রুক্মিণী বিজয়কুমার

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
রুক্মিণী বিজয়কুমার
2011 Erasing Borders Dance Festival.JPG
নিউ ইয়র্ক সিটিতে ২০১১ সালে ইরেজিং বর্ডার ডান্স ফেস্টিভ্যালে - রুক্মিণী বিজয়কুমার
জন্ম১৯৮০ (৪০ বছর)
পেশাঅভিনেত্রী, মডেল, নৃত্যশিল্পী
কর্মজীবন২০০৮ - বর্তমান
দাম্পত্য সঙ্গীরোহান মেনন

রুক্মিণী বিজয়কুমার হলেন হায়দ্রাবাদ, তেলেঙ্গানার ভারতীয় চলচ্চিত্র অভিনেত্রী এবং ভরতনাট্যম নৃত্যশিল্পী। [১][২][৩] মঞ্চে পারফর্ম করার পাশাপাশি তিনি চারটি তামিল ছবিতেও অভিনয় করেছেন।

পেশা[সম্পাদনা]

রুক্মিণী বিজয়কুমার আট বছর বয়সে তার নাচের প্রশিক্ষণ শুরু করেছিলেন। তিনি গুরু নর্মদা, গুরু পদ্মিনী রাও এবং গুরু সুন্দরী সান্থানামের অধীনে ভরতনাট্যম অধ্যয়ন করেছন। তিনি গুরু সুন্দরী সান্থানামের অধীনে বেশ কয়েক বছর করনা অনুশীলন করেছিলেন। রুক্মিনী ব্যালে অ্যান্ড আধুনিক নাচে বোস্টন কনজারভেটরি থেকে বিএফএ ডিগ্রি অর্জন করেছেন এবং তিনি বোস্টন কনজারভেটরিতে জাজ, ট্যাপ, আফ্রিকান, নৃত্য পরিচাল, ল্যাবন মুভমেন্ট এনালাইসিস, স্টেজক্র্যাফট এবং হিউম্যান অ্যানাটমি বিষয়ে প্রশিক্ষণ পেয়েছেন।

তদুপরি তিনি লস অ্যাঞ্জেলেসের নিউইয়র্ক ফিল্ম একাডেমিতে অভিনয় নিয়ে পড়াশোনা করেছেন এবং ভারতে থাকাকালীন পরিচালক প্রকাশ বেলাওয়াদির অধীনেও তিনি পড়াশোনা করেছেন। তিনি তাঁর নৃত্য সংস্থা রাধা কল্পের শৈল্পিক পরিচালক, যেখানে তিনি পড়াচ্ছেন, নৃত্য পরিচালনা করেছেন এবং নতুন ভরতনাট্যম তৈর‍ী করছেন, আধুনিক এবং পরীক্ষামূলক নাটকের কাজ করেছেন। তিনি বর্তমানে ইউসিএলএতে ফিটনেস ট্রেনিং করছেন এবং পদ্ম সুব্রাহ্মণ্যমের অধীনে চেন্নাইয়ের শাস্ত্র ইউনিভার্সিটিতে ভারতনাট্যমে একজন পেশাদার নৃত্যশিল্পীর এমএফএ কর্মসূচী গ্রহণ করছেন।

