C. (ed.) Love's Labour's Lost (The Arden Shakespeare, 1st Series; London: Arden, 1906)
  • Hibbard, G.R. (ed.) Love's Labour's Lost (The Oxford Shakespeare; Oxford: Oxford University Press, 1990)
  • Holland, Peter (ed.) Love's Labour's Lost (The Pelican Shakespeare, 2nd Edition; London: Penguin, 2000)
  • Kerrigan, John (ed.) Love's Labour's Lost (The New Penguin Shakespeare; London: Penguin, 1982; revised edition 1996)
  • Quiller-Couch, Arthur and Dover Wilson, John (eds.) Love's Labour' Lost (The New Shakespeare; Cambridge: Cambridge University Press, 1923; 2nd edn. edited by Dover Wilson only, 1962)
  • Walton, Nicholas (ed.) Love's Labour's Lost (The New Penguin Shakespeare 2nd edition; London: Penguin, 2005)
  • Wells, Stanley; Taylor, Gary; Jowett, John and Montgomery, William (eds.) The Oxford Shakespeare: The Complete Works (Oxford: Oxford University Press, 1986; 2nd edn., 2005)
  • Werstine, Paul and Mowat, Barbara A. (eds.) Love's Labour's Lost (Folger Shakespeare Library; Washington: Simon & Schuster, 1996)
  • Woudhuysen, H.R. (ed.) Love's Labour's Lost (The Arden Shakespeare, 3rd Series; London: Arden, 1998)

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]