রিথ মজুমদার

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
রিথ মজুমদার
জন্ম
পেশাঅভিনেত্রী, চিত্রনাট্যকার, চলচ্চিত্র পরিচালক
কর্মজীবন২০১১–বর্তমান

রিথ মজুমদার হলেন একজন ভারতীয় অভিনেত্রী এবং একজন প্রাক্তন পেশাদার মডেল। কানসহ বিভিন্ন আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে তাঁর চলচ্চিত্র প্রদর্শনের ফলে তিনি "ফেস্টিভাল গার্ল" হিসেবে পরিচিত রয়েছেন।[১][২]

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

রিথ মজুমদার ভারতের পশ্চিমবঙ্গের কলকাতার সৃজনশীলতার প্রতি আগ্রহী বাঙালি পরিবারে জন্মগ্রহণ করেছেন। তাঁর দাদু নিকুঞ্জ ভট্টাচার্য বাংলা চলচ্চিত্রের প্রবীণ সম্পাদক ছিলেন।[৩] চিত্রনাট্য লেখা, রেডিও রাইটিং এবং বিপণনের মতো অতিরিক্ত বিষয়ের সাথে ইংরেজি বিভাগে স্নাতক সম্পন্ন করার পর, রিথ মুম্বইয়ে চলে আসেন যাতে তিনি অভিনয়ে তাঁর কর্মজীবন গড়তে পারেন। তিনি মাত্র চার বছর বয়স থেকেই ভরতনাট্যম-সহ বিভিন্ন ধ্রুপদী ভারতীয় নৃত্যের প্রশিক্ষণ নিয়েছেন এবং বিভিন্ন অনুষ্ঠানে সরাসরি দর্শকের সামনে মঞ্চে নৃত্য পরিবেশন করেছেন।[৪]

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

২০১১ সালে, মজুমদার মডেলিং শুরু করেছিলেন এবং ল্যাকমি কসমেটিকস, প্যানাসনিক, লিস্টারিন, ফিয়ামা ডি উয়েলস এবং আর্কিজ (সংস্থা)-সহ বেশ কয়েকটি শীর্ষস্থানীয় প্রতিষ্ঠানের পণ্যের মুখপাত্র হয়েছিলেন। একই বছর তিনি অডিশন দেওয়ার পর ইন্দো-ইতালীয় চলচ্চিত্র, ভিজিবল ব্রা স্ট্র্যাপস-এর কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন। চিত্রায়ন সমাপ্তির পরে এই চলচ্চিত্রটি ২৫টি আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে প্রদর্শিত হয়েছিল এবং অডিয়েন্স চয়েস অ্যাওয়ার্ড, গোল্ডেন পাম এবং সেরা এক্সপেরিমেন্টাল ফিল্ম পুরস্কার জয়লাভ করা-সহ সমালোচকদের প্রশংসা কুড়িয়েছিল। পরে রিথ স্বীকার করেছেন যে, এই চলচ্চিত্রটি রাতারাতি তাঁর জীবন বদলে দিয়েছে এবং এর ফলে তিনি আন্তর্জাতিক অঙ্গনে কিছু সেরা চরিত্রে অভিনয় করার সুযোগ পেয়েছেন। পরবর্তীকালে তিনি দ্য আ রেভোয়ার নামে একটি ফরাসি চলচ্চিত্রে অভিনয় করার জন্য চুক্তিবদ্ধ হন। এই চলচ্চিত্রটি রোম্যান্স নাট্য ধরনের ছিল এবং আবার ইউরোপীয় উৎসবগুলোতে এই চলচ্চিত্রটি সকলের নজর কেড়েছিল।[৫] তাঁর কাজের প্রশংসা হিসেবে, মজুমদারকে ২০১১ সালের কান চলচ্চিত্র উৎসবে এশীয় প্রতিভা প্রদর্শনের জন্য বেছে নেওয়া হয়েছিল।

২০১২ সালে তাঁর পরবর্তী ইংরেজি চলচ্চিত্র সোয়েন বেশ কিছু উৎসবে প্রদর্শন করা হয়েছিল।[৬] তাঁর পরবর্তী চলচ্চিত্র, পরবাসিনী ফ্রান্স এবং বাংলাদেশের সহযোগিতায় নির্মাণ করা হয়েছিল। এটি একটি প্রথম বিজ্ঞান কল্পকাহিনী এবং একই সাথে এটি সবচেয়ে ব্যয়বহুল বাংলা চলচ্চিত্র ছিল। এই চলচ্চিত্রটি একই সাথে ফরাসি এবং বাংলা ভাষায় নির্মান করা হয়েছিল। ২০১৬ সালে রিথ এ স্ক্যান্ডাল নামক চলচ্চিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে নিজের দেশের পর্দায় আত্মপ্রকাশ করেছিলেন। ভারতের সেন্সর বোর্ড ভারতে এই চলচ্চিত্রটি মুক্তির বিষয়ে সম্মতি দেওয়ার পূর্বে এই চলচ্চিত্রটির বিভিন্ন দৃশ্যের বিয়োজন দাবি করেছিল।[৭] এই চলচ্চিত্রটি আরও ধাক্কা খেয়েছিল যখন বেশির ভাগ ভারতীয় মাল্টিপ্লেক্স চলচ্চিত্র হল শেষ মুহুর্তে এটি প্রদর্শন করতে অস্বীকৃতি জানায়। তবে জনসাধারণের মুখে প্রচার এবং একক চলচ্চিত্র হলে এই চলচ্চিত্রের দারুণ প্রতিক্রিয়া দ্বিতীয় সপ্তাহের পরে এই চলচ্চিত্রকে মাল্টিপ্লেক্সে ফিরে আসতে সহায়তা করেছিল।[৮]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Manishaa R (১১ জুন ২০১৬)। "REETH MAZUMDER "Scandals generally happen when the truth comes out of closed doors""। Blockbuster। সংগ্রহের তারিখ ৪ জুলাই ২০১৬ 
  2. "REETH MAZUMDER"। Let's Ring The Bell Productions। ১১ অক্টোবর ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৪ জুলাই ২০১৬ 
  3. "Nikunja Bhattacharya"। সংগ্রহের তারিখ ৪ জুলাই ২০১৬ 
  4. Samaksh Arora (১০ জুন ২০১৬)। "Reeth Mazumder"। Youngsterchoice। সংগ্রহের তারিখ ৪ জুলাই ২০১৬ 
  5. "The Au Revoir"। সংগ্রহের তারিখ ৪ জুলাই ২০১৬ 
  6. "Swen"। সংগ্রহের তারিখ ৪ জুলাই ২০১৬ 
  7. "'A Scandall' makers have no issues with cuts by Censor Board"। The Times Of India। ১০ জুন ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ৪ জুলাই ২০১৬ 
  8. "Reeth Mazumder: Multiplexes should give space to smaller films too"। ৩০ জুন ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ৪ জুলাই ২০১৬ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]