তিনি চলচ্চিত্রে আত্মপ্রকাশ করেন ভারথিরাজার থ্রিলার সাসপেন্স বোম্মালত্তম চলচ্চিত্রে কৃষ্ণা চরিত্রে অর্জুন, নানা পাটেকর এবং কাজল আগরওয়াল -দের মত পাঁচমিশালি অভিনেতাদের পাশাপাশি অভিনয় করে। এই চরিত্রে তিনি একটি রহস্যময় অভিষেক অভিনেত্রী হিসাবে উপস্থিত ছিলেন যা মিডিয়া থেকে গোপন রাখা হয়েছিল, চলচ্চিত্রটি শেষ পর্যন্ত প্রকাশ করেছিল যে তার চরিত্রটি আসলে একজন পুরুষ অভিনেতার জন্য, পরিচালক তৈরি করেছিলেন। চলচ্চিত্রটি ইতিবাচক পর্যালোচনার জন্য উন্মুক্ত ছিল, সমালোচকরা তার অভিনয়কে "অবশ্যই একটি আশ্চর্য প্যাকেজ" হিসাবে লেবেল দিয়েছিল। [৪][৫] তারপরে তিনি ২০০৯ সালের গান্ধী কৃষ্ণার রোমান্টিক চলচ্চিত্র আনন্দ ঠান্ডাভম -এ সিদ্ধার্থ ভেনুগোপাল এবং তামান্নার পাশাপাশি রত্না চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন, তবে ছবিটি বাণিজ্যিকভাবে ব্যর্থ ছিল। এরপরে রুক্মিণী আবারও সিদ্ধার্থ ভেণুগোপালের পাশাপাশি নান চলচ্চিত্রে হাজির হওয়ার জন্য চুক্তি করেছিলেন, তবে ছবিটি প্রযোজনার সমস্যায় পড়েছিল এবং ২০১০ সালে আবার ছবির কাজ শুরু হওয়ার পরে তিনি ছবিতে কাজ করার বিরোধিতা করেছিলেন। তদুপরি, প্রতাপ কে. পোথেন পরিচালিত ওরু নাল পধুমার চলচ্চিত্রে, যেখানে আর. মাধবন ছিলেন প্রধান চরিত্রে, সেখানও অভিনয় করতে অস্বীকৃতি জানান, আরেকটি প্রকল্পও ঘোষণার পরপরই বাতিল হয়ে যায়।

২০১২ সালে, রুক্মিণী কুচিদেয়ান চলচ্চিত্রে রজনীকান্তের বোনের ভূমিকায় অভিনয় করার জন্য নির্বাচিত হয়েছিলেন। [৬] এই ভূমিকায় আগে স্নেহা, অভিনয় করেছিলেন, যিনি তারিখ জটিলতায় বাদ পড়ে গিয়েছিলেন। [৭]

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

রুক্মিনী রোহান মেননকে বিয়ে করেছেন। [৮]

চলচ্চিত্রের তালিকা[সম্পাদনা]

বছর চলচ্চিত্র ভূমিকা ভাষা মন্তব্য
২০০৮ বোম্মালত্তম তৃষ্ণা তামিল তামিল চলচ্চিত্রে আত্মপ্রকাশ
২০০৯ আনন্দ ঠান্ডাভম রত্না তামিল
২০১৩ ভজরঙ্গি শ্রীকৃষ্ণ কন্নড কন্নড় চলচ্চিত্রে আত্মপ্রকাশ
মনোনীত - সেরা সহায়ক অভিনেত্রীর ফিল্মফেয়ার পুরস্কার - কান্নাডা
২০১৪ কুচিদেয়ান যমুনা দেবী তামিল
২০১৫ শামিতাভ নিজেকে হিন্দি প্রথম হিন্দি চলচ্চিত্রে আত্মপ্রকাশ
২০১৭ কাটরু ভেলিয়াডাই নিধি ড তামিল

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Srikanth, Rupa (২৬ আগস্ট ২০০৫)। "All style and aesthetics"The Hindu। ২০১১-০৬-০৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১০-০১-২৮ 
  2. Ashok Kumar, S. R (৩১ আগস্ট ২০০৭)। "Penchant for innovation Making an impact"The Hindu। Chennai, India। সংগ্রহের তারিখ ২০১০-০১-২৮ 
  3. Choudhary, Y. Sunitha (১২ এপ্রিল ২০০৯)। "This one is an average flick Film review"The Hindu। Chennai, India। সংগ্রহের তারিখ ২০১০-০১-২৮ 
  4. "Bommalattam lacks punch"Rediff.com। ১৫ ডিসেম্বর ২০০৮। সংগ্রহের তারিখ ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১২ 
  5. "Bommalattam Tamil Movie Review"। IndiaGlitz। ১২ ডিসেম্বর ২০০৮। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০২-১১ 
  6. "Rukmini shoots for a cameo with Dhanush"Sharanya CRThe Times of India। ২৬ ডিসেম্বর ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ ২৬ ডিসেম্বর ২০১৪ 
  7. "Sneha's loss is Rukmini's gain"11 February 2012। Behindwoods। সংগ্রহের তারিখ ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১২ 
  8. "Rajinikant is oblivious to his superstar status: Rukmini - The Times of India"The Times Of India 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]